বৃহস্পতিবার ৩রা ডিসেম্বর, ২০২০ ইং ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

বিশ্বব্যাংকের কাছে ৪ হাজার ২৫০ কোটি টাকা ঋণ চেয়েছে বাংলাদেশ – করোনার টিকা কিনতে ….

আপডেটঃ ১১:২৭ পূর্বাহ্ণ | অক্টোবর ২৬, ২০২০

নিজস্ব প্রতিবেদক- করোনার টিকা কিনতে বিশ্বব্যাংকের কাছে ৪ হাজার ২৫০ কোটি টাকা ঋণ চেয়েছে বাংলাদেশ। দেশের জনসংখ্যাধিক্যের ভিত্তিতে বাংলাদেশের জন্য দ্রুততার সঙ্গে এ ঋণ মঞ্জুরের আহ্বান জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। শুধু তাই নয়, করোনার টিকা আবিষ্কারের সঙ্গে সঙ্গে অন্য দেশের মতো বাংলাদেশও যেন টিকা পায় তা নিশ্চিত করতে বিশ্বব্যাংকের প্রতি অনুরোধ জানান অর্থমন্ত্রী। গতকাল অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।
বিশ্বব্যাংক, আইএমএফের বার্ষিক সভা-২০২০ এর অংশ হিসেবে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের নেতৃত্বে একটি ভার্চুয়াল সভা অনুষ্ঠিত হয়। বাংলাদেশের প্রতিনিধি দল ও বিশ্বব্যাংকের দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের ভাইস প্রেসিডেন্ট হার্টউইগ শ্যেফার ভার্চুয়াল সভায় অংশ নেন।
সভার শুরুতে অর্থমন্ত্রী বাংলাদেশের সামগ্রিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে বিশ্বব্যাংকের অব্যাহত সহযোগিতার জন্য কৃতজ্ঞতা জানান। তিনি করোনার টিকা কেনার জন্য ঋণ সহায়তা প্রদানের ক্ষেত্রে আইডিএভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে জনসংখ্যাধিক্যের দিক দিয়ে তৃতীয় স্থানে থাকা বাংলাদেশের জন্য জনসংখ্যার ভিত্তিতে নায্যতার সঙ্গে দ্রুত ঋণ মঞ্জুরের প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নিতে হার্টউইগ শ্যেফারের সহযোগিতা কামনা করেন।
অর্থমন্ত্রী করোনা মোকাবিলায় বিশ্বব্যাংকের গৃহীত দ্রুত ও সময়োযোগী উদ্যোগেরও প্রশংসা করেন। তিনি দ্রুততার সঙ্গে বাংলাদেশকে ১০ কোটি ডলারের ঋণ সহায়তা প্রদানের বিষয়টি উল্লেখ করেন। বিশ্বব্যাংকও এ বিষয়ে আশ্বস্ত করে যে, বাংলাদেশের বিষয়টি অবশ্যই ইতিবাচকভাবে দেখা হবে।
অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব ফাতিমা ইয়াসমিন আলোচনাকালে বলেন, বিশ্বব্যাংকের আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থা আইডিএ থেকে ৫ বিলিয়ন ডলার এবং এসইউএফ থেকে আরও ২ বিলিয়ন ডলার ব্যয়ে প্রকল্প গ্রহণ ও বাস্তবায়নে সক্ষমতা প্রদর্শন করেছে বাংলাদেশ। যা আইডিএভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে এককভাবে সর্বোচ্চ পরিমাণ। এ জন্য বাংলাদেশের ক্ষেত্রে সংস্থাগুলোর অর্থায়নের পরিমাণ বৃদ্ধির অনুরোধ জানান তিনি।