শুক্রবার ২৯শে মে, ২০২০ ইং ১৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

করোনাভাইরাস: ভুয়া খবর প্রচার করলে ব্যবস্থা নেবে ফেসবুক…

আপডেটঃ ১১:২৩ অপরাহ্ণ | এপ্রিল ২০, ২০২০

বিজ্ঞান-প্রযুক্তি ডেস্ক :মহামারি করোনাভাইরাস নিয়ে ফেসবুকে মিথ্যা ও ভুয়া খবরের পরিমাণ বেড়েই চলেছে। এ পরিস্থিতির লাগাম টানতে আরো কঠোর পদক্ষেপ নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে সোশ্যাল জায়ান্ট সাইটটি।

ফেসবুকে যেসব পেজ অথবা ওয়েবসাইট ক্রমাগত ভুয়া খবর প্রচার করছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছে। ভুয়া খবর প্রচার করলে পেজের পোস্ট রিচ কমিয়ে দেওয়ার পাশাপাশি অর্থ উপার্জনের উপায় বন্ধ ও অ্যাডভার্টাইজেমেন্ট মুছে ফেলা হবে বলে সতর্ক করেছে।

এছাড়া মিথ্য ও ভুয়া খবর ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে এ ধরনের পোস্টগুলো নিউজ ফিডের নিচের দিকে চলে যাবে বলে জানিয়েছে। ফ্যাক্ট চেকাররা যেসব পোস্টগুলোকে ভুয়া হিসেবে চিহ্নিত করবে সেগুলো নিউজ ফিডের উপরের দিকে আসবে না। এর ফলে ভুয়া খবর ছড়ানো কমে যাবে।

ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ গত বৃহস্পতিবার এক পোস্টে জানিয়েছেন, খবরের সত্যতা যাচাই করার জন্য (ফ্যাক্ট-চেকিং) মার্চের শুরু থেকেই ১২টিরও বেশি নতুন দেশে কাজ শুরু করেছে ফেসবুক। স্যোশাল সাইটটি বর্তমানে ৬০টিরও বেশি ফ্যাক্ট-চেকিং প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যুক্ত হয়ে ৫০টিরও বেশি ভাষায় তথ্য যাচাই করছে।

ফেসবুকের থার্ড পার্টি ফ্যাক্ট চেকিং কার্যক্রম গতকাল থেকে বাংলাদেশেও চালু করা হয়েছে। বিওওএম (বুম) নামের একটি প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশের ফেসবুক ব্যবহারকারীদের পোস্ট করা ছবি ও ভিডিও এবং খবরের যথার্থতা পর্যালোচনা করবে বলে জানা গেছে। কোনো ব্যবহারকারী যদি ভুয়া খবর শেয়ার করতে যান অথবা অতীতে করে থাকেন এবং তা যদি ফ্যাক্ট চেকার ধরে ফেলে তাহলে তাকে নোটিফিকেশন পাঠাবে ফেসবুক। পেজ অ্যাডমিনদেরও নোটিফিকেশন পাঠাবে যদি তাদের শেয়ার করা খবর ভুয়া হয়ে থাকে।

মিথ্যা ও ভুয়া পোস্টগুলোর বিরুদ্ধে রিপোর্ট করার জন্য সকলের প্রতি আহবানও জানিয়েছে ফেসবুক।

করোনাভাইরাস সংক্রান্ত গুজব ঠেকাতে নতুন আরেকটি পদক্ষেপ নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন জাকারবার্গ। এর আওতায় করোনাসংক্রান্ত ভুয়া খবরে কেউ লাইক দিলে, কমেন্ট করলে বা শেয়ার করলে সরাসরি ব্যবহারকারীর নিউজ ফিডে সচেতনামূলক নোটিশ প্রদর্শন করা হবে। মূলত বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা তালিকাভুক্ত করেছে করোনাসংক্রান্ত এমন ভুয়া খবরগুলো লাইক, কমেন্ট বা শেয়ার করলে সত্য খবর জানাতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার ওয়েবসাইটের লিংকযুক্ত একটি নোটিশ উপস্থাপন করবে ফেসবুক। আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যে এটি চালু করা হবে বলে জানা গেছে।

এছাড়া সোশ্যাল সাইটটি ‘গেট দ্য ফ্যাক্ট’ একটি বিশেষ ফিচার আনতে যাচ্ছে। এই ফিচারের মাধ্যমে ফেসবুক ব্যবহারকারীরা সহজেই জানতে পারবেন যে, করোনাভাইরাস সম্পর্কিত কোনটা তথ্যটা সঠিক আর কোনটা ভুল।