শনিবার ২৬শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ ইং ১১ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

রাজধানীর বনানী থেকে চীনা নাগরিকের মরদেহ উদ্ধার- তিন নিরাপত্তাকর্মী আটক…

আপডেটঃ ৩:১২ অপরাহ্ণ | ডিসেম্বর ১২, ২০১৯

এস,এম,মনির হোসেন জীবন –রাজধানীর বনানী থানার ২৩ নম্বর রোডের ৮২ নম্বর বাড়ির পাশ মাটিতে পুঁতে রাখা জে জিয়াং ফি ওরফে গাঁও নামে এক চীনা নাগরিকের মরদেহ উদ্ধার করেছে বনানী থানা পুলিশ। খবর পেয়ে বনানী থানা পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্বার করেছে। চীনা নাগরিকের মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় ওই ভবনের তিন নিরাপত্তাকর্মীকে জিঞ্জাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ। তাৎক্ষনিক ভাবে তাদের নাম জানা যায়নি।
আজ বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বনানীর ২৩ নম্বর রোডের ৮২ নম্বর বাড়ির পাশ থেকে তার মরদেহটি উদ্বার করে।
ডিএমপি বনানী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নূরে আযম মিয়া আজ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
তিনি জানান, আজ বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বনানীর ২৩ নম্বর রোডের ৮২ নম্বর বাড়ির পাশে খোলা জায়গায় মাটি খুঁড়ার কাজ করছিল কয়েক জন শ্রমিক। এসময় তারা মাটির নিচে পোতা অবস্থায় এক ব্যক্তির মরদেহ দেখতে পেয়ে বনানী থানা পুলিশকে খবর দেয়। পরে খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছে বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে মাটির নিচ থেকে ওই চীনা নাগরিকের মরদেহটি উদ্বার করে।
বনানী থানা পুলিশ স্থানীয় লোকজনের বরাত দিয়ে জানান, প্রাথমিক তথ্য অনুযায়ী, ওই ব্যক্তি একজন চীনা নগরিক। তার নাম জে জিয়াং ফি ওরফে গাঁও। বনানীর ২৩ নম্বর রোডের ৮২ নম্বর বাসার ষষ্ঠ তলায় তিনি পরিবার সপরিবারে বসবাস থাকতেন। সেই ভবনের পাশেই মাটিতে পুঁতে রাখা অবস্থায় তার লাশ পাওয়া যায়। আসলে কী ঘটেছিল তা এখনও স্পষ্ট নয়। কিছু দিন আগে ওই চীনা ব্যক্তির পরিবারের সদস্যরা চীনে গেছেন। পরবর্তীতে খবর পেয়ে সিআইডির ক্রাইম সিন সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়েছেন এবং তরা আলামত সংগ্রহ করেছেন।
ভবনের ম্যানেজার বাপ্পি সিনহা জানান, মঙ্গলবার বিকেলেও তার সঙ্গে আমার দেখা হয়েছে। সে গত এক বছর ধরে এ বাসায় আছেন। ওই চীনা নাগরিক পদ্মা সেতুতে পাথর সরবরাহসহ সরকারের কয়েকটি মেগা প্রকল্পে কাজ করতেন তার সঙ্গে তার পরিবারও থাকত। সম্প্রতি তার পরিবার চীনে ফেরত যায়।
বনানী থানার (ওসি) নূরে আযম মিয়া আজ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ওই ভবনের তিন নিরাপত্তাকর্মীকে থানায় আনা হয়েছে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।
ওসি বলেন, চীনা ওই নাগরিক ভবনের ষষ্ঠ তলায় থাকতেন। ধারণা করা হচ্ছে তাকে মঙ্গলবার খুন করা হয়েছে। আমরা সার্বিক বিষয়গুলো নিয়ে কাজ করছি। ময়নাতদন্তের জন্য নিহতের মরদেহ ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হবে। এবিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের প্রস্তুতি চলছে।