রবিবার ৩১শে মে, ২০২০ ইং ১৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

টঙ্গীতে চাঞ্চল্যকর চাঁদনী হত্যার আসামী সিরিয়াল ধর্ষক সুফিয়ান বন্দুকযুদ্ধে নিহত-আহত-২ অস্ত্র ও গুলি উদ্বার..

আপডেটঃ ৭:২১ অপরাহ্ণ | মে ২২, ২০২০

এস,এম,মনির হোসেন জীবন : রাজধানীর অদুরে  টঙ্গীর মধুমিতা রেলগেইট এলাকায় চাঞ্চল্যকর শিশু চাঁদনী (৭) হত্যা ও ধর্ষণের প্রধান আসামি সিরিয়াল ধর্ষক সুফিয়ান (২১) র‍্যাবের সাথে গোলাগুলিতে নিহত হয়েছে। এঘটনায়  র‍্যাবের দুই সদস্য আহত হয়েছেন। এসময় র‍্যাব সদস্যরা তার কাছ থেকে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করেছে।বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১১টায় টঙ্গীর মধুমিতা রেল লাইনের পাশে সজীবের ইটের স্তুপে এই বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।র‍্যাবের আইনও গনমাধ্যম শাখার সহকারী পরিচালক (এএসপি) সুজয় সরকার আজ  বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।এদিকে, র‍্যাব-১ গাজীপুর পোড়াবাড়ি ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, ইতোপূর্বে গ্রেফতারকৃত অভিযুক্ত আসামী নিলয়ের দেয়া তথ্যমতে র‌্যাব-১ এর একটি দল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১১ টার দিকে জানতে পারে টঙ্গী মধুমিতা রেললাইন এলাকায় প্রধান আসামি সিরিয়াল ধর্ষক সুফিয়ান বন্ধুদের সাথে আড্ডা দিচ্ছে। এমন খবরের ভিত্তিতে র‍্যাব সদস্যরা সেখানে অভিযান চালায়। এসময় র‍্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে প্রথমে গুলি ছুড়ে সুফিয়ান ও তার সহযোগিরা।এসময় আত্নরক্ষার্থে র‍্যাবও পাল্টা গুলি ছুড়লে আবু সুফিয়ান নামে প্রধান অভিযুক্ত নিহত হয়।বাকীরা গুলি করতে করতে কৌশলে পালিয়ে যায়।র‍্যাবের এই কর্মকর্তা বলেন, এ সময় তার কাছ থেকে ৩রাউন গুলি ও একটি অস্ত্র উদ্ধার করা হয়। একই ঘটনায় এএসআই আতোয়ার ও কনস্টেবল সেলিম নামে দুই র‌্যাব সদস্য আহত হয়।তাদেরকে হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা করা হয়েছে।র‌্যাব জানান, গত ১৭ মে মধ্য রাতে  র‌্যাব-১ এর সদস্যরা  টঙ্গী পূর্ব থানাধীন রেলস্টেশন এলাকা থেকে নিলয়কে গ্রেফতার করে। পরদিন গ্রেফতার নিলয় আদালতে সে ও আবু সুফিয়ানসহ ওই শিশুকে ধর্ষণ করে মর্মে জবানবন্দি দেয়। তদন্তে জানা যায়, শুধু এই শিশু নয়, আরও ৪/৫টি ধর্ষণের ঘটনা সাথে জড়িত এই আবু সুফিয়ান।ইতিপূর্বে সুফিয়ানের নামে টঙ্গী পূর্ব থানায় চুরি-ছিনতাইসহ একাধিক অভিযোগ রয়েছেপুলিশ ও র‌্যাব সুত্রে জানা যায়, গত ১৬ মে  টঙ্গী মধুমিতা রেলগেট এলাকার একটি ময়লার স্তূপ থেকে চাঁদনী নামের প্রথম শ্রেণির মাদরাসার ছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করে টঙ্গী পূর্ব থানা পুলিশ। ওই শিশুকে ধর্ষণের পর গলা টিপে এবং দুই পায়ে আঘাত করে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়।এঘটনায় নিহত শিশুর বাবা বাদী হয়ে টঙ্গী পূর্ব থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।এদিকে,আজ শুক্রবার গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: আমিনুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।ওসি জানান, র‌্যাবের সাথে বন্দুকযুদ্ধে চাঞ্চল্যকর শিশু চাঁদনী (৭) হত্যা ও ধর্ষণের প্রধান আসামি সিরিয়াল ধর্ষক সুফিয়ান মারা গেছে। তার মরদেহ উদ্বার করে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।এঘটনায় টঙ্গী পূর্ব থানায় র‌্যাবের পক্ষ থেকে অস্ত্র আইনে মামলা রুজু করা হয়েছে।