শনিবার ৩০শে মে, ২০২০ ইং ১৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসকের দৃষ্টি আর্কষণ জানুয়ারী মাসেই প্রায় ১০ কোটি টাকার নিষিদ্ধ গাইড বই বিক্রি : জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার অজ্ঞাত কারণে নীরব !

আপডেটঃ ১:৪৮ পূর্বাহ্ণ | জানুয়ারি ২৭, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক : কুষ্টিয়াতে সরকার কর্তৃক নিষিদ্ধ ঘোষিত অবৈধ গাইড বই বিক্রির চরম হিড়িক পড়েছে । জেলার ৩০৮টি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও মাদ্রাসায় প্রায় ১ লক্ষ ৮৫ হাজার শিক্ষার্র্থীর মাঝে বাঁধাহীন ভাবে বিক্রি করা হচ্ছে পাঞ্জেরী ও লেকচার গাইড ।
জেলার সকল বই এর দোকানে পাওয়া যাচ্ছে এই নিষিদ্ধ গাইড বই । প্রতি সেট (৫ খন্ড একত্রে) গাইডের মূল্য ৬৭০ টাকা। বই এর দোকান মালিক সমিতি সুত্র জানাগেছে চলতি জানুয়ারী মাসে ৬ষ্ঠ শ্রেনী থেকে দশম শ্রনী পর্যন্ত কুষ্টিয়া জেলায় প্রায় ১০ কোটি টাকার নিষিদ্ধ গাইড বই শিক্ষার্থীদের মাঝে বিক্রি করা হয়েছে। জেলা শিক্ষা অফিসার ও বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানকে টাকা দিয়ে ম্যানেজ করে পাঞ্জেরী ও লেকচার গাইড কোম্পানী অবৈধ গাইড বই ছাত্র/ছাত্রীদের মাঝে পুষ সেল দিচ্ছে এমন অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগি অভিভাবক গণ । নাম না প্রকাশ করার শর্তে জৈনক অভিভাবক বলেন, নিষিদ্ধ ঘোষিত অবৈধ গাইড বই বিক্রি

করা হচ্ছে এমন অভিযোগ করেও কোন পদক্ষেপ নেইনি জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার । এ ব্যাপারে কুষ্টিয়া জেলা শিক্ষা অফিসার জায়েদুর রহমানকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, মাদকের মতই গাইড বই নিষিদ্ধ । কিন্তু আমাদের কাছে গইড বই বিক্রির কোন প্রমাণ নেই । তাই কোন পদক্ষেপ নিতে পারিনি । তিনি আইনি পদক্ষেপ নিতে পারেননি না কোম্পানীর নিকট থেকে মোটা অংকের আর্থিক সুবিধা নিয়ার কারণে কোন পদক্ষেপ নেননি এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি তেলে বেগুনে জ্বলে ওঠেন এবং বলেন, আপনার কোন প্রশ্নের জবাব দিতে আমি বাধ্য নই ।