বৃহস্পতিবার ৩রা ডিসেম্বর, ২০২০ ইং ১৮ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

দু’গ্রুপের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংকা সিদ্ধিরগঞ্জে নাসিক কাউন্সিলর আলার বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ…

আপডেটঃ ৬:০৬ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ২৮, ২০২০

সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি -:সিদ্ধিরগঞ্জে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ৭ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলী হোসেন আলার বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার সকালে সিদ্ধিরগঞ্জের কদমতলী এলাকায় কাউন্সিলর আলার লোকজন জোরপূর্বক আজিজুর রহমান মহব্বতের জমি দখলে নিতে কাউন্সিলরের স্ত্রী রূমা নামে সাইনবোর্ড লাগিয়েছে। এ ঘটনায় মহব্বত সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন। এ নিয়ে দু’গ্রুপের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংকা করছে এলাকাবাসী।
জানা যায়, সিদ্ধিরগঞ্জের কদমতলী এলাকার মৃত আলাউদ্দিন খা এর ছেলে আজিজুর রহমান মহব্বত ২০০৭ সালে সাফ কবলা দলিল নং- ৩৪৪৪ মূলে সিদ্ধিরগঞ্জ মৌজার সি এস ও এস এ ২৬০১ ও আর এস ৫৪৮৮ নং দাগের সাড়ে ৫ শতাংশ জমি আসমত আলী ছেলে আবুল হোসেনের কাছ থেকে ক্রয় করে ভোগ দখলে আছেন। মঙ্গলবার সকালে স্থানীয় নাসিক কাউন্সিলর আলী হোসেন আলা লোকজন পাঠিয়ে মহব্বতের দখলে থাকা জমিতে ‘ক্রয় সুত্রে এই জমির মালিক মিসেস রূমা’, দাগ নং সিএস ও এস এ ২৬০১ ও আর এস ৫৪৮৯ উল্লেখ করে একটি সাইনবোর্ড লাগিয়ে দেয়। এসময় উক্ত জমির সীমানা প্রাচীরও ভেঙ্গে ফেলে। মহব্বত তাদেরকে বাঁধা দিতে গেলে আলার লোকজন জোরপূর্বক দেয়াল ভেঙ্গে ফেলে বালু দিয়ে ভরাট করতে থাকে। এ ঘটনায় মহব্বত সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করলে ঘটনাস্থলে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার এস আই মেহেদী গিয়ে অভিযোগের সত্যতা পায়। গতকাল বুধবার সকালে উক্ত জমিতে পুনরায় আলার লোক জলিল, মনির, মোস্তফা, সাগর ও ইমরানকে বালু ভরাট করার কাজ করতে দেখা গেছে। এ ঘটনা তদন্তে দায়িত্বে থাকা সিদ্ধিরগঞ্জ থানার এস আই স্বপন মিয়া ঘটনাস্থলে গিয়ে বালু ভরাট করতে দেখতে পায়। জমি ও বালু ভরাট নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোন সময় উভয় গ্রুপের মধ্যে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশংকা করছে এলাকাবাসী। এলাকাবাসী আরও জানায়, গত মাসে কদমতলী এলাকায় একইভাবে এক বিধবা মহিলার জমি দখলের অভিযোগ রয়েছে কাউন্সিলর আলী হোসেন আলার বিরুদ্ধে। এ নিয়ে আদালতে মামলা চলছে।
জমির মালিক মহব্বত জানায়, সাইনবোর্ডে লেখা দাগ অনুযায়ী জমি এটি নয়। তারপরও আলার লোকজন জোরপূর্বক এ জমির উপর উক্ত সাইনবোর্ড লাগিয়ে দিয়ে এ জমি আলা হোসেনের বলে দাবি করে। জমি দখলের বিষয়ে কাউন্সিলর আলী হোসেন আলা জানায়, এ জমি তার স্ত্রী মিসেস রূমার নামে ক্রয় করা হয়েছে। সিদ্ধিরগঞ্জ থানার এস আই স্বপন মিয়া জানায়, উভয় পক্ষকে শান্ত থাকতে এবং জমির প্রয়োজনীয় কাগজপত্র নিয়ে থানায় বলা হয়েছে।