বুধবার ২০শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং ৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

তুরাগ হতে কিশোর গ্যাং গ্রুপের ১১ সদস্যকে অস্ত্রসহ গ্রেফতার -র‌্যাব-১……..

আপডেটঃ ২:৫২ পূর্বাহ্ণ | জুলাই ১৬, ২০১৯

বিশেষ প্রতিনিধিঃ :রাজধানীর তুরাগ হতে ‘নিউ নাইন স্টার’ কিশোর গ্যাং গ্রুপের ১১ জন সদস্যকে অস্ত্রসহ গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১ । র‌্যাব-১ প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে সমাজের বিভিন্ন অপরাধ এর উৎস উদ্ঘাটন, অপরাধীদের গ্রেফতারসহ আইন শৃংখলার সামগ্রিক উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। র‌্যাবের সৃষ্টিকাল থেকে চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসী, খুনী, বিপুল পরিমান অবৈধ অস্ত্র গোলাবারুদ উদ্ধার, ছিনতাইকারী, অপহরণ ও প্রতারকদের গ্রেফতার করে সাধারণ জনগণের মনে আস্থা অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে। এছাড়াও বিভিন্ন সময়ে সংগঠিত চাঞ্চল্যকর অপরাধে জড়িত অপরাধীদের আইনের আওতায় এনে র‌্যাব জনগনের সুনাম অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে।

উত্তরা, তুরাগ, আব্দুল্লাহপুর, টঙ্গী ও পাশ্ববর্তী এলাকায় বেশ কিছুদিন ধরে কিশোর গ্যাং গ্রুপের আত্মপ্রকাশ ও বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকান্ডে জড়িত হওয়ার বিষয়টি র‌্যাব-১ এর দৃষ্টিগোচর হয়। পূর্বে এ সকল এলাকায় ছোট বড় অনেক কিশোর গ্যাং গ্রুপ থাকলেও র‌্যাব-১ এর একাধিক অভিযানে অধিকাংশ গ্যাং গ্রুপ নিস্ক্রিয় হয়। তথাপিও নিস্ক্রিয় গ্যাং গ্রুপের কতিপয় সদস্য পুনঃরায় সংগঠিত হয়ে এলাকায় আধিপত্য বিস্তারের চেষ্টা করছে বলে অতি সম্প্রতি র‌্যাব-১ এর গোয়েন্দা অনুসন্ধানে উঠে আসে। কিশোর গ্যাং গ্রুপের আন্তঃকোন্দল ও আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে সম্প্রতি ঘটে যাওয়া কয়েকটি হত্যাকান্ডে যার প্রমাণ পাওয়া যায়। এই সমস্ত গ্যাং গ্রুপের মূল কার্যক্রম হলো- এলাকার আধিপত্য বিস্তার, স্কুল কলেজে র‌্যাগিং করা, স্কুল কলেজের ছাত্রীদের উত্ত্যক্ত করা, মাদক সেবন, ছিনতাই, উচ্চ শব্দ করে মটরসাইকেল বা গাড়ী চালিয়ে জনমনে আতংক সৃষ্টি করা, ছিনতাই, অশ্লীল ভিডিও শেয়ার করা সহ এলাকায় ত্রাস সৃষ্টি করা তাদের অন্যতম কাজ। এরা এলাকার নিরীহ ও মেধাবী যুবক/কিশোরদের চাপে রেখে জোর পূর্বক দলে আসতে বাধ্য করে। গ্যাং ভিত্তিক এদের নিজস্ব লোগো রয়েছে যা দেয়াল লিখন ও ফেইসবুকে ব্যবহার করে। এরা ফেইসবুকে এক গ্রুপ অন্য গ্রুপকে হুমকি প্রদান করে স্ট্যাটাস দেয় এবং পরস্পরের আইডি হ্যাক করার চেষ্টা করে। এরা গ্যাং এর উপর নির্মিত বিভিন্ন পশ্চিমা চলচ্চিত্র অনুসরণ করে থাকে।

র‌্যাব-১ এর গোয়েন্দা অনুসন্ধানে রাজধানীর তুরাগ এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকারী তেমনি একটি কিশোর গ্যাং গ্রুপ এর তথ্য পাওয়া যায়। জানা যায় যে, এই গ্রুপটি এর আগে ২০১৭ সালের দিকে উত্তরা এলাকায় ‘নাইন স্টার’ নামে সক্রিয় ছিল। পরবর্তীতে আদনান হত্যাকান্ডে জড়িত থাকায় এই গ্যাং গ্রুপের সদস্যদের আইনের আওতায় আনা হলে গ্যাংটি বিলুপ্ত হয়ে যায়। সম্প্রতি তুরাগ এলাকায় ‘নিউ নাইন স্টার’ গ্যাং গ্রুপ নামে এটি আবারও আত্মপ্রকাশ করেছে এবং আধিপত্য বিস্তারের উদ্দেশ্যে বিভিন্ন অপরাধকর্ম করছে বলে গোয়েন্দা অনুসন্ধানে জানা যায়। বর্ণিত গ্যাং গ্রুপের বিপথগামী সদস্যদের আইনের আওতায় আনতে র‌্যাব-১ গোয়েন্দা নজরদারী বৃদ্ধি করে।

এরই ধারাবাহিকতায় গত ১৫ জুলাই ২০১৯ তারিখ আনুমানিক ০১:৩০ ঘটিকায় র‌্যাব-১, উত্তরা, ঢাকা এর একটি আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রাজধানীর তুরাগ থানাধীন বাউনিয়া এলাকা হতে উক্ত গ্যাং গ্রুপের কতিপয় সদস্য অপরাধকর্ম সংঘটনের উদ্দেশ্যে অবস্থান করছে। প্রাপ্ত সংবাদের ভিত্তিতে আভিযানিক দলটি বর্ণিত স্থানে অভিযান পরিচালনা করে গ্যাং গ্রুপের সক্রিয় সদস্য ১) মোঃ হাবিবুর রহমান দাড়িয়া (৩০), পিতা- আব্দুল হাই, মাতা- আজমিলা বেগম, সাং- দলিপাড়া, হোল্ডিং নং-৬, রোড নং-২, বি ব্লক, থানা- তুরাগ, ডিএমপি, ঢাকা, ২) ফয়সাল আহম্মেদ (১৭), পিতা- আব্দুর রশিদ, মাতা- ফজিলা বেগম, সাং- ঢালার পাড়, থানা- শ্রীনগর, জেলা- মুন্সিগঞ্জ, বর্তমানে সাং- দলিপাড়া, থানা- তুরাগ, ডিএমপি, ঢাকা, ৩) রাকিবুল হাসান (১৬), পিতা- হেলাল উদ্দিন, মাতা- রাজিয়া বেগম, সাং- সাটিয়া, থানা- ইশ্বরগঞ্জ, জেলা- ময়মনসিংহ, বর্তমানে সাং- দলিপাড়া, থানা- তুরাগ, ডিএমপি, ঢাকা, ৪) মোঃ রমজান আলী (১৭), পিতা- আসমত আলী, মাতা- মল্লিকা বেগম, সাং- খোয়াপাড়া, থানা- কিশোরগঞ্জ সদর, জেলা- কিশোরগঞ্জ, বর্তমানে সাং- দলিপাড়া, থানা- তুরাগ, ডিএমপি, ঢাকা, ৫) মোঃ বাবু মিয়া (১৭), পিতা- বারেক মিয়া, মাতা- জোসনা বেগম, সাং- দলিপাড়া, থানা- তুরাগ, ডিএমপি, ঢাকা, ৬) মোঃ নজরুল ইসলাম (২৭), পিতা- জমত আলী, মাতা- রোজিনা খান, সাং- দলিপাড়া, থানা- তুরাগ, ডিএমপি, ঢাকা, ৭) মোঃ শাহীন হাওলাদার (১৫), পিতা- মোঃ হাবিব হাওলাদার, মাতা- নূপুর বেগম, সাং- চর পাতানিয়া, থানা- বরিশাল সদর, জেলা- বরিশাল, বর্তমানে বর্তমানে সাং-  দলিপাড়া, থানা- তুরাগ, ডিএমপি, ঢাকা, ৮) তুহিন ইসলাম (১৫), পিতা- মোঃ সেলিম, সাং- উজুলী দিয়ারীপাড়, থানা- কাপাসিয়া, জেলা- গাজীপুর, বর্তমানে সাং- দলিপাড়া, থানা- উত্তরা পূর্ব, ডিএমপি, ঢাকা, ৯) মোঃ মাহমুদ হীরা (১৫), পিতা- মানিক মিয়া, মতা- রেহানা পারভীন, সাং- পাঙ্গাসিয়া গ্রাম, থানা- ধুমকী, জেলা- পটুয়াখালী, বর্তমানে বর্তমানে সাং- দলিপাড়া, থানা- তুরাগ, ডিএমপি, ঢাকা, ১০) মোঃ রনি ইসলাম (১৫), পিতা- আব্দুল গফুর, মাতা- জীবন আরা বেগম, সাং- পশ্চিম দেবু, থানা- পীরগঞ্জ, জেলা- রংপুর, বর্তমানে সাং- দলিপাড়া থানা- তুরাগ, ডিএমপি, ঢাকা এবং ১১) মোঃ সাগর হোসেন (১৬), পিতা- মোঃ আব্দুর রাজ্জাক, মাতা- সামসুন্নাহার, সাং- চর লক্ষীকান্তপুর, থানা- জাজিরা, জেলা- শরিয়তপুর, বর্তমানে বাসা সাং- দলিপাড়া, থানা- তুরাগ, ডিএমপি, ঢাকা’দেরকে গ্রেফতার করে। এসময় ধৃত আসামীদের নিকট হতে ০২ টি শর্ট গান, ০৪ রাউন্ড কার্তুজ, ০১ টি চাইনিজ কুড়াল ও ০৩ টি ধারালো ছুরি উদ্ধার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত আসামীদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানায় যে, তারা ‘নিউ নাইন স্টার গ্যাং গ্রুপের সক্রিয় সদস্য। ধৃত আসামী হাবিবুর রহমান দাড়িয়া, ফয়সাল আহমেদ, বাবু মিয়া ও সাগর পূর্বে উত্তরার ‘নাইন স্টার গ্যাং গ্রুপের সদস্য ছিল এবং বাকিরা তাদের মাধ্যমে নতুন করে দলে এসেছে। নতুন করে গ্রুপে আসা সদস্যরা সকলে স্থানীয় বিভিন্ন স্কুল ও কলেজে অধ্যয়নরত বলে জানায়। তারা পুনরায় তুরাগ এলাকায় সংগঠিত হয়ে আধিপত্য বিস্তার করার চেষ্টা করছিল বলে স্বীকার করে। গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।