শনিবার ১৮ই জানুয়ারি, ২০২০ ইং ৫ই মাঘ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

বিশ্ব ইজতেমা প্রথম পর্ব শেষ হওয়ার পর পর ময়দান তলিয়ে গেছে পানিতে….

আপডেটঃ ৭:১৭ পূর্বাহ্ণ | জানুয়ারি ১৪, ২০২০

গাজীপুর জেলা প্রতিনিধি- টঙ্গী- গাজীপুর – ৫৫ তম বিশ্ব ইজতেমায় জমায়েত হওয়া প্রথম পর্বের হাফিজ মাওলানা জোবায়ের অনুসারীদের আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে সম্পন্ন হয়েছে ২০২০ সালের বিশ্ব ইজতেমা। রবিবার সকাল ১১টা ৮ মিঃ অনুষ্ঠিত হওয়া মাওলানা জোবায়েরের পরিচালনায় আখেরি মোনাজাত অনুষ্ঠিত হয়। মোনাজাত শেষ হতে না হতেই তলিয়ে যায় ইজতেমা ময়দানের বিশাল এলাকার মূল মঞ্চসহ ইজতেমা ময়দানের গুরুত্বপূর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়ে যায় বহুতল টয়লেটের ভবনসহ টঙ্গী শিল্প এলাকার নোংরা পানিতে।
তাবলীগ সাথীরা জানান, ময়লা আবর্জনায় সুয়ারেজ লাইন বøক হয়ে শনিবার সন্ধারদিকে দুর্গন্ধযুক্ত নোংরা ময়লা পানি ঢুকতে থাকে ময়দানের ৭নং টয়লেট ভবনের পাশে ড্রেনের ম্যানহল উঁপচে পানি প্রথমে ময়দানের ৪১,৪২,৪৩ খিক্তায় প্রবেশ করে। রাত ১০.০০ টার দিকে দমকল বাহিনির কর্মিরা এসে দুটি পাম্প চালু করে পাইপের সাহায্যে পানি অন্যত্র অপঃসারনের চেষ্টা করে তাদের চেষ্টার ফলে পানি ৪১ নং খিক্তায় সীমাবদ্ধ ছিলো। রাতে ঐ খিক্তার মুসুল্লিরা অন্যান্য খিক্তায় আশ্রয় নেন। কিন্তু রবিবার সকাল থেকে পানি বাড়তে থাকে এবং মুহুর্তের মধ্যে পানি চারদিকে ছড়িয়ে পরে। সবাই মোনাজাতের অংশ নেয়ার এক পর্যায়ে দমকল বাহিনির চেষ্টাও ব্যর্থ হয়। মোনাজাত শেষ হতে না হতেই সুয়ারেজ লাইনের নোংরা পানি ময়দানের ৮৬, ৩২, ৩৩, ৩৪, ৩৫, ৩৬, ৩৭, ৩৮, ৪২, নম্বর খিক্তাসহ আশপাশের খিক্তা প্লাবিত হয়।
রবিবার আখেরি মোনাজাতের পর সোমবার সকালে ইজতেমা ময়দান ঘুরে দেখা যায়, মূল মঞ্চসহ আশপাশের এলাকা প্লবাবিত হয়। এসময়ে মুসল্লীরা আশপাশের খিক্তায় তাদের বেডিংপত্র নিয়ে অন্যত্র আশ্রয় নেয়। ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা পানি সেচে ফেলার পরও পানি বিস্তার লাভ করে। সকাল ৯টার দিকে গাজীপুর সিটিকর্পোরেশনের পয়ঃনিস্কাশনের কর্মীরা ২য় পর্বের ইজতেমার জন্য পয়ঃনিষ্কাশনের কাজ শুরু করে।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সিটিকর্পোরেশনের এক পয়ঃনিষ্কাশনের কর্মী জানায়, টয়লেটের ময়লাপানি ও ফেলেরাখা ভাত, তরকরী অন্যান্য ব্যবহার্য জিনিসপত্র ফেলে যাওয়ায় অন্য বছরের চেয়ে এবার তাদের কাজ করতে কষ্ট হচ্ছে । এছাড়াও সবচেয়ে ন্যাক্কারজনক বিষয় মূল মঞ্চের চারিপাশে পায়খানা করে দিয়ে যাওয়ায় আমাদের কাজ করতে দ্বীগুন সময় লাগছে। এছাড়াও সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়,কিছু কিছু খিক্তায়, খিক্তার বাঁশ খুলে আগুন পোহাচ্ছে।
উল্লেখ্য, প্রথম পর্বে আখেরি মোনাজাত শেষ হয়েছে রবিবারের আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে। ২য় পর্বে মাওলানা সা’দ এর অনুসারীরা জমায়েত হবে ১৭, ১৮, ১৯ জানুয়ারী। ১৯ জানুয়ারী রবিবার আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হবে ২০২০ এর বিশ্ব ইজতেমা।