বৃহস্পতিবার ৩রা ডিসেম্বর, ২০২০ ইং ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

রাজধানীতে এক নারী ও এক পোষাক শ্রমিকসহ দু’জনের মরদেহ উদ্ধার…

আপডেটঃ ১০:০৪ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ২৪, ২০২০

এস,এম,মনির হোসেন জীবনঃ রাজধানীর দক্ষিণখান ও পল্লবীতে পৃথক দু’টি থানা এলাকা থেকে এক গৃহবধু ও এক পোষাক শ্রমিকসহ দুই জনের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহতরা হলেন- গৃহবধূ ফাতেমা বেগম (২৬) ও পোষাক শ্রমিক রিপন (২৬)। ডিএমপির দক্ষিনখান থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ জয়নুল আবেদীন আজ শনিবার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। দক্ষিনখান ফায়দাবাদ ছাপরা মসজিদ এলাকা থেকে ফাতেমা বেগম নামে এক গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।এছাড়া পল্লবী থানার মিরপুর ১১ নম্বর সেকশন বড় মসজিদের পাশে দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে রিপন নামে এক পোষাক শ্রমিকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

এদিকে, দক্ষিনখান থানার উপ পরিদর্শক (এসআই) মোহা. জয়নুল আবেদীন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, মৃত ফাতেমার স্বামী সোহেল শুক্রবার রাতে বাসায় এসে ফ্যানের সাথে ওড়না দিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় ফাতেমার মৃতদেহ দেখতে পান। পরে খবর দিলে ঘটনাস্থল থেকে মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। পরে ওই রাতেই মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য শহীদ সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠায়। তবে, ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পেলে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে। মৃত ফাতেমার স্বামী মো. সোহেল শেখ সাংবাদিকদেরকে জানান, তাদের বাসা দক্ষিনখান ফায়দাবাদ ছাপরা মসজিদ এলাকায়। ফাতেমা বেগম তার তৃতীয় স্ত্রী। গত জুন মাসেই ফাতেমাকে বিয়ে করেছেন তিনি। অপর দিকে, শুক্রবার রাতে রাজধানীর পল্লবী থানার মিরপুর ১১ নম্বর সেকশন বড় মসজিদের পাশে ছুরিকাঘাতে রিপন (২৬) নামে এক যুবক খুন হয়েছেন।ঘটনার দিন রাত ১১টার দিকে রিপনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ব্যাপারে ঢাকা মেডিকেল পুলিশ বক্সের সহকারী ইনচার্জ (এএসআই) আব্দুল খান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, পারভীন নামে এক মহিলা রিপনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসেন। এ সময় মৃতের বুকে ছুরিকাঘাতের চিহ্ন দেখা যায়। তবে,পারভীন জানিয়েছেন, মিরপুর ১১ নম্বর সেকশন বড় মসজিদের সামনে রিপনকে ছুরিকাঘাত করা হয়। রিপনের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে রাখা হয়েছে। এদিকে, নিহত রিপনের ভাই একরামুল হকের উদ্বৃতি দিয়ে পুলিশের এ কর্মকর্তা জানান, রিপন কারওয়ানবাজার খ্রিস্টানপাড়া এলাকায় থাকতেন। সেখানে একটি পোশাক কারখানায় কাজ করতেন রিপন।তাদের গ্রামের বাড়ি নোয়াখালী জেলার বেগমগঞ্জ উপজেলায়। বাবার নাম আব্দুর রহমান। অন্যদিকে, ডিএমপির পল্লবী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কাজী ওয়াজেদ আলী ছুরিকাঘাতে এক যুবক মারা যাবার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।নিহতের মরদেহ মর্গে পাঠানো হয়েছে। এবিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহনের প্রস্তুতি চলছে বলে জানান তিনি।