রবিবার ২৯শে নভেম্বর, ২০২০ ইং ১৪ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

সাংবাদিককে ফাঁসানোর উদ্দেশ্য

আপডেটঃ ৭:১০ অপরাহ্ণ | জুলাই ২৫, ২০১৪

সাংবাদিককে ফাঁসানোর উদ্দেশ্য
আজকালের খবরের টঙ্গী প্রতিনিধির নাম ব্যবহার করে
টঙ্গী ওসির বিরুদ্ধে প্রশাসনিক উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের দপ্তরে অভিযোগ দায়ের

স্টাফ রিপোর্টার
টঙ্গীর একটি চক্র সম্প্রতি দৈনিক আজকালের খবরের টঙ্গী প্রতিনিধি এবং অনলাইন পত্রিকা “ক্রাইম বাংলা ডট. কম” এর সম্পাদক মৃণাল চৌধুরী সৈকতের নাম ব্যবহার করে উদ্ধেশ্য মূলকভাবে টঙ্গী মডেল থানার অফির্সাস ইনচার্জসহ থানার গোপন নথিপত্র সংক্রান্ত একটি অভিযোগ প্রশাসনিক উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের দপ্তরে প্রেরণ করে তাকে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হয়েছে। এঘটনায় ভুক্তভোগী সাংবাদিক মৃণাল চৌধুরী সৈকত টঙ্গী মডেল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন।
সাধারণ ডায়েরি সূত্রে জানা যায়, সম্প্রতি কে বা কাহারা টঙ্গী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জসহ থানা অন্যান্য কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে এবং থানার হাজত রেজিষ্টার এবং বিভিন্ন গোপনীয় নথিপত্র সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহ করে পুলিশের ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি ও জেলা পুলিশ সুপারসহ উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের বরাবর ষড়যন্ত্র ও উদ্দেশ্যমূলকভাবে সাংবাদিক মৃণাল চৌধুরী সৈকতের নাম ব্যবহার করে একটি অভিযোগপত্র প্রেরণ করে। এধরনের একটি অভিযোগ প্রেরণের মাধ্যমে উক্ত সাংবাদিককে ফাঁসানোর চেষ্টা করেছে দুষ্ট চক্রটি। বিষয়টি জানা-জানি হওয়ার পর এঘটনার তীব্র প্রতিবাদ করে সাংবাদিক মৃণাল চৌধুরী সৈকত গত বুধবার ২৩ জুলাই-২০১৪ ইং রাতে টঙ্গী মডেল থানার সাধারণ ডায়রী নং-১১৫৩ দায়ের করেছেন।
এব্যাপারে সাংবাদিক মৃণাল চৌধুরী সৈকত বলেন, আমি এধরণের অভিযোগ করে কখনই- কোথাও-কোন প্রকার অভিযোগ/দরখাস্ত করি নাই। আমার ক্ষতি করতে এবং স্থানীয় থানা পুলিশের সাথে আমার শত্র“তা সৃষ্টির লক্ষে এবং আমাকে প্রশাসনের নিকট হেয় প্রতিপন্ন করে আমার সুনাম ক্ষুন্ন  করতে আমার নাম ব্যবহার করে একটি দুষ্ট চক্র/কুচক্রিমহল ষড়যন্ত্রমূলকভাবে এধরনের একটি অভিযোগ/দরখাস্ত প্রশাসনের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের দপ্তরে পাঠিয়েছে। এ সম্পর্কে আমি কিছুই জানি না। আমি বিষয়টির সুষ্ঠু তদন্ত পুর্বক ঘটনাটির সাথে জড়িতদের সনাক্ত করে কঠিন শাস্তি দাবী করছি।
###
টঙ্গী থেকে মৃণাল চৌধুরী সৈকত
তাং-২৫.০৭.২০১৪ ইং।
(মৃচৌসৈ-১৪) ॥॥