রবিবার ২৯শে নভেম্বর, ২০২০ ইং ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

‘বিচার বিভাগ নিয়ে ষড়যন্ত্র চলছে’

আপডেটঃ ১১:৪৭ অপরাহ্ণ | জুলাই ১৮, ২০১৪

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, “যে পার্লামেন্টে জনগণের প্রতিনিধিত্ব নেই সেই পার্লামেন্টের হাতে বিচারকদের অভিসংশনের ক্ষমতা দেয়ার চেষ্টা চলছে। এটা সরকারের গভীর ষড়যন্ত্র।”

শুক্রবার পুরান ঢাকায় এক অনুষ্ঠানে মির্জা ফখরুল এ কথা বলেন। বিএনপির নেতা নাসির উদ্দিন পিন্টুর মুক্তি ও রোগমুক্তি কামনায় চকবাজার থানা বিএনপি সাগুন কমিউনিটি সেন্টারে ওই দোয়া ও ইফতার অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

ফখরুল বলেন, “বাকশাল কায়েমের উদ্দেশ্যই সরকার বিচার বিভাগকে নিয়ন্ত্রণে নেয়ার চেষ্টা করছে। তাদের আইন পরিবর্তন করার কোনো অধিকার নেই। কারণ এ সরকারের জনসমর্থন নেই। তাদের কোনো নৈতিক ভিত্তি নেই।”

তিনি বলেন, “এই সরকারকে ক্ষমতা থেকে বিদায় করে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে সবচেয়ে বড় প্রয়োজন জাতীয় ঐক্য গড়ে তোলা। তাই আসুন নিজেদের মধ্যে দ্বিধাদ্বন্দ্ব ভুলে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে ইস্পাত কঠিন ঐক্য গড়ে তুলি।”

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব বলেন, “আজকেও নতুন মার্কিন রাষ্ট্রদূত বলেছেন ৫ জানুয়ারির নির্বাচন ত্রুটিপূর্ণ ছিল। তাই সব দলের আলোচনার মাধ্যমে একটি সুষ্ঠ গ্রহণযোগ্য নির্বাচন দেয়া উচিৎ।”

নাসির উদ্দিন পিন্টুকে গণতন্ত্রের সৈনিক উল্লেখ করে বিএনপির এই মুখপাত্র বলেন, “আওয়ামী লীগ সরকার মিথ্যা মামলা দিয়ে তাকে জেলে রেখেছে। এই সরকারকে পরাজিত করে তাকে জেল থেকে বের করে আনা হবে।”

প্রসঙ্গত, ১৯৭২ সালের সংবিধানের ৯৬ অনুচ্ছেদে বিচারপতিদের অভিশংসনের ক্ষমতা সংসদের কাছে ছিল। পরে পঞ্চম সংশোধনীর মাধ্যমে এ ক্ষমতা বিচার বিভাগের কাছে ন্যস্ত হয়। সম্প্রতি ওই ক্ষমতা আবার সংসদে ফিরিয়ে আনার উদ্যোগ নিয়েছে সরকার।