বৃহস্পতিবার ১৫ই এপ্রিল, ২০২১ ইং ২রা বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

সবজির দাম ওঠা – নামা করছে

আপডেটঃ ২:৫৪ অপরাহ্ণ | আগস্ট ২০, ২০১৬

নিজস্ব প্রতিবেদক: গত সপ্তাহের তুলনায় এ সপ্তাহে কিছু সবজির দাম কমেছে আবার কিছু সবজির দাম বেড়েছে। টমেটো, শিম, কাঁচামরিচ, আমদানিকরা গাজর, উচ্ছেসহ কিছু সবজির দাম কমেছে। আর বেড়েছে দেশি গাজর, ঝিঙ্গে, লাউসহ কিছু পণ্যের দাম।

বেড়েছে ডিমের দাম। তবে চিনিসহ কিছু পণ্যের দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। শুক্রবার রাজধানীর কয়েকটি বাজার ঘুরে ব্যবসায়ী ও ক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে এ সব তথ্য জানা যায়।

শাক বিক্রেতা ইকবাল জানান, কলমি শাকের দাম কমেছে। গত সপ্তাহে ৮ টাকা আঁটি বিক্রি করা হলেও এ শুক্রবার বিক্রি করছেন ৫ টাকা দরে। লাল শাকের আঁটি ছিল ১২ টাকা, কমেছে ২ টাকা। এ সপ্তাহে শাপলার আঁটি ৫ টাকা, আগে ছিল ১০ টাকা। পুঁই শাকের আঁটি ১৫ থেকে ৩০ টাকা, ডাটা শাকের আঁটি ১০ টাকা, কচু শাকের তিন আঁটি ২০ টাকা, ২ আঁটি ১৫ টাকা। মূলা শাক ১০ টাকা, পালং শাক ২০ টাকা, কাচ কলার হালি ২০ থেকে ৩০ টাকা, প্রতি কেজি কচু ২০ থেকে ৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। কুমড়া শাক ২০ টাকা, লাউ শাকের দাম ২০ টাকা থেকে বেড়ে ৩০ টাকা হয়েছে।

দোকানদার আব্দুল হান্নান জানান, টমেটোর দাম দিন দিন কমছে। প্রতি কেজি ১০০ টাকা থাকলেও এখন ৭০ থেকে ৮০ টাকা করে বিক্রি হচ্ছে। শিমের দামও কমেছে। এ সপ্তাহে ৭০ টাকা দরে শিম বিক্রি হচ্ছে। এর আগে ১০০ থেকে ১৪০ টাকা শিমের কেজি বিক্রি হয়েছে। মূলা ৪০ টাকা, দেশি গাজরের কেজি ৫০ টাকা থেকে বেড়ে ৬০ টাকা হয়েছে। আর চীনা গাজর দাম কমে ১০০ টাকা থেকে ৮০ টাকা হয়েছে। বাধাকপি এক পিস ৩০ থেকে ৩৫ টাকা, ফুলকপি এক পিস ৩০ থেকে ৪০ টাকা, পেঁপে ২০ থেকে ৩০ টাকা। আলু (গোল) ২০ টাকা, ডায়মন্ড জাতের আলু ২৪ থেকে ২৫ টাকা। কাঁচামরিচ ১০০ টাকা থেকে কমে বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকা দরে। মুখীকচুর কেজি ৩০ থেকে ৪০ টাকা, ঝিঙ্গের দাম ৫ টাকা বেড়ে ৪০ টাকা হয়েছে।

লাউয়ের পিস ৪০ থেকে ৫০ টাকা, চাল কুমড়ার পিস ২০ থেকে ২৫ টাকা। তবে আকার ভেদে আরো বেশিও আছে। মিষ্টি কুমড়া এক পিস ২০ টাকা। আকার ভেদে দাম। বড় হলে একটু বেশি। লম্বা বেগুন ৫০ টাকা, গোল বেগুন ৪০ টাকা।

করোলার কেজি ৪০ টাকা, উচ্ছের কেজি ৫০ টাকা থেকে ৬০ টাকা হয়েছে। পটলের দাম ৫ টাকা কমে ৩৫ টাকা হয়েছে। বোম্বাই মরিচের হালি ১০ টাকা। আমড়া ৬০ টাকা। ঝিঙ্গের দাম ৫০ টাকা থেকে কমে ৪০ টাকা হয়েছে। কচুর লতির আঁটি ৪০ টাকা। বরবটির কেজি ১০ টাকা বেড়ে ৫০ টাকা হয়েছে।

দেশি পেঁয়াজ কেজি প্রতি ৪০ টাকা, আমদানি করা পেঁয়াজ ৩০ টাকা। বেড়েছে রসুনের দাম। দেশি রসুন ১০ টাকা বেড়ে ১৬০ টাকা, আমদানি করা রসুন ১০ টাকা বেড়ে ১৮০ টাকা হয়েছে।

দাম বেড়েছে দেশি আদার। ৯০ থেকে ১০০ টাকা গত সপ্তাহে থাকলেও এ সপ্তাহে ১২০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। আর আমদানি করা আদা ৬০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

লাল ডিমের ডজন ১০০ টাকা। হাঁসের ডিম ১৩০ টাকা, সাদা ডিম ১৪০ টাকা, কোয়েলপাখির ডিমের হালি ১০ টাকা করে বিক্রি হচ্ছে বলে জানান ডিমের দোকানদার মিন্টু হোসেন।

চিনি প্রতি কেজি ৭০ টাকা, খোলা সয়াবিন এক নম্বর তেল ৯০ টাকা, দুই নম্বর তেল ৭৮ টাকা, কেজি প্রতি দেশি মসুর ডাল ১৪০ টাকা, ভারতীয় মোটা মসুর ডাল ১০৫ টাকা ও খেসারির ডাল ৮০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

প্রতি কেজি গরুর মাংস ৪২০ টাকা এবং খাসির মাংস ৬০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। প্রতি কেজি ব্রয়লার মুরগির দাম ১৬০ টাকায় ও লেয়ার মুরগি ২৭০ টাকা।