রবিবার ১৭ই জানুয়ারি, ২০২১ ইং ৩রা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

পুলিশের এ এস আই রজব আলীর বিরুদ্ধে এক নারীর লিখিত অভিযোগ ডিআইজির কাছে

আপডেটঃ ৩:৫৯ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ০৮, ২০১৬

(সুনামগঞ্জ):চ্যানেল সেভেন বিডি:সুনামগঞ্জের জামালগঞ্জ থানা পুলিশের এএসআই রজব আলীর বিরুদ্ধে অশ্লীল গালিগালাজ,খারাপ আচরন ও লাঠিপেটা করার লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপ-মহা পুলিশ পরিদর্শক (ডিআইজি) বরাবরে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন জামালগঞ্জ সদর ইউনিয়নের গোলের হাটির সামাদ মিয়ার স্ত্রী নুর জাহান বেগম। অভিযোগ কারী ডাক বিভাগের রেজিষ্ট্রি মারফতে উপমহাপুলিশ পরিদর্শক, সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার,সহকারী পুলিশ সুপার দিরাই সার্কেল,অফিসার ইনচার্জ জামালগঞ্জ থানাকে অভিযোগের কপি পাঠিয়েছেন। নুর জাহান বেগমের লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করেন,গেল ২৩ অক্টোবর রবিবার দুপুরে আমার দখলীয় ভুমিতে ভাড়া ট্রাক্টর মেশিন দিয়ে হাল চাষ করার সময় আমার জমিতে গুলের হাটি গ্রামের কাদির ও তার ভাই,ভাতিজারা নিষেধ করে এবং জামালগঞ্জ থানায় আমার স্বামী এবং ছেলেদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে। এই জমি বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে নতুন সেটেলমেন্ট জরিপে চলে যায়। বর্তমানে সরকার বাহাদুরের সাথে আমার সুনামগঞ্জ জজ আদালতে মামলা চলমান। অভিযোগে আরো উল্লেখ করেন,কাদির ও তার আতœীয়রা থানা পুলিশ নিয়ে আমার জায়গায় বাধা দেয়। আমি আমার জমির কথা বলতে গেলে এএসআই রজব আলী ও উনার সাথে থাকা কনস্টেবল লিটন আমার পায়ে তাদের বেত দিয়ে আঘাত করে ও এএসআই রজব আলী তার হাতে থাকা বেত নাকি আমার ভিতরে ডুকিয়ে দিবে,আশপাশের মহিলার এলে তিনি অন্যান্য মহিলাদের গালিগালাজ করে তাদের সাথেও খারাপ ব্যবহার করেন।ট্রাক্টরের মালিককে ধরে থানায় এনে পরদিন তাকেও মোবাইল কোর্টে জেলে পাঠান। ঘটনার পর পরই ২৫ অক্টোবর স্বশরীরে গিয়ে সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপারকে অবহিত করি। পুলিশ সুপারের কাছেও কোন প্রকার বিচার না পেয়ে বাধ্য হয়ে আপনার কাছে বিচার প্রার্থী হওয়ার কথা লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করেন। এবিষয়ে জামালগঞ্জ থানার এএসআই রজব আলী বলেন,আমি অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করিনী, খারাপ আচরন করিনী, লাঠিপেঠাও করিনি, উল্টো মহিলারা দুপাশ থেকে আমার উপর আক্রমন করতে এসেছে।
জামালগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ আতিকুর রহমান বলেন,জায়গা নিয়ে দুপক্ষের মধ্যে বিরোধ থাকায় পুলিশ শান্তি শৃংখলার জন্য নোটিশ নিয়ে গেলে পুলিশের উপর আক্রমন চালাতে এলে একজনকে আটক করে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে সাজা প্রদান করা হয়।