সোমবার ১৯শে এপ্রিল, ২০২১ ইং ৬ই বৈশাখ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

২৫ বছরে জনসাধারণের …………………………………..ইন্টারনেট

আপডেটঃ ৬:৪২ পূর্বাহ্ণ | আগস্ট ২৪, ২০১৬

 

তথ্য ও প্রযুক্তি ডেস্ক:চ্যানেল সেভেন বিডি:

বিশ্বকে বদলে দেওয়া দিনটি শুরু হয়েছিল আজ থেকে ২৫ বছর আগে। যখন স্যার টিম বার্নার্স লি এবং তার সহযোগীরা একে অপরের সঙ্গে যোগাযোগের একটি উপায় বের করেন। যার নাম ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ওয়েব (ডিব্লিউডব্লিউডব্লিউ)।

আজ সেই ২৩ আগস্ট যখন বিশ্বে জনসাধারণের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছিল প্রথম ওয়েবসাইট। আর মানুষ শুরু করেছিল ইন্টারনেটের মাধ্যমে যোগাযোগ। ২৫ বছর আগের এই ২৩ আগস্ট দিনটিকেই এখন ইন্টারনেট দিবস হিসেবে পালন করা হয়।

তবে ১৯৯১ সালের ৬ আগস্ট ব্রিটিশ বিজ্ঞানী স্যার টিম বার্নার্স-লি বিশ্বের প্রথম ওয়েবসাইটটি চালু করেন। সেই সঙ্গে অনানুষ্ঠানিকভাবে চালু হয় ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ওয়েব প্রকল্পটি। এটি বিশ্বে ওয়েবের প্রসারে প্রথম ধাপ হিসেবে পালিত হয়ে আসছে। তবে ভাবতেই অবাক লাগতে পারে যে, ওয়েবসাইটটিতে প্রথম ভিজিটর পেতে অপেক্ষা করতে হয় ২৩ আগস্ট পর্যন্ত।

বিশ্বের প্রথম সেই ওয়েবসাইটটিতে কিছু লেখা ও হাইপার লিংক রয়েছে, যা দেখতে পুরোপুরি সাদামাটা। তবে এখনও এটি প্রয়োজনীয় একটি ওয়েবসাইট হিসেবে ব্যবহৃত হয়। বার্নার্স লি তার প্রথম ওয়েবসাইটে বিশ্লেষণ করেছেন, কী করে সার্ভার সেটআপ করতে হয় ও অন্যদের শেয়ার করা কনটেন্ট অ্যাকসেস করতে হয়।

প্রথম ওয়েবসাইটটি চালুর পর আরেকটি বড় পদক্ষেপ বাস্তবায়িত হয় এর দুই বছর পর। ১৯৯৩ সালে এনসিএসএ প্রথম জনপ্রিয় ওয়েব ব্রাউজার (মোসাইক) চালু করে। এরপর আর থেমে থাকেনি ওয়ার্ল্ড ওয়াইড ওয়েব। সিইআরএর ওয়েবের প্রসারে এর সফটওয়্যার বিনামূল্যের পাশাপাশি ওপেন সোর্স করে দেয়।

বার্নার্স লি জন্মগ্রহণ করেন যুক্তরাজ্যে, ৮ জুন ১৯৫৫ সালে। টাইম ম্যাগাজিনের ২০ শতকের যে ১০০ জনকে গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি হিসেবে ধরা হয়ে থাকে তাদের অন্যতম বার্নার্স লি।

ফেইসবুকেও উদযাপন

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকেও দিনটিকে ইন্টারনেট দিবস হিসেবে পালন করা হচ্ছে। ফেইসবুকে লেখা আছে, আজ থেকে ২৫ বছর আগে ইন্টারনেট উন্মুক্ত করেন স্যার টিম বার্নার্স লি। তখন থেকেই মানুষ একে অপারের সঙ্গে যুক্ত থাকতে পেরেছে, একই সঙ্গে বিশ্ব হয়েছে উন্মুক্ত।