সোমবার ১৮ই জানুয়ারি, ২০২১ ইং ৪ঠা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

মহেশপুর নেপা ইউপি মেম্বর প্রহল্লাদ হালদার ষড়যন্ত্রের শিকার

আপডেটঃ ২:০৮ পূর্বাহ্ণ | নভেম্বর ০৬, ২০১৬

 

মোস্তাফিজুর রহমান উজ্জল :বিশেষ প্রতিনিধি : চ্যানেল সেভেন বিডি:ঝিনাইদহে মহেশপুর উপজেলার ৬ নং নেপা ইউনিয়ন পরিষদ এর ৩ নং ওয়ার্ড মেম্বর, ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি ও সলেমানপুর মৎস্যজীবি সমবায় সমিতির সভাপতি শ্রী প্রহল্লাদ হালদার ষড়যন্ত্রের শিকার বলে জানা যায়। গত ইউনিয়ন নির্বাচনে পরাজিত শত্রুরা ও এলাকার কিছু কুচক্রী মহল নির্বাচিত ইউপি সদস্য প্রহল্লাদ হালদার দায়িত্ব বুঝে নেওয়ার পর থেকে নিষ্ঠার সাথে কাজ করে যাচ্ছে দেখে ইর্ষাণি¦ত হয়ে এ ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে তথ্য অনুসন্ধানে জানা যায়। এলাকার মৎস্য জীবি সাধারন মানুষ জানায়, দীর্ঘদিন যাবত প্রহল্লাদ হালদার সলেমানপুর বাওড় গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের নিকট থেকে বন্দোবস্ত নিয়ে মৎস্যজীবি সমবায় সমিতির মাধ্যমে মৎস্য চাষ করে আসিতেছে আর এ মৎস্য চাষে আমরা পেয়েছি আর্থিক স্বচ্ছলতা, সরকার পাচ্ছে রাজস্ব। বর্তমান সরকারের উন্নয়ন দেখে জামায়াত বিএনপির দোসররা ইর্ষাণি¦ত হয়ে ক্ষীণ চক্রান্তে লিপ্ত হয়েছে। এই চক্রান্তকারীরা যতই ষড়যন্ত্র করুক না কেন প্রহল্লাদ হালদার বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা আদর্শের সৈনিক। কোন ষড়যন্ত্রকে ভয় পায়না সে। এলাকাবাসী আরো জানান, আওয়ামী দলের দুর্দিনে প্রহল্লাদ হালদার শ্রম দিয়ে অর্থ দিয়ে সংগঠনের লোকজনকে দেখভাল করে দলকে সুসংগঠিত করে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাত কে শক্তিশালী করতে রাজ পথে আছে, থাকবে। ইউপি সদস্য সাহারা খাতুন যে অভিযোগ প্রহল্লাদের উপর দায়ের করেছে তাহার কোন সত্যতা নেই। সম্পুর্ন রাজনৈতিক ভাবে ঘায়েল করতে ক্ষীণ চক্রান্ত, তবে ঐ সদস্য নিজেই চরিত্রহীনা হওয়ায় আরেক জনের চরিত্রের মুল্য দিতে জানে না। ইউপি চেয়ারম্যান সামশুল মৃধা জানান, ইউপি সদস্য প্রহল্লাদ ও সাহারা খাতুনের মধ্যে চলমান বিরোধ আমি নিজে সমাধান করেছি। তারপরেও সাহারার এ অভিযোগ অবৈধ, কোন সত্যতা নেই। চক্রান্তকারী মহিলা মেম্বর সাহারা ক্ষীণতম অভিযোগের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে, জেলা প্রশাসকের হস্তক্ষেপ চেয়েছেন এলাকার নবপ্রজন্ম।