রবিবার ১৮ই এপ্রিল, ২০২১ ইং ৫ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

ঝিনাইদহের মহেশপুর সীমান্তে বিএসএফ’র গুলিতে বাংলাদেশী আহত !

আপডেটঃ ১:৪৬ পূর্বাহ্ণ | আগস্ট ১৭, ২০১৬

ঝিনাইদহ প্রতিনিধিঃসাব্বির হোসেন :
ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার লড়াইঘাট সীমান্তে মঙ্গলবার ভোরে আব্দুল হাকিম (২৭) নামে এক গরু ব্যবসায়ী বিএসএফ’র গুলিতে গুরুতর আহত হয়েছেন। তিনি মহেশপুরের শ্যামকুড় গ্রামের নুরুল আমিন সরদারের ছেলে। গুলিবিদ্ধ আব্দুল হাকিমকে যশোর আড়াইশ বেড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

খালিশপুর ৫৮ বিজিবির পরিচালক লেঃ কর্ণেল তাজুল আসলাম তাজ খবরের সত্যতা নিশ্চত করে জানান, ভারতের ছুটিপুর এলাকায় ৭/৮ জনের একদল বাংলাদেশী গরু ব্যবসায়ী অবৈধ ভাবে প্রবেশ করলে বিএসএফ তাদের চ্যালেঞ্জ করে। এ সময় বাংলাদেশীরা বিএসএফ এর বাধা উপেক্ষা করে ভারতের মধ্যে প্রবেশ করতে গেলে বিএসএফ গুলি চালায়। এতে আব্দুল হাকিম নামে এক গরু ব্যবসায়ী গুলিবিদ্ধ হন।

তিনি আরো জানান, তার সঙ্গে থাকা ব্যক্তিরা হাকিমকে উদ্ধার করে রাতেই তাকে যশোর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। বিজিবির পরিচালক লেঃ কর্ণেল তাজুল আসলাম তাজ অভিযোগ করেন, মহেশপুরের শ্যামকুড় এলাকার আব্দুর রহিম মেম্বর নামে এক ব্যক্তি সীমান্ত এলাকায় গ্যাং গ্রুপ তৈরী করে ভারতে চোরাচালারের জন্য লোক পাঠাচ্ছে।

গুলিবিদ্ধ হাকিম চোরাচালান সিন্ডিকেটেরে গডফাদার রহিম মেম্বরের গ্রুপের সদস্য। বিজিবি পরিচালক বলেন, স্থানীয় শ্যামকুড় ইউনিয়নের ৬ নং ইউপি সদস্য আব্দুর রহিম দীর্ঘদিন ধরে অবৈধ ভাবে ভারতীয় গরু ব্যবসায়ের সাথে জড়িত। তিনি এলাকার মানুষকে টাকার লোভ দেখিয়ে গরু ব্যবসার প্রতি উদ্বুদ্ধ করছেন।
রহিমের এই অবৈধ ব্যবসার কারনেই প্রায়ই সীমান্তে বিএসএফ কর্তৃক বাংলাদেশী গরু ব্যবসায়ীদেরকে গুলি করে আহত করা কিংবা নির্যাতনের ঘটনা ঘটছে। এ নিয়ে শ্যামকুড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যামসহ এলাকার মাতুব্বরদের সাথে কথা বলে রহিম মেম্বরকে এই অনৈতিক কাজ করা থেকে বিরত রাখার চেষ্টার পরও তিনি ভারতের অভ্যন্তরে লোকজন পাঠিয়ে সীমান্ত অস্থির করে তুলছেন বলে বিজিব জানায়।

এদিকে সীমান্তের একটি সুত্র জানায় রহিম মেম্বর গরু থেকে শুরু করে স্বর্ণ, ফেনসিডিল, ইয়াবা, অস্ত্র এবং বিভিন্ন রকমের ভারতী চোরাই পন্যসামগ্রী পাচারের সাথে জড়িত। এ ব্যাপারে রহিম মেম্বরের সাথে কথা বলতে তার মোবাইলে একাধিকবার ফোন দিলেও তিনি ফোন রিসিভ করেন নি।