বুধবার ২১শে অক্টোবর, ২০২০ ইং ৫ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

টঙ্গীতে র‌্যাবের সাথে গোলাগুলিতে ১৮ মামলার আসামি সন্ত্রাসী হাসান নিহত,দুই অস্ত্র,গুলি ও ইয়বা উদ্বার…

আপডেটঃ ২:৪৩ অপরাহ্ণ | মে ২৩, ২০২০

এস,এম,মনির হোসেন জীবন: রাজধানীর অদূরে গাজীপুরের টঙ্গীতে এলিট ফোর্স র‌্যাবের সঙ্গে গোলাগুলিতে ১৮ মামলার পলাতক আসামী  সন্ত্রাসী  শামীম হোসেন ওরফে হাসান (৩০) নিহত হয়েছেন। এঘটনায় র‌্যাবের দুই সদস্য আহত হয়েছেন। পরে র‌্যাব সদস্যরা ঘটনাস্থল থেকে দুইটি বিদেশি পিস্তল, আট রাউন্ড গুলি, ৮০০ ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করে।শুক্রবার রাতে  টঙ্গী বাজার সেনা কল্যাণ ভবন সংলগ্ন মাজারবস্তি এলাকায় এই বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।র‌্যাবের আইনও গনমাধ্যম শাখার সহকারী পরিচালক এএসপি সুজয় সরকার আজ শনিবার গনমাধ্যমকে এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।এদিকে, র‌্যাব-১, গাজীপুর পোড়াবাড়ী ক্যাম্পের কোম্পানি কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল-মামুন আজ গনমাধ্যমকে বলেন,শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে গাজীপুর মহানগরীর টঙ্গী বাজারস্থ সেনা কল্যাণ ভবন সংলগ্ন মাজারবস্তি এলাকায় একদল মাদক ব্যবসায়ী ও অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী অবস্থান করছিল। তখন খবর পেয়ে র‌্যাব-১-এর সদস্যরা সেখানে গেলে র‌্যাবের  উপস্থিতি টের পেয়ে সন্ত্রাসীরা তাদের লক্ষ্য করে প্রথমে গুলি ছোড়ে। তখন আত্মরক্ষার্থে র‌্যাব সদস্যরাও পাল্টা গুলি ছোড়েন। এসময় উভয় পক্ষের মধ্যে কিছুক্ষণ গুলি বিনিময় হয়।এতে র‌্যাবের দুই সদস্য আহত হয়। তাদেরকে হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা করা হয়েছে। একপর্যায়ে সন্ত্রাসীরা গুলি করতে করতে পিছু হটে কৌশলে পালিয়ে যায়। র‌্যাবের এই কর্মকর্তা আরও বলেন, এ সময় সন্ত্রাসী শামীম হোসেন ওরফে হাসান গুলিবিদ্ধ হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। পরে র্যাব সদস্যরা ঘটনাস্থলে তল্লাশি চালিয়ে তাকে উদ্ধার করে টঙ্গী শহীদ আহসান উল্লাহ মাস্টার জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।  এ সময় র‌্যাব সদস্যরা ঘটনাস্থল থেকে দুটি বিদেশি পিস্তল, আট রাউন্ড গুলি, ৮০০ ইয়াবা ট্যাবলেট উদ্ধার করে।’আব্দুল্লাহ আল-মামুন আরও বলেন, নিহত শামীম হোসেন ওরফে হাসান গাজীপুর সিটি করপোরেশনের টঙ্গী পশ্চিম থানার মাজারবস্তি এলাকার রুহল আমিনের ছেলে। তার গ্রামের বাড়ি দিনাজপুর।তিনি আরও জানান, শামীমের বিরুদ্বে হত্যা, ডাকাতি, অস্ত্র, পুলিশের ওপর হামলা ও মাদকসহ ১৮টি বিভিন্ন মামলার আসামি। শামীম টঙ্গী ও বনানী থানার একজন মোস্টওয়ান্টেড আসামি। সে ও তার দল টঙ্গী, উত্তরা ও বনানী এলাকায় বিভিন্ন সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড পরিচালনা করতো বলে জানান র‌্যাবের এই কর্মকর্তা । এদিকে,আজ শনিবার গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশ টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: এমদাদুল হক গনমাধ্যমকে ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।ওসি বলেন, পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্বার করে গাজীপুর শহীদ তাজ উদ্দিন আহমেদ মেডেক্যাল কলেজ হামপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। এঘটনায় র‌্যাবের পক্ষ থেকে অস্ত্র আইনে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।