মঙ্গলবার ১৯শে জানুয়ারি, ২০২১ ইং ৫ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

চুলা ভাঙচুরের অভিযোগে গৃহবধূকে মারপিট, আটক ২

আপডেটঃ ১:৪৯ পূর্বাহ্ণ | নভেম্বর ০৬, ২০১৬

 

ডিএম কামরুল সাতক্ষীরা প্রতিনিধি : চ্যানেল সেভেন বিডি: চায়ের দোকানের চুলা ভাঙচুরের অভিযোগে সাতক্ষীরার তালা উপজেলার পল্লীতে বাজারি মন্ডল (৫০) নামে এক গৃহবধূকে বাঁশের খুঁটির সঙ্গে তার শাড়ি দিয়ে বেঁধে মারপিট করা হয়েছে। এ ঘটনায় জড়িত দু’জনকে রাতেই আটক করেছে পুলিশ।শুক্রবার বিকেলে তালা উপজেলার খলিষখালী ইউনিয়নের কৈখালি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার তিন ঘণ্টা পর পাটকেলঘাটা থানা পুলিশ তাকে উদ্ধার করেছে। বাজারি মন্ডল উপজেলার কৈখালী গ্রামের নিরঞ্জন মন্ডলের স্ত্রী। অমানবিক নির্যাতনে আহত গৃহবধূ বাজারী মন্ডল বর্তমানে তালা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন।কৈখালি ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য (মেম্বার) তপন কুমার বাছাড় ও আহতের স্বজনরা জানান, বাজারি মন্ডলের বসতবাড়ির পাশে তার দখলে থাকা খাস জমিতে একই পাড়ার নিত্যানন্দ সরকার একটি চায়ের দোকান করেন। এ জন্য তিনি বাজারি মন্ডলকে প্রতিমাসে দুই শত টাকা ভাড়া দেন। গত কয়েক মাস ধরে নিত্যানন্দ খাস জমির বিপরীতে ভাড়া দেওয়া বন্ধ করে আদালতে মামলা করেন। এ নিয়ে বাজারি মন্ডল ও নিত্যানন্দদের মধ্যে প্রায় ঝগড়া-বিবাদ চলতো।
শুক্রবার (০৪ নভেম্বর) দুপুরে দোকানে এসে নিত্যানন্দ দেখেন তার চায়ের দোকানের চুলা কে বা কারা ভাঙচুর করেছে। এই সূত্র ধরে নিত্যানন্দ তার ভাই বিশু, পুলক ও মহানন্দ সরকারসহ কয়েকজন একত্রিত হয়ে বাজারি মন্ডলকে লাঠিসোটা দিয়ে মারপিট করে। একপর্যায়ে শাড়ি দিয়ে পেচিয়ে দোকানের একটি খুঁটিতে তাকে বেঁধে রাখে। এসময় বাজারি মন্ডলের বাড়ির সদস্যরা তাকে রক্ষা করার চেষ্টা করেও ব্যর্থ হন। পরে পুলিশ এসে তাকে উদ্ধার করে তালা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করার ব্যবস্থা করেন। তালা উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা জানান তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন আছে।
পাটকেলঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জানান, এ ঘটনায় পুলিশ জড়িত নিত্যানন্দ সরকার ও বিশু সরকারকে আটক করেছে। এই ঘটনায় দোষীদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।