রবিবার ১৮ই এপ্রিল, ২০২১ ইং ৫ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

ক্যালিফোর্নিয়ায় ভয়াবহ দাবানল

আপডেটঃ ১২:৪৮ অপরাহ্ণ | আগস্ট ১৮, ২০১৬

চ্যানেল সেভেন বিডি: দক্ষিণ ক্যালিফোর্নিয়ার প্রত্যন্ত অঞ্চলে সৃষ্ট দাবানল ভয়াবহ রূপ ধারণ করেছে। ইতিমধ্যে দাবানলে পুড়ে গেছে ২৫ হাজার ৬০০ একর জমি-বসতভিটা। সান বারনার্ডিনো থেকে ৮২ হাজার লোককে অন্যত্র সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। ১৫ হাজার ফায়ার সার্ভিস কর্মী ও অন্যান্য জরুরি বিভাগের কর্মীরা দুই দিন চেষ্টা চালিয়ে দাবানলের কেবল চার শতাংশ নিয়ন্ত্রণে আনতে পেরেছেন। এ ঘটনায় গভর্নর জেরি ব্রাউন সান বারনার্ডিনো কাউন্টিতে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছেন।

মঙ্গলবার সকালে লস অ্যাঞ্জেলেস থেকে ৬০ মাইল দূরে দাবানলের সূত্রপাত হয় এবং তা ক্যাজল পাস দিয়ে অতি দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে। দাবানল এখনো অব্যাহত রয়েছে এবং তা দ্রুত গতিতে ছড়িয়ে পড়ছে।

‘ব্লু কাট’ নামের এই দাবানলে পুড়ে গেছে বাড়িঘর, যানবাহনসহ অন্যান্য স্থাপনা। এর ফলে ক্যালিফোর্নিয়া ও নেভাডার মধ্যে যান চলাচল ব্যাহত হচ্ছে।

ক্যালিফোর্নিয়ার ফায়ার সার্ভিস কর্মকর্তা মাইক ওয়াকস্কি জানিয়েছেন, গত ৪০ বছর ধরে তিনি ফায়ার সার্ভিসে কাজ করছেন। তবে এ ধরনের প্রতিকূল পরিস্থিতি কখনোই দেখেননি। এটি গত ৪০ বছরের মধ্যে আমেরিকায় সবচেয়ে বড় দাবানল।

সান বারনার্ডিনোর ফায়ার সার্ভিসের প্রধান মার্ট হার্টউইগ সাংবাদিকদের বলেছেন, ‘দাবানল খুব দ্রুত ও অপ্রতিরোধ্য গতিতে ছড়িয়ে পড়ছে। এত তীব্র দাবানল এর আগে আমরা কখনো দেখিনি।’

তিনি সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, যেসব লোককে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে, তারা হয়তো ফিরে এসে দেখবেন তোদের ঘরবাড়ি সব পুড়ে ছারখার হয়ে গেছে।

ক্যালিফোর্নিয়ার এয়ার ন্যাশনাল গার্ড দাবানল নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসকে সহায়তার জন্য দুটি সি-১৩০জে হারকিউলিস এয়ার ট্যাংকার দিয়েছে, যার প্রতিটি ৩ হাজার গ্যালন পানি ছিটাতে সক্ষম।

ড্যারেন ডালটন নামের ৫১ বছর বয়সি সান বারনার্ডিনোর এক বাসিন্দা বলেছেন, “দাবানল খুব দ্রুত ছড়িয়ে পড়েছে। ‘তোমরা কি আগুন লাগার খবর শুনেছ’, এমন আলোচনা হতে না হতেই ‘বাধ্যতামূলক স্থানান্তর’ এর ঘোষণা এসেছে। হঠাৎ করেই এটি যেন একটি ভুতুড়ে শহরে পরিণত হয়েছে।’

তথ্যসূত্র : বিবিসি ও এনবিসি নিউজ