শনিবার ৩০শে মে, ২০২০ ইং ১৬ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

গাজীপুর মহানগরীতে প্রবেশ ও বাহিরে নিষেধাজ্ঞা জারি…..

আপডেটঃ ৩:১৮ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ০৯, ২০২০

নিজস্ব প্রতিনিধি -: গাজীপুর -গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের এলাকার ভেতরে প্রবেশ এবং বাহিরে যাওয়া উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে জেলা প্রশাসন। ৭ এপ্রিল মঙ্গলবার সকাল ১১টার দিকে গাজীপুর জেলা প্রশাসকরে কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক সভায় এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। সভায় সাভার ক্যান্টনমেন্টের ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইমরান, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ্যাডভোকেট মো: জাহাঙ্গীর আলম, গাজীপুর মহানগর পুলিশের কমিশনার মো: আনোয়ার হোসেন বিপিএম (বার) পিপিএম (বার),গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা: খলিলুর রহমান,গাজীপুরের সিভিল সার্জন ডা. খায়রুজ্জামান, গাজীপুরের পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার পিপিএম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে গাজীপুর মহানগরীতে প্রবেশের ১০টি পয়েন্টে চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। ইতিমধ্যে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক, ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক, টঙ্গী-কালীগঞ্জ মহাসড়ক, কাশিমপুর এলাকায়, বাড়ীয়া এলাকা, টঙ্গীর কামারপাড়াসহ ১০টি পয়েন্টে পুলিশ তৎপর রয়েছে। দেশে করোনভাইরাসের বিস্তারের বর্তমান প্রেক্ষাপটে এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে জানিয়ে গাজীপুরের জেলা প্রশাসক এস এম তরিকুল ইসলাম বলেন, গাজীপুর মহানগরী এলাকায় বিপুল সংখ্যক শিল্প কল কারখানা রয়েছে। এসব শিল্প প্রতিষ্ঠানে লাখ লাখ শ্রমিক কাজ করে থাকেন। এজন্য এখানে করোনা ভাইরাসের বিস্তারের একটি ঝুকি রয়েছে। রাজধানী ঢাকায় প্রবেশ ও বাইরের ক্ষেত্রে ইতিমধ্যেই বিধি নিষেধ আরোপ করা হয়েছে। ঢাকায় প্রবেশে অন্যতম পথ গাজীপুর। তাই সবদিক বিবেচনায় করোনা ভাইরাস ঠেকাতে সরকারের নির্দেশে ঘরে থাকা এবং সামাজিক দূরত্ব মানার সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করতে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। গাজীপুর মহানগর পুলিশের কমিশনার মোঃ আনোয়ার হোসেন জানান, আমরা গাজীপুর মহানগর এলাকায় কাউকে প্রবেশ করতে দেবনা এবং কাউকে বের হতে দেব না। করোনা ভাইরাস বিস্তার ঠেকাতে এর চেয়ে ভালো উপায় এ মুহুর্তে নেই। কষ্ট হলেও এ সিদ্ধান্ত সকল নাগরিককে মেনে চলার অনুরোধ জানান। তবে মানুষের চলাফেরার ওপর নিষেধাজ্ঞা থাকলেও নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য ও জরুরি সেবার সাথে সংশ্লিষ্ট সব ধরণের পণ্য পরিবহন অব্যাহত থাকবে। গাজীপুর সিটি মেয়র অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম বলেন, করোনা ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে ও সংক্রমণ থেকে নগরবাসিদের সুরক্ষার জন্যে এ মানুষ চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। এসমের মধ্যে কোন ওয়ার্ডে জনসমাবেশ চলবে না, এবং অতি জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কেউ ঘরের বাইরে বের হতে পারবে না। জরুরি সেবার যানবাহন ছাড়া গাজীপুরে কোনো যানবাহন ঢুকতে বা বের হতে না পারে সেজন্য এসব পয়েন্টে তল্লাশি করে প্রয়োজনীয ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের এলাকার ভেতরে প্রবেশ এবং বাহিরে যাওয়া উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে জেলা প্রশাসন। ৭ এপ্রিল মঙ্গলবার সকাল ১১টার দিকে গাজীপুর জেলা প্রশাসকরে কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এক সভায় এ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। সভায় সাভার ক্যান্টনমেন্টের ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইমরান, গাজীপুর সিটি কর্পোরেশনের মেয়র এ্যাডভোকেট মো: জাহাঙ্গীর আলম, গাজীপুর মহানগর পুলিশের কমিশনার মো: আনোয়ার হোসেন বিপিএম (বার) পিপিএম (বার),গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা: খলিলুর রহমান,গাজীপুরের সিভিল সার্জন ডা. খায়রুজ্জামান, গাজীপুরের পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার পিপিএম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে গাজীপুর মহানগরীতে প্রবেশের ১০টি পয়েন্টে চেকপোস্ট বসানো হয়েছে। ইতিমধ্যে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক, ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক, টঙ্গী-কালীগঞ্জ মহাসড়ক, কাশিমপুর এলাকায়, বাড়ীয়া এলাকা, টঙ্গীর কামারপাড়াসহ ১০টি পয়েন্টে পুলিশ তৎপর রয়েছে। দেশে করোনভাইরাসের বিস্তারের বর্তমান প্রেক্ষাপটে এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে জানিয়ে গাজীপুরের জেলা প্রশাসক এস এম তরিকুল ইসলাম বলেন, গাজীপুর মহানগরী এলাকায় বিপুল সংখ্যক শিল্প কল কারখানা রয়েছে। এসব শিল্প প্রতিষ্ঠানে লাখ লাখ শ্রমিক কাজ করে থাকেন। এজন্য এখানে করোনা ভাইরাসের বিস্তারের একটি ঝুকি রয়েছে। রাজধানী ঢাকায় প্রবেশ ও বাইরের ক্ষেত্রে ইতিমধ্যেই বিধি নিষেধ আরোপ করা হয়েছে। ঢাকায় প্রবেশে অন্যতম পথ গাজীপুর। তাই সবদিক বিবেচনায় করোনা ভাইরাস ঠেকাতে সরকারের নির্দেশে ঘরে থাকা এবং সামাজিক দূরত্ব মানার সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করতে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। গাজীপুর মহানগর পুলিশের কমিশনার মোঃ আনোয়ার হোসেন জানান, আমরা গাজীপুর মহানগর এলাকায় কাউকে প্রবেশ করতে দেবনা এবং কাউকে বের হতে দেব না। করোনা ভাইরাস বিস্তার ঠেকাতে এর চেয়ে ভালো উপায় এ মুহুর্তে নেই। কষ্ট হলেও এ সিদ্ধান্ত সকল নাগরিককে মেনে চলার অনুরোধ জানান। তবে মানুষের চলাফেরার ওপর নিষেধাজ্ঞা থাকলেও নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য ও জরুরি সেবার সাথে সংশ্লিষ্ট সব ধরণের পণ্য পরিবহন অব্যাহত থাকবে। গাজীপুর সিটি মেয়র অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম বলেন, করোনা ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে ও সংক্রমণ থেকে নগরবাসিদের সুরক্ষার জন্যে এ মানুষ চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। এসমের মধ্যে কোন ওয়ার্ডে জনসমাবেশ চলবে না, এবং অতি জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কেউ ঘরের বাইরে বের হতে পারবে না। জরুরি সেবার যানবাহন ছাড়া গাজীপুরে কোনো যানবাহন ঢুকতে বা বের হতে না পারে সেজন্য এসব পয়েন্টে তল্লাশি করে প্রয়োজনীয ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।