বৃহস্পতিবার ১৬ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং ২রা কার্তিক, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

আশকোনায় হজ্বক্যাম্পে হজ্বযাত্রীদের সমস্যায় তাৎক্ষণিক ভাবে ব্যবস্থা নেওয়া হবে – হজ্বক্যাম্পের পরিচালক

আপডেটঃ ১:১০ পূর্বাহ্ণ | জুলাই ০৯, ২০১৯

এস,এম,মনির হোসেন জীবন ॥ আশকোনা হজক্যাম্পের পরিচালক মো. সাইফুল ইসলাম বলেছেন, হজ্বে যাওয়ার প্রাক্কালে বাংলাদেশ থেকে কোন হজযাত্রীরা কোন ধরনের সমস্যায় পড়লে তা তাৎক্ষণিক ভাবে ব্যবস্থা নেয়া হচেছ। এবছর বাংলাদেশী হজযাত্রীদের সুবিধা-অসুবিধা বর্তমান সরকার অনেকটা আন্তরিকভাবে দেখছে। আশা করি হাজীদের কোন ধরনের অসুবিধা হবে না।
আজ সোমবার সকালে আশকোনা হজক্যাম্পের নিজ কার্যালয়ে হজ ফ্লাইট ও হজযাত্রীদের সুবিধা-অসুবিধা নিয়ে এক প্রেসব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।
প্রেসব্রিফিংয়ে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, হজ এজেন্সিস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) সভাপতি শাহাদাত হোসেন তসলিমসহ হজক্যাম্পের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তারা সাথে ছিলেন।
হজক্যাম্পের পরিচালক মো: সাইফুল ইসলাম বলেন, এ বছর হজ্ব যাত্রীদের সমস্যা এেেক বারে নেই বললেই চলে। এবার সামান্য সংখ্যক যাদের ভিসা হয়নি তারা নিজেরাও বুঝতে পেরেছেন, এখানে কারও হাত নেই। এজেন্সি বা মন্ত্রণালয়েরও কিছু করার নেই।
আশকোনা হজ্বক্যাম্পে হাবের সভাপতি শাহাদাত হোসেন তসলিম বলেন, এ পর্যন্ত সর্বমোট ১৭ হাজার ৯৬৪ জন হজযাত্রী সৌদি আরব পৌঁছেছেন। এদের মধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনায় ৩ হাজার ৩৩৪ জন এবং বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় ১৪ হাজার ৬৩০ জন।
তিনি আরও বলেন, যারা এখনও যাননি, হজ অফিস, মন্ত্রণালয়, হাব ও বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স তাদের খেদমতে সর্বদা নিয়োজিত রয়েছে।
ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়, আশকোনা হজ্বক্যাম্প ও বিমান এয়ারলাইন্স সুত্রে জানা যায়, চলতি বছর সরকারি ও বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় মোট হজযাত্রীর সংখ্যা ১ লাখ ২৬ হাজার ৯২৩ জন। গত ৪ জুলাই থেকে চলতি মৌসুমে পবিত্র হজ ফ্লাইট শুরু হয়ে শেষ হবে ৫ আগস্ট। হজযাত্রীদের প্রথম ফিরতি ফ্লাইট ১৭ আগস্ট এবং শেষ ফিরতি ফ্লাইট ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯। ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক অনুমোদিত হজ এজেন্সির সংখ্যা ৫৯৮টি।