শনিবার ২৫শে জানুয়ারি, ২০২০ ইং ১২ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

চা বিক্রেতাকে মাদক ব্যবসার মিথ্যা অভিযোগ দিয়ে পুলিশের ঘুষ গ্রহণ..

আপডেটঃ ১:৪৫ পূর্বাহ্ণ | ডিসেম্বর ১১, ২০১৯

বিশেষ প্রতিনিধি {ক্রাইম} -: রাজধানীর উত্তরার সুইচগেটে চা বিক্রেতা মোঃআনিসকে  দোকানের পাশে কাজ করা অবস্থায় ডেকে নিয়ে  মাদক বিক্রির অভিযোগ  দিয়ে পুলিশের গাড়ীতে তুলে নিয়ে ৭০০০ হাজার টাকা নেয়ার অভিযোগ উঠেছে। গত ১১/২৪/২০১৯ তাং উত্তরা পশ্চিম থানার এস আই কাউসার ও তার দুই ফর্মা মোঃমিজান (২৫) ও মোঃ আনোয়ার(৩৫)বিরুদ্ধে এ অভিযোগ উঠে। উত্তরা পশ্চিম থানাধীন সুইচগেটে এ ঘটনা ঘটে।
মোঃ আনিস(৪৫) সুইচগেট ট্রাফিক পুলিশ বক্স এর পিছনে ফুটপাতে চা বিক্রি করে নিজের সংসার ও ছেলেকে ইঞ্জিনিয়ারিং পড়াচ্ছেন বলে জানা যায়। মোঃ আনিস সুইচগেট এলাকার অস্থায়ী বাসিন্দা বলে জানাগেছে।

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী ব্যক্তিরা বলেন,মোঃ আনিস দীর্ঘদিন সুইচগেট এলাকায় চা বিক্রি করে। গত ১১/২৪/২০১৯ সকাল  আনুমানিক ১২:০০ টার সময় ২ জন ফর্মা সহ  পুলিশের একটি টহল গাড়ী এসে থামে দোকানের সামনে। আমরা চা খাচ্ছিলাম তখন মোঃ মিজান এসে বলে স্যার আমি  আনিস  এর কাছ থেকে এটা নিয়েছি উত্তরে আনিস বল্লো স্যার আমি বিগত দুই ঘণ্টা জাবৎ দোকানে নাই আমি নিচে কাট বাশ কাটতে গিয়েছিলাম আপনি নিজেই দেখেছেন এই বলার সাথে সাথে ফর্মা  মোঃআনোয়ার বলে ওনার স্ত্রীর কাছ থেকে গাঁজা নিয়েছি এই বলে মোঃ আনিস কে পুলিশ জোর করে গাড়ীতে তুলে কামারপাড়ার দিকে নিয়ে যায় পরে ফর্মা  মিজান ও আনোয়ার ১০.০০০ হাজার টাকা দাবী করে বসে মোঃ আনিসের স্ত্রী খাদিজা বেগমের কাছে।আমরা কয়েকজন আনিসের স্ত্রীর কান্নাকাটি দেখে বাসের স্টাফ ও দোকানদার থেকে ৭০০০ টাকা তুলে দেয়ার পরে আনিসকে পুলিশ ছেড়ে দেয়।
অভিযোগ এর বিষয় জানতে চাইলে

এসআই কাউসার  অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তাঁর দাবি, এধরণের কোন ঘটনা ঘটেনি। আনিস সাংবাদিকদের সাথে কথা বলার সময় প্রতিবাদী কন্ঠে বলে উঠে আমি মাদক ব্যাবসায়ী না আমার কাছে পুলিশ মাদক পাইনি তবুও কেনো এমন করলো গরিব বলে।

মোঃ আনিস পিতা জালাল হাওলাদার পটুয়াখালীর বাউফাল থানা এলাকার রাজাপুর গ্রামের স্থায়ী বাসিন্দা বলে জানা যায়।