রবিবার ১৮ই এপ্রিল, ২০২১ ইং ৫ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

ইটভাটার মালিকের বিরুদ্ধে অবৈধভাবে নদীর পাড় কেটে মাটি নিয়ে ইট তৈরীর অভিযোগ..

আপডেটঃ ১২:৪৩ পূর্বাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২১

আজিজুল ইসলাম সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি-: -সুনামগঞ্জের ব্রাক্ষণগাঁও এ ইটভাটার মালিকের বিরুদ্ধে অবৈধভাবে নদীর পাড় কেটে মাটি নিয়ে ইট তৈরীর অভিযোগ । সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার কুরবান নগর ইউনিয়নের ব্রাক্ষণগাঁও সুরমা নদীর তীরবর্তী আজিজ ব্রিকস ফিল্ডের বিরুদ্ধে নদীর পাড় কেটে মাটি নিয়ে ইট তৈরীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের। 

গত ১৪ই ফ্রেব্রুয়ারী বিকেলে ইউনিয়নের ব্রাক্ষণগাওঁ গ্রামের মো. হারিছ আলী তিনি নিজে আজিজ ব্রিকস ফিল্ডের লীজকৃত মালিক জেলার তাহিরপুর উপজেলার পুটিয়া গ্রামের মৃত আব্দুনুরের ছেলে রিয়াজ উদ্দিনকে অভিযুক্ত করে সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে এ লিখিত অভিযোগটি দায়ের করেন। 

অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, তিনি ব্রিকস ফিল্ড সংলগ্ন সুরমা নদীর তীরবর্তী ফসল জমির নদীরক্ষা বাধেঁর পাশে নদীর পাড় কেটে মাটি উত্তোলন করে ইট ভাটায় নিয়ে ইট তৈরী করছেন। ফলে নদী তীরবর্তী আশপাশের গ্রামগুলো নদী ভাঙ্গনের হুমকিতে রয়েছেন। তাছাড়া কৃষি জমি থেকে মাটি কেটে নেওয়ার কারণে ফসলি জমিতে ফসল ফলানো যেমন সম্ভব নয় অপরদিকে ইটভাটার কালো ধোয়া ও জ¦ালানি হিসেবে লাকড়ী ব্যবহার করার কারণে আশপাশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানসহ গ্রামের পরিবেশ বিপর্যস্থ হয়ে নানান রোগভোগে সর্দি কাশিতে আক্রান্ত হচ্ছেন শিশুসহ বয়স্ক লোকজন। অভিযোগে জানা যায়, এই ব্রিকস ফিল্ডের লীজকৃত মালিক সরকারী নীতিমালা লংঙ্ঘন করে ক্ষমতার অপব্যবহার করে দুই ইঞ্চি কম মাপের ইট প্রস্তুত করে সাধারন মানুষজনের সাথে প্রতারনা করা হচ্ছে বলেও অভিযোগপত্রে উল্লেখ করেন তিনি। 

এ ব্যাপারে অভিযোগকারী মো. হারিছ আলী জানান,এই ব্রিকস ফিল্ডস এর মালিক রিয়াজ উদ্দিনের বিরুদ্ধে নদীর পাড় কেটে মাটি নেয়া ও জ্বালানী ব্যবহার করে পরিবেশ বিনষ্টকারী হিসেবে  এই ব্রিকস ফিল্ডটি বন্ধ করাসহ তার বিরুদ্ধে আইন গত ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানান পাশাপাশি এখানকার পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় যেন সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ পদক্ষেপ নিবেন এমনটাই মনে করেন তিনি।  

এ ব্যাপারে বিকস ফিল্ডের মালিক রিয়াজ উদ্দিনের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি নদীর পাড় কেটে মাটি নেয়ার বিষয়টি অস্বীকার করেন। এ ব্যাপারে সুনামগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইয়াসমিন নাহার রুমা অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করে জানান,বিষয়টি তদন্ত চলছে দোষী প্রমানিত হলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।