মঙ্গলবার ২৬শে জানুয়ারি, ২০২১ ইং ১২ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

নারায়ণগঞ্জে অলৌকিক কুপ, এলাকায় হুলুস্থুল , উপচেপড়া ভিড়!

আপডেটঃ ১:২৮ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ০১, ২০১৬

চ্যানেল সেভেন বিডি,নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজার উপজেলায় রাতের আধারে জেগে উঠা কুপ নিয়ে এলাকায় হুলুস্থুল শুরু হয়েছে। সাধারণ নারী-পুরুষ কুপের পানি পান করার জন্য যে যার মতো পাত্র নিয়ে ছুটে আসছে। কেউ রোগ ব্যাধি সারাতে সরল বিশ্বাসে এ কুপের পানি পান করছেন। কেউ আবার বোতলে ভরে পানি নিয়ে যাচ্ছে।
কুপ জাগার ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার ব্রাহ্মন্দী‏ ইউনিয়নের নোয়াদ্দা গ্রামের পাওয়ারলুম শ্রমিক আলমগীরের বাড়ির উঠোনে। মঙ্গলবার সকালে এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, গৃহকর্তা আলমগীরের উঠোনে কয়েক’শ নারী পুরুষ ও শিশু কুপ দেখার জন্য ভিড় করেছে।
বাড়ির মালিক আলমগীর জানান, সোমবার সকালে তার শিশু পুত্র পাবেল (১০) উঠোনে হাঁটাচলা করার সময় ছোট একটি গর্ত দেখতে পায়। সে গর্তে পা দিয়ে আঘাত করলে গর্তটি আরো একটু বড় হয়ে যায়। পরে শিশুটি বাড়ির লোকজনদের ডেকে এনে গর্তটি দেখায়। তারা গর্তে টর্চ লাইট দিয়ে পানি দেখতে পায়। কৌতূহল বশত তারা কোদালের সাহায্যে ছোট গর্তটির মাটি সরালে সেখানে গোলাকার প্রায় আড়াই ফুট দৈর্ঘ্য ও ১০ ফুট গভীর একটি কুপ বের হয়ে আসে। ১০ ফুট গভীর কুপটিতে প্রায় ৩ ফুট পানি রয়েছে। ঘটনাটি এলাকায় ছড়িয়ে পরলে উপজেলার বিভিন্ন গ্রাম থেকে লোকজন আলমগীরের বাড়িতে ছুটে আসে। অনেককে বোতলে ভরে পানি নিয়ে যেতে দেখা যায়।
এলাকার তারাবান বেগম নামে এক বৃদ্ধা জানান, রোগশোক থেকে মুক্তি পাওয়ার আশায় লোকজন কুপের পানি নিয়ে যাচ্ছে। এলাকার হেকিম নামে এক ব্যক্তি স্থানীয় লোকদের মাধ্যমে দর্শনার্থীদের কাছ থেকে টাকা উঠানোর চেষ্টা করলে এলাকার যুবকরা বাধা দেয়।
এলাকার প্রবীণ ব্যক্তিদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায় কুপটি গোলাকার খাঁজ কাটা হওয়ায় অনেকেই এটি অলৌকিক মনে করছে।
তবে স্থানীয় মসজিদের ইমাম হাফেজ সালাহউদ্দিন জানান, ভাল করে না দেখে এ কুপ সম্বন্ধে কিছু বলা যাবে না। তবে এর কোন ধর্মীয় ব্যাখ্যা দেওয়া তার পক্ষে সম্ভব নয়। তবে ধর্মীয় বিশ্বাসে এ কুপের পানি পরীক্ষা না করেই পান করছে লোকজন।