সোমবার ১৬ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ইং ১লা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

গাজীপুরে বিস্ফোরণে ভবনধস পরিদর্শন করেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল

আপডেটঃ ১০:৫৭ পূর্বাহ্ণ | সেপ্টেম্বর ১০, ২০১৯

নিজস্ব প্রতিনিধি:-গাজীপুর – গাজীপুরের বোর্ডবাজার এলাকায় একটি খাবার হোটেলে বিস্ফোরণের ঘটনা গতকাল রোববার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন গাজীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব মো: জাহিদ আহসান রাসেল। সোমবার রাত ৯টায় দলীয় নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে বিস্ফোরণের ধ্বংসস্তুপ পরিদর্শনে আসেন। এসময় তার সফর সঙ্গী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গাজীপুর মহানগর আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ্ব মহিউদ্দিন আহমেদ মহি, মহানগর আওয়ামীলীগের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আলহাজ্ব মো: শহীদ উল্লাহ, মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক ডা: মোজাফর হোসেন, এস এম শামীম, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন ৩৫নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আব্দুল্লাহ আল মামুন মন্ডল, ৩৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাইফুল ইসলাম দুলাল, যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আমান উদ্দিন সরকার, রাসেদুজ্জামান জুয়েল মন্ডল, শফিকুল ইসলাম শফিক, যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ইসমাইল হোসেন, কাজী শুভ, গাজীপুর মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক তৌহিদুল ইসলাম দীপ, আওয়ামীলীগ নেতা হাজী আহম্মদ আলী, মো: ইসমাইল হোসেন, বদিউজ্জামান বকুল, গাছা থানা ছাত্রলীগের সভাপতি শেখ মাসুদ রানা, সাধারণ সম্পাদক মানিক হোসেন পাঠান প্রমুখ।
উল্লেখ্য, গত ৭ সেপ্টেম্বর দিবাগত রাত ১টা ৪৫মিনিটে বোর্ড বাজার এলাকায় এতে ভবনটির একাংশ ধসে পড়ে দগ্ধসহ অন্তত ১৮ জন আহত হয়েছেন। এসময় পাশের দু’টি ভবনের কিছু অংশও ধসে পড়ে। গত রোববার রাত ২টার দিকে রাঁধুনি হোটেলে ও তৃপ্তি হোটেলে এ ঘটনা ঘটে। আহতদের ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
টঙ্গী ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার আতিকুর রহমান বলেন, শনিবার মধ্যরাতে বোর্ড বাজার এলাকায় তিন তলা ভবনের রাঁধুনি হোটেলে বিকট শব্দে বিস্ফোরণ ঘটে। এতে ভবনের নিচতলা ও দ্বিতীয়তলা এবং পাশের দু’টি চারতলা ভবনের নিচতলা আংশিক ধসে পড়ে। এ ঘটনায় অন্তত ১৮ জন আহত হয়েছেন। স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে তায়রুন্নেসা মেমোরিয়াল মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল নিয়ে যান। সেখান থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তাদের ঢামেক হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে পাঠানো হয়েছে।
বিস্ফোরণে হোটেলটি চ‚র্ণ-বিচ‚র্ণ হয়ে গেছে। এছাড়া পাশের তৃপ্তি হোটেল ও আইএফআইসি ব্যাংক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ‘ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছানোর আগেই স্থানীয়রা আহতদের হাসপাতাল নিয়ে যান। তবে, ফায়ার সার্ভিস পরে আরও দু’জনকে উদ্ধার করে।’
মো. আতিকুর রহমান বলেন, হোটেলটিতে গ্যাসের সংযোগ ছিল। ধারণা করা হচ্ছে, সেখান থেকে এ বিস্ফোরণ ঘটেছে। তদন্তের পরই বিষয়টি পরিষ্কার বলা যাবে।
অপরদিকে বিস্ফোরণের ঘটনায় তদন্ত কমিটি
গাজীপুর সিটি করপোরেশনের বোর্ডবাজার এলাকায় রাঁধুনি নামে খাবার হোটেলে বিস্ফোরণের ঘটনায় পাঁচ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ঘটনার পর রোববার সকালে গাজীপুরের জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট শাহিনুর ইসলামকে প্রধান করে এ কমিটি গঠন করা হয়।
অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট শাহিনুর ইসলাম জানান, রাত ২টার দিকে বোর্ডবাজার এলাকায় রাঁধুনি হোটেলে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এতে কমপক্ষে ১৮ জন আহত হয়েছেন। ঘটনা তদন্তের জন্য পাঁচ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন- ফায়ার সার্ভিসের একজন, জিএমপি পুলিশের একজন, তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন কোম্পানি লিমিটেডের একজন ও বিস্ফোরণ অধিদপ্তরের একজন প্রতিনিধি। কমিটিকে আগামী সাত কর্মদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।