শনিবার ২৮শে নভেম্বর, ২০২০ ইং ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

ঈদের দিনে সারাদেশে নিহত ২৮

আপডেটঃ ১১:০৪ পূর্বাহ্ণ | জুলাই ৩০, ২০১৪

ঈদের দিনে বিভিন্ন জেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় ২৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। নোয়াখালী, নারায়ণগঞ্জ, ভোলা, দিনাজপুর, শেরপুর, পাবনা ও সীতাকুণ্ডে পৃথক দুর্ঘটনায় এ প্রাণহানি ঘটে। প্রতিনিধিদের পাঠানো খবরে বিস্তারিত-

পাবনা : পাবনায় আলাদা সড়ক দুর্ঘটনায় তিনজন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে আরও দু’জন। তবে তাৎক্ষণিকভাবে নিহত দুইজনের নাম পরিচয় জানা যায়নি।

জেলার ঈশ্বরদী উপজেলার মুলাডুলি এলাকায় সন্ধ্যা সাতটার দিকে এবং আতাইকুলা থানার শিবপুর এলাকায় বিকেল ৬টার দিকে দুর্ঘটনা দু’টি ঘটে।

ঈশ্বরদীর পাকশী হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই সাইদুর রহমান জানান, সন্ধ্যা সাতটার দিকে ঈশ্বরদীর দাশুড়িয়া-বনপাড়া মহাসড়কের মুলাডুলি নামক স্থানে বিপরীতমুখী দু’টি মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই অজ্ঞাত পরিচয় দুইজন মোটরসাইকেল আরোহী নিহত ও দুইজন আহত হয়। পুলিশ ঘটনাস্থলে যাওয়ার আগেই লাশ নিয়ে যায় তাদের স্বজনরা। এ কারণে তাদের নাম পরিচয় আমরা জানতে পারিনি।

এ ছাড়া আহত দুইজনকে গুরুতর আহত অবস্থায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে জানতে পেরেছি।

আতাইকুলা থানার ওসি ফায়জুল ইসলাম জানান, বিকেলে আতাইকুলার শিবপুর নামক স্থানে রাশিদুল ইসলাম (২৫) নামের এক মোটরসাইকেল চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কা লেগে ঘটনাস্থলেই মারা যায়। তার বাড়ি শিবপুর গ্রামে।

চট্টগ্রাম : ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের সীতাকুণ্ডের শীতলপুর বগলা বাজার এলাকায় বাস ও মোটর সাইকেল সংঘর্ষের ঘটনায় ২ জন নিহত হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলো- দু’বন্ধু নগরীর আকবর শাহ থানার কালির হাট এলাকার বাসিন্দা রাজু (৩৬) ও নূরুল কবীর (৩৫)। ঈদে আত্মীয়ের বাড়ি থেকে নিজ বাড়িতে ফেরার পথে তারা দুর্ঘটনার শিকার হন।

সীতাকুণ্ড থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইফতেখার হাসান জানান, দুপুর ৩টার দিকে শীতলপুর বগলা বাজার এলাকায় নগরীর দিকে যাওয়ার সময় বিপরীত দিক থেকে আসা তিশা পরিবহনের একটি বাস দুই মোটরসাইকেল আরোহীকে চাপা দিলে ঘটনাস্থলে তাদের মৃত্যু হয়। এলাকাবাসী চালককে ধরে পুলিশের কাছে সোর্পদ করে।

নোয়াখালী : নোয়াখালীর সোনাইমুড়ি উপজেলায় মঙ্গলবার ভোর ৫টায় যাত্রীবাহী বাস খাদে পড়ে ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন কমপক্ষে ২০ যাত্রী। সোনাইমুড়ি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবদুস সামাদ দ্য রিপোর্টকে হতাহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, ঈদে ঘরমুখী যাত্রী নিয়ে চট্টগ্রাম থেকে বলাকা এক্সপ্রেসের একটি বাস লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে যাচ্ছিল। সোনামুড়িতে গিয়ে বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে খাদে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই ৭ জনের মৃত্যু হয়।

ভোলা : মঙ্গলবার সকাল ৭টায় চরফ্যাশন থেকে ভোলাগামী যাত্রীবাহী একটি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে গেলে ৫ জনের মৃত্যু হয়। এ সময় আহত হয় আরও ১৫ জন যাত্রী। চরফ্যাশন থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবুল বাশার হতাহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে ভোলার দক্ষিণ আইচা উপজেলার চর কুকরী-মুকরী এলাকায় মোটরসাইকেল উল্টে ছোলেমান (২৫) নামে একজন নিহত হয়েছেন। একই ঘটনায় আরোহী ইব্রাহিম (২০) আহত হয়েছেন।

নিহত ছোলেমান চর কুকরী-মুকরী এলাকার ৪ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা ইদ্রিস মাস্টারের ছেলে। আহত ইব্রাহিম একই এলাকার বাসিন্দা। চর কুকরী-মুকরীর সাইক্লোন সেন্টার এলাকায় মঙ্গলবার বিকেল ৫টার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতের পরিবার জানায়, দুপুরে খাওয়া-দাওয়া শেষে ছোলেমান তার বন্ধু ইব্রাহীমকে নিয়ে ভাড়া করা মোটরসাইকেল নিয়ে বের হয়। বিকেলের দিকে সাইক্লোন সেন্টার এলাকায় দিকে দ্রুত চালিয়ে এলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মোটরসাইকেলটি উল্টে যায়। ওই সময় ঘটনাস্থলে ছোলেমান নিহত হন।

নারায়ণগঞ্জ: ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিঙ্ক রোডের সিদ্ধিরগঞ্জের জালকুরি এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও ২ জন। মঙ্গলবার সকাল সাতটার দিকে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন, সুমন, পিন্টু, সালাম ও আবদুল্লাহ।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলাউদ্দিন জানান, সকাল ৭টার দিকে সিদ্ধিরগঞ্জের সাইনবোর্ড থেকে ছয় জন যাত্রী একটি প্রাইভেটকার নারায়ণগঞ্জ শহরের দিকে যাচ্ছিল। জালকুড়ি এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে কারটি রাস্তার পাশের খাদে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই চারজন নিহত ও দুই জন আহত হন। আহতদের হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ফরিদপুর: ফরিদপুরের ভাংগা উপজেলার ঢাকা-বরিশাল মহাসড়কের মালিগ্রাম বাজারের কাছে মঙ্গলবার সকালে সড়ক দুর্ঘটনায় ৫ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন কমপক্ষে ১০ জন। আহতদের ভাংগা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহতদের মধ্যে ২ জনের অবস্থা আশংকাজনক বলে হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকাল সাড়ে ৮টার দিকে ঢাকা থেকে মাদারীপুরগামী একটি যাত্রীবাহী মাইক্রোবাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশের খাদে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই মাইক্রোবাসের চালক মারা যায়। আহত অবস্থায় মাইক্রোবাসের ১৪ যাত্রীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৪ জন মারা যায়। নিহতদের নাম-পরিচয় তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি।

ভাংগা হাইওয়ে থানা পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মাইক্রোবাসটি উদ্ধার করেছে। নিহত ৫ জনের লাশ ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। ভাংগা থানা হাইওয়ে পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহারিয়ার কবির মাইক্রোবাস দুর্ঘটনায় হতাহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

শেরপুর : জেলার শ্রীবরদী উপজেলার চিথলিয়া এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় অর্ণব (৯) নামে এক শিশু নিহত হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে এ ঘটনা ঘটে।

নানীর বাড়ি চিথলিয়ায় ঈদের নামাজ শেষে মোটরসাইকেলে বড় ভাইয়ের সঙ্গে শ্রীবরদী নিজ বাড়িতে ফেরার সময় বিপরীত দিক থেকে আসা দ্রুতগতির আরেকটি মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এ সময় পেছনে বসে থাকা শিশু অর্ণব রাস্তায় ছিটকে পড়ে।

স্থানীয় মেডিকেল অফিসার ডা. মনিরুজ্জামানের কাছে নিয়ে গেলে তিনি শিশুটিকে মৃত ঘোষণা করেন।

শ্রীবরদী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) বশির আহমেদ বাদল বিষয়টি অবগত নন বলে জানান। তিনি দুর্ঘটনা সম্পর্কে খোঁজখবর নেবেন বলেও জানান।