বৃহস্পতিবার ১৫ই এপ্রিল, ২০২১ ইং ২রা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

শয়নকক্ষে শিক্ষার্থীর গলাকাটা মরদেহ : হত্যা নাকি আত্নহত্যা…

আপডেটঃ ১১:২৯ অপরাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২১

ময়দুল ইসলাম, বদরগঞ্জ (রংপুর) প্রতিনিধি : রংপুরের বদরগঞ্জে রহস্যজনকভাবে মাহবুবা আক্তার মেরি নামে এক শিক্ষাথীর রহস্যজনক গলাকাটা লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার রাত আটটায় উপজেলার জেলার বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের বুজরুক হাজিপুর গাছুয়াপাড়ায় ওই মরদেহ উদ্ধার করা হয়। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন রংপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সিফাত ই রাব্বান। রংপুর ক্রাইম সিন এর সদস্য পরিদর্শন পরার রহস্য উদঘাটনের চেষ্টা করা হবে।
প্রতিবেশিরা জানান, শুক্রবার বিকালের দিকে নিজ ঘরে মেরীর গলাকাটা অবস্থায় ছটফট করতে দেখে তার মা নুরনাহার চিৎকার করে উঠেন। খবর পেয়ে আশেপাশের লোকজন ওই বাড়িতে ছুটে আসেন। মাহবুবা আক্তার মেরী ওয়ারেসিয়া দাখিল মাদরাসার শিক্ষার্থী। তার বাবা মেনহাজুল হক রামনাথপুর বি ইউ দাখিল মাদরাসার সুপারিটেনডেন্ট।
গলাকাটার ঘটনাটি হত্যা না আত্মহত্যা তা নিয়ে পুলিশ ও এলাকাবাসির মধ্যে ধুম্রজালের সৃষ্টি হয়েছে।
নিহত মেরীর ছোট বোন মনিরা সুলতানা আর্তনাদ করে বলেন, হঠাৎ করে আমার বোনের কি হল কিছুই বুঝতে পারছিনা। বোনকে হারিয়ে আমরা সর্বনাশ হলো।
তার মা নুর নাহার বলেন, শয়ন ঘরে মেয়ের চিৎকার শুনে গিয়ে দেখি গলায় ফিনকি দিয়ে রক্ত ঝরছিল। কিছুক্ষণ মেয়েটা নিস্তেজ হয়ে যায়। আমার মেয়ের মৃগি রোগের কারনে ছোট বেলা থেকে অসুস্থ। এ কারনেই সে আত্মহত্যা করতে পারে।
বদরগঞ্জ থানার ওসি হাবিবুর রহমান বলেন, গলাকাটার বিষয়টি রহস্যজনক। লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে।