রবিবার ৩১শে মে, ২০২০ ইং ১৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

তুরাগে করোনা প্রতিরোধে কঠোর অবস্থানে পুলিশ….

আপডেটঃ ৪:২৭ পূর্বাহ্ণ | এপ্রিল ০৯, ২০২০

মোঃ ইলিয়াছ মোল্লাঃ বিশ্বব্যাপী আলোড়ন সৃষ্টিকারী কোভিড-১৯ তথা করোনা ভাইরাসের প্রভাব বাংলাদেশে পরিলক্ষিত হওয়ার সাথে সাথে গনপ্রজাতন্ত্রী এ দেশের সরকারের লকডাউন যেমন সফলতা বয়ে আনছে আর এ সফলতার বড় অংশের দাবীদার নিঃসন্দেহে বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনী । করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সরকারের নির্দেশে ও বাংলাদেশ পুলিশ হেডকোয়ার্টারের নির্দেশনায় করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সারাদেশের ন্যায় কঠোর অবস্থানে রয়েছে ডি এম পির তুরাগ থানা পুলিশ । করোনা ভাইরাস আক্রান্তের সংবাদে প্রথম থেকেই তুরাগ থানার ওসি নুরুল মোত্তাকিনের নেতৃত্বে, তুরাগ থানার সকল পুলিশ সর্বদা মহামারী করোনা ভাইরাস সংক্রমন প্রতিরোধে কঠোর অবস্থানে রয়েছে । আর এ অবস্থানে থেকে তুরাগ থানা পুলিশের পক্ষ থেকে জনসাধারণের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টির জন্য প্রত্যেকটি পাড়া মহল্লায় করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জনগনকে সচেতন করতে বিভিন্ন রকম প্রচারাভিযান চালিয়ে আসছেন । বর্তমান লকডাউন দেশে করোনা ভাইরাস সংক্রমনের তৃতীয় ধাপে আসলেও তুরাগ থানার ইন্সপেক্টর ( তদন্ত ) মোহাম্মদ সফিউল্লাহ প্রতিদিনই তার জীবনের পরোয়া না করে তুরাগ বাসীর সুরক্ষা দানে নিজ জীবনের ঝুকি নিয়ে থানার পুলিশ সদস্যদের সাথে করে পুরো থানা এলাকা ঘুরে ঘুরে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জনগনের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টি করে যাচ্ছেন । পাশাপাশি জনগনকে জরুরী প্রয়োজন ছাড়া নিজ বাড়ী থেকে বাহিরে বের না হতে আহবান জানিয়ে আসছেন । বিদেশ থেকে ফেরৎ আসা ব্যক্তিদের হোমকোয়ারাইন্টান নিশ্চিত করতে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছেন এ কর্মকর্তা । তুরাগ থানা পুলিশের পক্ষ থেকে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে জনসচেতনতায় এলাকার বিভিন্ন স্থানে মোটর সাইকেলে চালক ছাড়া অন্য কোন ব্যক্তি নিয়ে চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি করছেন । তুরাগ থানার ইন্সপেক্টর ( তদন্ত ) মোহাম্মদ সফিউল্লাহ বলেন, লকডাউনে সামাজিক দূরুত্ব বজায় রাখতে স্বীকৃত কাঁচা বাজার ও সুপার শপসমূহ প্রতিদিন সকাল ৬টা থেকে সন্ধ্যা ৭টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। এছাড়া বিভিন্ন পাড়া ও মহল্লায় অবস্থিত নিত্যপণ্যের দোকানগুলো প্রতিদিন সকাল ৬টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত খোলা থাকবে । তবে ওষুধের দোকান এবং জরুরি সার্ভিসগুলো এই নির্দেশের আওতায় আসবে না । ডি এম পি কতৃক ঘোষিত এইসব নির্দেশ বাস্তবায়নে আমরা নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছি । এ সংকট মোকাবেলায় আমরা এলাকাবাসির সহযোগিতা কামনা করছি ।