বৃহস্পতিবার ৩রা ডিসেম্বর, ২০২০ ইং ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

ইরফান সেলিমের মামলার তদন্তে প্রভাব খাটানোর কোনো সুযোগ নেই : ডিএমপি’র কমিশনার….

আপডেটঃ ৫:৩১ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ২৮, ২০২০

এস,এম,মনির হোসেন জীবন :  ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের ছেলে ও ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ৩০ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ইরফান সেলিমের মামলার তদন্তে প্রভাব খাটানোর কোন সুযোগ নেই।নৌবাহিনী এক অফিসারকে মারধরের মামলায়  মো. ইরফান সেলিমের মামলার তদন্ত পুলিশ প্রভাবমুক্ত হয়ে কাজ করছে। কেউ চাইলেই এখানে প্রভাব খাটানোর কোনো সুযোগ নেই বলে মন্তব্য করে ডিএমপি’র কমিশনার।আজ মঙ্গলবার রাজধানীর তেজগাঁও থানা কমপ্লেক্সে আয়োজিত নারী ও শিশুদের দ্রুততম সেবার জন্য ‘কুইক রেসপন্স টিম’ ও জরুরী হটলাইন নম্বর উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।ডিএমপি কমিশনার বলেন, এখানে প্রভাব থাকার কোন প্রশ্ন নেই। চাইলে কেউ প্রভাব খাটাতে পারবে না। আমরা দ্রুততম সময়ে এই মামলার তদন্ত করব ও অভিযোগপত্র জমা দেবো।তিনি আরও বলেন, আমরা মামলাটি গুরুত্বসহকারে নিয়েছি। সচরাচর হত্যা মামলার মতো ঘটনা থাকলে ঘটনাস্থল উপ-পুলিশ কমিশনার পরিদর্শন করেন না। এই ঘটনার পরপরই রমনা বিভাগের ডিসি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখছেন। মোহা. শফিকুল ইসলাম বলেন, আমরা মামলার ডকুমেন্ট দেখছি। দেখে যদি মনে হয় প্রয়োজনে মামলা ডিবিতে হস্তান্তর করবো।পুলিশ কমিশনার মোহা. শফিকুল ইসলাম বলেন, আমরা চাই না কোনও নারী অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনার সম্মুখীন হোক। তার কথা শোনার জন্যই আমাদের এই প্রচেষ্টা। আমরা টিমটাকে এমনভাবে তৈরি করব যে কোনও মেয়ে বা বোন তার খারাপ লাগার জায়গাটা আমাদের সঙ্গে শেয়ার করতে পারেন। তিনি আরো বলেন, এখানে সার্বক্ষণিক একটা গাড়ি থাকবে। পরবর্তীতে আরও গাড়ি যোগ হবে। ৯৯৯-এর মত যেনও আমাদের একটা শক্ত টিম হয় বা রেসপন্স করতে পারে সেই আশা নিয়ে কাজ করব।এর আগে ডিএমপি কমিশনার নারী নির্যাতন প্রতিরোধে কুইক রেসপন্স এবং হটলাইন নম্বর চালু করেন। এখন থেকে ০১৩২০-০৪২০৫৫ এই নম্বরে নির্যাতনের শিকার যেকোনো ভিকটিম ২৪ ঘণ্টায় তার অভিযোগ জানাতে পারবেন। অভিযোগ পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ডিএমপির রেসপন্স টিম ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে সহযোগিতা করবে।তেজগাঁও থানা কমপ্লেক্সে ভিক্টিম রেসপন্স ও হটলাইন নম্বর উদ্বোধনকালে ডিএমপি পুলিশের বিভিন্ন পর্যায়ের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং তেজগাঁও বিভাগের পুলিশের অন্যান্য কর্মকর্তারা এসময় উপস্থিত ছিলেন।