বৃহস্পতিবার ২৮শে জানুয়ারি, ২০২১ ইং ১৪ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

মহেশপুরে ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা সনদে পুলিশে চাকুরী নেওয়ার চেষ্টা

আপডেটঃ ২:৫৯ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ২৭, ২০১৬

মোস্তাফিজুর রহমান উজ্জল ঝিনাইদহ মহেশপুর: ঝিনাইদহে মহেশপুরে, পায়না কোন মুক্তিযোদ্ধা ভাতা, নেই মুক্তি বার্তায় কোন নাম, তারপরও আব্দুল আলিম নিজেকে একজন মুক্তিযোদ্ধা দাবি করে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় ছেলে বিদ্যুত হোসেন কে পুলিশে চাকুরী দেওয়ার চেষ্টা করে। পুলিশ তদন্ত শেষ পযর্ন্ত ভূয়া মুক্তি যোদ্ধা হিসেবে আব্দুল আলিম ধরা পড়েছে।

থানা সুত্রে জানা গেছে গত ২৬ শে সেপ্টেম্বর ঝিনাইদহ পুলিশ লাইনে পুলিশ কনস্টেবল পদে নিয়োগ পরীক্ষা চলে। সেখানে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় মহেশপুর উপজেলার বাথানগাছি গ্রামের আব্দুল আলিম তার ছেলে বিদ্যুত হোসেন কে পুলিশে চাকুরী নেওয়ার চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় যাচাই বাছাই এ উর্ত্তীন হয়। কিন্তু পরে পুলিশ তদন্তে বেরিয়ে আসে আব্দুল আলিম একজন ভূয়া মুক্তিযোদ্ধা ।

পুলিশ নিয়োগের তদন্ত কর্মকর্তা মহেশপুর থানা এস আই আবুল বাশার সঠিক মুক্তিযোদ্ধা কিনা যাচাই এর জন্য ঢাকা মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রনালয়ে গিয়ে জানতে পারেন মহেশপুর উপজেলায় আব্দুল আলিম নামে কোন মুক্তিযোদ্ধা নেই । অতএব তিনি একজন ভূয়া মুক্তিযোদ্ধা । মহেশপুর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার ড: আব্দুল মালেক গাজী জানান মুক্তিযোদ্ধার পরিচয় দিয়ে একজন ভূয়া মুক্তিযোদ্ধা তার পুত্রকে পুলিশে চাকুরী নেওয়ার চেষ্টা করেন। আব্দুল আলিম নাম মুক্তিযোদ্ধা সংসদে কোন তালিকা নেই এমনকি তিনি কোনদিন মুক্তিযোদ্ধা ভাতাও পায়নি।

মহেশপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আমিনুল ইসলাম বিপ্লব জানান, পুলিশ কনস্টেবল বাছাই পর্বে বিদ্যুত হোসেন উত্তীর্ন হয়। পরে তদন্তে বেরিয়ে আসে সে একজন ভূয়া মুক্তিযোদ্ধার সন্তান । সে কারনেই আমরা যাচাই বাছাই এর পর আমাদের তদন্ত প্রতিবেদন জেলায় পাঠিয়েছি। এলাকাবাসী জানান শেখ হাসিনার বাংলায় ভূয়া মুক্তিযোদ্ধার ঠাই নাই।