শুক্রবার ৩০শে অক্টোবর, ২০২০ ইং ১৪ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

যুক্তরাষ্ট্রের হত্যাকারী জুটির পরিচয় মিলেছে

আপডেটঃ ১:০৪ অপরাহ্ণ | জুন ১১, ২০১৪

ঢাকা: গত ৯ জুন যুক্তরাষ্ট্রের লাস ভেগাসে এক হত্যাকাণ্ড সংঘটিত হয়। একজোড়া নারী-পুরুষ জনাকীর্ণ এক পিৎজা ক্যাফেতে ২ পুলিশকে গুলি করে হত্যা করে, পরে পার্শ্ববর্তী ওয়ালমার্ট শো রুমে ঢুকে সেখানে হত্যা করে আরও একজনকে। এরপর নারী সদস্যটি তার পুরুষ সঙ্গীকে গুলি করে হত্যা করার পর আত্মহত্যা করে।

সে হত্যাযজ্ঞে নিহতের সংখ্যা দাঁড়ায় ৫ এবং যুক্তরাজ্য জুড়ে ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়। সম্প্রতি পুলিশী তদন্তে ঐ জুটির পরিচয় মিলেছে।
তারা ছিল স্বামী স্ত্রী এবং লাস ভেগাস শহরের পরিচিতমুখ স্ট্রীট পারফর্মার জেরাড মিলার (৩০) ও আমান্দা মিলার (২২)। রঙিন আর উদ্ভট সব সাজে সেজে শহরে আসা দর্শনার্থীদের মনোরঞ্জন করতো। ৯ জুনের ঘটনার পর তদন্তে নামে লাস ভেগাস পুলিশ এবং খুনে স্বামী স্ত্রীর আবাসে একটি ভিডিওর সন্ধান পায়।
সেখানে জেরাড মিলার বিখ্যাত কমিক নায়ক ব্যাটম্যানের খলনায়ক জোকারের সাজে সেজে এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পতাকার সামনে দাঁড়িয়ে অস্বাভাবিক মুখভঙ্গি করে বক্তব্য রাখেন। বক্তব্যের ভাষ্য ছিল অদ্ভুত।
‘আমি রাষ্ট্রপতি হতে চাই। যুদ্ধের প্ররোচনাকারী হতে চাই। এলাকার হেজিপেজি মাস্তান নয়, যেন তেন কোন দেশীয় সন্ত্রাসী নয়…’
জানা যায়, ঐ পিৎজার দোকানে পুলিশদের গুলি করার সময় তারা ‘এটা বিপ্লব’ বলে চিৎকার করছিলেন। এবং হত্যাকাণ্ডের পর তারা পুলিশদের গায়ের ওপর স্বস্তিকা চিহ্ন সম্বলিত একটা বার্তা রেখে আসেন। সেখানে লেখা ছিল, ‘আমাকে মাড়িও না!’
হত্যাকারী দম্পতির ব্যাপারে পুলিশ আরও জানতে পারে, এর আগে বেশ কিছু সরকারবিরোধী বিক্ষোভে তারা অংশ নিয়েছিল। একবার নেভাদা র‌্যাঞ্চে সরকারবিরোধী সংঘের সভায় যোগ দিতে গেলে কিছুক্ষণ পর নিরাপত্তারক্ষীরা ‘অতি বিপ্লবী’ আচরণের জন্যে সভা থেকে তাদের বের করে দিয়েছিল।