শনিবার ৩০শে মে, ২০২০ ইং ১৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

বঙ্গবন্ধু খুনি মাজেদের ফাঁসি কার্যকর এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র….

আপডেটঃ ১:৪২ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ০৯, ২০২০

এস. এম. মনির হোসেন জীবন : জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের খুনি ক্যাপ্টেন (বরখাস্ত) আবদুল মাজেদের প্রাণভিক্ষার আবেদন নাকচ করে দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি। এর ফলে তার ফাঁসি কার্যকর আর কোনো বাধা নেই কারা কর্তৃপক্ষের। সেকারণে বঙ্গবন্ধু খুনি আব্দুল মাজেদের ফাঁসি কার্যকর এখন সময়ের ব্যাপার মাত্র ।

ঢাকা (কেরাণীগঞ্জ) কেন্দ্রীয় কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার মাহবুবুল ইসলাম গনমাধ্যমকে বলেন, আবদুল মাজেদের প্রাণভিক্ষার আবেদন নাকচ হওয়ায় তার ফাঁসি কার্যকরের আর কোনো বাধা নেই। ফাঁসি কার্যকর সময়ের ব্যাপার মাত্র। ঢাকা জেলা প্রশাসন যখন চাইবে, তখনই ফাঁসি কার্যকর করতে পারব।

মাহবুবুল ইসলাম গনমাধ্যমে বলেন, ফাঁসি কার্যকরের বিষয়ে এখনো সরকারের নির্দেশ পায়নি কারা কর্তৃপক্ষ। তবে, ফাঁসি কার্যকরের ব্যাপারে কারাগারের প্রস্ততি রয়েছে শতভাগ।
এদিকে, আগামী সপ্তাহের শুরুতেই বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের খুনি আব্দুল মাজেদের মৃত্যুদন্ড কার্যকর করা হতে পারে বলে ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারের নির্ভরযোগ্য একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে।

জানা যায়, আজ বৃহস্পতিবার পবিত্র শবে বরাত হওয়ায় কালও ফাঁসি কার্যকর করার কথা নয়। সেক্ষেত্রে আগামী সপ্তাহের যেকোনো সময় ফাঁসি কার্যকর করা হবে। ফাঁসি কার্যকরের জন্য কারা কর্তৃপক্ষের সবসময় প্রস্ততি থাকে। এ ক্ষেত্রে নির্বাহী আদেশ এলে শুক্রবারও ফাঁসি কার্যকর হতে পারে।
গত বুধবার বিকেলে মাজেদের প্রাণভিক্ষার আবেদন কারা কর্তৃপক্ষ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে রাষ্ট্রপতির কাছে পাঠায়। ওই দিন রাত ১০টার দিকে মাজেদের প্রাণভিক্ষার আবেদন নাকচ করে দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি।

এর আগে, গত বুধবার দুপুরে ঢাকা জজ আদালত মাজেদের মৃত্যু পরোয়ানা জারি করেন। পরোয়ানার সেই কপি কারাগারে যায় এবং আব্দুল মাজেদ প্রাণভিক্ষার আবেদন করেন।
পুলিশ ও গোয়েন্দা সুত্রে জানা যায়, গ্রেফতার আব্দুল মাজেদের পিতার নাম মৃত আলী মিয়া চৌধুরী, মাতা. মেহের জান চৌধুরী, গ্রাম. ঘাটামারা, পো. কাশিগঞ্জ, থানা. বোরহান উদ্দিন, জেলা. ভোলা। বর্তমান ঠিকানা বাসা নং ১০/এ, ক্যান্টনমেন্ট আবাসিক এলাকা, ঢাকা।
১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট ধানমন্ডির ৩২ নম্বর রোডে বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার সময় মাজেদ অন্যান্য আসামিদের সঙ্গে সরাসরি অংশগ্রহণ করেন। এরপর ১৯৯৬ সালে আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার আগেই তিনি আত্মগোপন করেন।

উল্লেখ যে, গত মঙ্গলবার (৭ এপ্রিল) ভোর সাড়ে ৩টার দিকে বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনী মাজেদকে মিরপুর সাড়ে ১১ নম্বর এলাকা থেকে গ্রেফতার করে ডিএমপির কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিট (সিটিটিসি)। আব্দুল মাজেদকে গ্রেফতারের পর মঙ্গলবার সকালে তাকে আদালতে হাজির করা হয়। আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। সে অনুযায়ী কেরাণীগঞ্জ কেন্দ্রীয় কারাগারে রাখা হয়েছে বঙ্গবন্ধুর আত্মস্বীকৃত খুনী আব্দুল মাজেদকে ।