মঙ্গলবার ১৯শে নভেম্বর, ২০১৯ ইং ৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

গাজীপুর সি‌টিকর্পোরেশ‌নের বিরুদ্ধে সালনা থেকে শিমুলতলী পর্যন্ত রাস্তা প্রসস্ত করন কা‌জে ক্ষতিপূরণের দাবিতে এলাকাবাসির মানববন্ধন…

আপডেটঃ ৩:০৪ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ০৩, ২০১৯

টঙ্গী (গাজীপুর) প্রতিনিধি : গাজীপুর সি‌টিকর্পোরেশ‌নের সালনা থেকে শিমুলতলী পর্যন্ত রাস্তা প্রসস্তকরন কা‌জে এলাকার বা‌সিন্দা‌দের বা‌ড়িঘর দোকানপাট ভে‌ঙ্গে রাস্তা প্রসস্তকরনের প্রতিবাদ ও ক্ষতিপূরণের দাবিতে গতকাল শুক্রবার বিকালে গাজীপুরেশনের এটিআই গেইটের সামনে মানববন্ধন ক‌রে‌ছেন এলাকার সর্বস্তরের জনগন। এসময় রাস্তার দুইপা‌শে দা‌ড়ি‌য়ে এলাকার হাজার হাজার ভুক্তভোগী এই প্র‌তিবাদ জানায়। ঘন্টাব্যাপী এই মানববন্ধ‌ও প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন এলাকার ভোক্তভোগী বাংলাদেশ মহিলা আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সদস্য রুমা আক্তার, গাজীপুর মহানগর আওয়ামীলীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক আসাদুজ্জামান তরুন, গাজীপুর পৌর আওয়ামীলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম বাবু, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের ২৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর র‌ফিকুল ইসলাম কালু, ভোক্তভোগী হাজী ওমর ফারুক, হাজী আলতাফ হোসেন, টাকশাল ডেপুটি ম্যানেজার আবু সাইদ, আওয়ামীলীগ নেতা মোস্তফা বারী রাজু, আঃ মান্নান মিয়া, সামছুল আলম, হাজী সাহিদউল্লা মিয়া, স্বেচ্ছাসেকবলীগ নেতা আনোয়ার হোসেন, হাজী শরিফ মিয়া, হাজী জুলহাস মিয়া, আব্দুল আলীম, হাবিবুর রহমান, সাইফুল ইসলাম, সোহেল মাহমুদ, মাজহারুল ইসলাম বেপারী, রোকসানা আক্তার, ২৪নং ওয়ার্ড যুবলীগ নেতা স¤্রাট হোসেন, বেবি আক্তার, মরিয়ম বেগমসহ এলাকার গন্যমান্য ব্য‌ক্তিবর্গ উপ‌স্থিতি ছি‌লেন। মানবন্ধ‌নে বক্তারা ব‌লেন, রাস্তা প্রসস্তকরন বা সি‌টির উন্নয়‌নে আমা‌দের কোন বাধা নেই, উন্নয়ন কর‌তে গি‌য়ে সাধারণ মানু‌ষের ক্ষ‌তিপূরন দিতে হ‌বে এটা সি‌টি কর্পোরেশন‌কে দেখ‌তে হ‌বে। এছাড়াও রাস্তা প্রসস্তকরণ ক্ষতিপূরণ না দিয়ে এ কথা শুনে ১৯নং ওয়ার্ডের আব্দুস সালাম নামে এক ব্যক্তি স্টোক করে মারা যান। এবং জয়নাল আবেদীন নামে একজন স্টোক করে বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। আমাদের দাবী রাস্তা প্রসস্তকরণ করতে হলে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন মেয়র জাহাঙ্গীর আলম আমাদের ক্ষতিপূরণ অবশ্যই দিতে হবে। নচেত আমরা কোনভাবেই জায়গা ছাড়বো না। মরিয়ম আক্তার বলেন, আমি সারাজীবন চাকুরী করে উপার্জিত টাকা দিয়ে একখন্ড জায়গায় ক্রয় করে ৭টি ঘর তুলেছি। ওই ঘর সিটি কর্পোরেশন রাস্তা প্রসস্ত করতে নিয়ে গেলে আমার রাস্তায় নামা ছাড়া কোন উপায় থাকবে না। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সুদৃষ্টি কামনা করছি উন্নয়নে আমাদের কোন বাধা নেই। কিন্তু আমাদের ক্ষতিপূরণ অবশ্যই দিতে হবে।