শনিবার ২৫শে জানুয়ারি, ২০২০ ইং ১২ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

সৎ মানুষের অসৎ পুত্র ডা. তাপস !

আপডেটঃ ৯:৪৮ পূর্বাহ্ণ | ডিসেম্বর ১৪, ২০১৯

ইজ্জত আলী -কুষ্টিয়া প্রতিনিধিঃ হরিনারায়ন পুরের মনোজ কুমার সরকার । এই নামটি শুনিলেই মানুষের হৃদয় পটে ভাসিয়া ওঠে একজন সৎ নিরহংকার শিক্ষকের মুখ । তিনি মরিয়া স্বর্গে গিয়াছেন । তাহার পুত্রধন তাপস কুমারকে তিনি চিকিৎসক বানাইছিলেন দরীদ্র মানুষের সেবা করিবার জন্য । কিন্তু মানুষের সেবার পরিবর্তে তাপস যাহা করিতেছে তাহাতে স্বর্গে যাইয়াও তিনি শান্তিতে নাই এ কথা আমাকে স্বপ্নযোগে জানাইয়াছেন । কারণ আমি ছিলাম এককালে তাহার প্রিয় ছাত্র । গত রাতে স্বর্গীয় স্যার মনোজ কুমার সরকার আমাকে জানাইলেন ফেসবুক আর অনলাইনের মাধমে তাহার গুনধর পুত্র ডা.তাপসের দুর্নীতির সংবাদ পড়িয়া তিনি মর্মাহত হইয়াছেন । তিনি জানাইলেন, ১৪ কোটি ৩৬ লক্ষ টাকা তাপস আত্মসাৎ করে নাই সে কুষ্টিয়ার কুড়ি লক্ষ মানুষের রক্ত পান করিয়াছে। তিনি আক্ষেপ করিয়া আরো বলিলেন, তাহার সৎ রক্তে সৃষ্ট পুত্র চিকিৎসক হইয়া মহা-দুর্নীতিবাজ হইবে তাহা আগে জানিলে তিনি আতুর ঘরেই মুখে লবন দিয়া বংশের কলংক ঢাকিয়া ফেলিতেন । স্যার আরো বলিলেন, ভাগ্যিস দুর্নীতির মাধ্যমে অর্জিত অবৈধ অর্থ দিয়া আমার পুুত্রধন তাপস ২ কোটি ৭৮ লক্ষ টাকা দিয়া হরিনারায়ন পুর দোয়াকাদাস আগরওয়ালার পান্না টকিজ কিনিয়াছে। কোটি টাকা দিয়া সেবা নামে একটি ক্লিনিক খুলিয়াছে, কুষ্টিয়া পিয়ারাতলার অর্থপেডিক হাসপাতালসহ একাধিক ক্লিনিকের সাথে সে জড়িত । ইহা ছাড়া হাসপাতালের দামি ওষুধ গুলো ( যেমন কুকুর -বিড়ালে কামড়ানো ওষুধ র‌্যাভিক্স -ভিসি ) রাতের আঁধারে বিক্রি করিয়া দেয়, বিনামুল্যে রক্ত সংগ্রহ করিয়া উচ্চমুল্যে বিক্রি করিয়া থাকে। শুধু তাহায় নহে সম্প্রতি একজন মানসিক মহিলা রোগীর ভুমিষ্ঠ হওয়া পিতৃপরিচয়হীন শিশু ২ লক্ষ টাকায় বিক্রি করিয়া দিয়াছে । রোগীদের খাওয়া বাবদ বরাদ্দের টাকা তো প্রতিনিয়ত নয় ছয় করিয়া থাকে এ সব সংবাদ হয়তো এখনো সাংবাদিক ভাতিজারা জানিতে পারে নাই অথবা তাহারা জানিয়াও বেমালুম চাপিয়া গিয়াছে । আমি ভগমানের কাছে প্রার্থনা করি ওকে তুমি ভালো করিয়া দাও ভগবান।
ইহার পর আমার ঘুম ভাঙ্গিয়া গেল।