রবিবার ১৮ই এপ্রিল, ২০২১ ইং ৫ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

কমলগঞ্জ উপজেলাকে বাল্যবিবাহ মুক্ত ঘোষণা

আপডেটঃ ৯:১৮ অপরাহ্ণ | আগস্ট ১৯, ২০১৬

 
মোঃ মিজানুর রহমান, কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি:
“বালিকা বধূ নয়” এই শ্লোগানে এবার মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলাকে আনুষ্ঠানিভাবে বাল্যবিবাহ মুক্ত উপজেলা হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। গত ০৭ ই আগস্ট ১টি পৌরসভা সহ ৯টি ইউনিয়নে ৯০টি ওয়ার্ডে লাখো কন্ঠে বাল্য বিবাহ মুক্ত শপথ পাঠ ও ইউনিয়নে ইউনিয়নে জনসচেতনতা সমাবেশের পরে এবার বুধবার (১৭ আগস্ট) সকাল ১১ টায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে সকলকে শপথবাক্য পাঠ করিয়ে এ উপজেলাকে বাল্য বিবাহমুক্ত উপজেলা ঘোষণা করেন মৌলভীবাজার জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান। প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, এখন থেকে বাল্য বিবাহ বরদাস্ত করা হবে না। যে কেউ এ অপরাধ করলে বা সহযোগিতা করলে তাৎক্ষণিক আইনী ব্যবস্থা গ্রহণ করে জেল জরিমানা প্রদান করা হবে। তিনি আরও বলেন, বাল্য বিবাহ একটি সামাজিক ব্যাধি। এই সামাজিক ব্যাধি থেকে বের হতে হলে সকলকে একযোগে কাজ করতে হবে। বাল্য বিবাহের কুফল সম্পর্কে মানুষকে সচেতন করতে হবে। একটি মেয়ের ১৮ ও ছেলের বয়স ২১ বছর না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দেওয়া বা করানো যাবে না। আজ থেকে সকলেই শপথ নিলাম বাল্য বিবাহ মুক্ত করব।

উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উপজেলা অডিটোরিয়ামে এ উপলক্ষে আয়োজিত আলোচনা সভায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ মাহমুদুল হকের সভাপতিত্বে ও মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) জাহাঙ্গীর আলম এর সঞ্চালনায়
স্বাগত বক্তব্য রাখেন মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা শাহেদা আক্তার। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব অধ্যাপক রফিকুর রহমান, সহকারী কমিশনার (ভূমি) রফিকুল আলম, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এম. মোসাদ্দেক আহমেদ মানিক, উপজেলা ভাইস মোঃ সিদ্দেক আলী, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পারভীন আক্তার লিলি, পৌর মেয়র মোঃ জুয়েল আহমেদ, রহিমপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ইফতেখায়ের আহমদ বদরুল, আলীনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ফজলুল হক বাদশা। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য প্রদান করেন সাপ্তাহিক কমলগঞ্জ সংবাদ পত্রিকার সম্পাদক মোঃ সানোয়ার হোসেন, কমলগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক শাহীন আহমেদ, সিনিয়র সাংবাদিক আব্দুল হান্নান চিনু, মুজিবুর রহমান রঞ্জু, শিক্ষকদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন-কমলগঞ্জ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক হুমায়ুন কবীর প্রমুখ। শপথ অনুষ্ঠান শেষে সচেতনেতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে গুড নেইবার বাংলাদেশের উদ্যোগে একটি নাটিকা পরিবেশিত হয়। শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে স্কুল, কলেজ, মাদ্রসার শিক্ষার্থী সহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষজন উপস্থিত ছিলেন।