রবিবার ২৫শে অক্টোবর, ২০২০ ইং ৯ই কার্তিক, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

২০১৩ সালে বিশ্বে ব্যক্তিগত সম্পদ বেড়েছে

আপডেটঃ ১:২৬ অপরাহ্ণ | জুন ১১, ২০১৪

ঢাকা: ২০১৩ সালে বিশ্বে ব্যক্তিগত ও পারিবারিক সম্পদের পরিমাণ বেড়েছে। আগের বছরের চেয়ে ১৪ শতাংশ বেড়ে মোট সম্পদ দাঁড়িয়েছে ১৫২ ট্রিলিয়ন মার্কিন ডলারে।

বেশির ভাগ ক্ষেত্রে পুঁজিবাজারে বিনিয়োগের মাধ্যমেই অর্থসম্পদের প্রবৃদ্ধি ঘটেছে। একই সঙ্গে বেড়েছে মিলিয়নারের সংখ্যাও।

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক পরামর্শক প্রতিষ্ঠান বোস্টন কনসাল্টিং গ্রুপের (বিসিজি) এক সমীক্ষায় এ তথ্য উঠে এসেছে।

সংস্থাটি বলছে, ইউরোপ ও আমেরিকার বেশির ভাগ দেশে অর্থনৈতিক পরিস্থিতি স্থিতিশীল থাকা এবং পুঁজিবাজারে শক্তিশালী উল্লম্ফন সম্পদ বৃদ্ধিতে সহায়ক হয়েছে।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বৈশ্বিক অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অর্জনে এশিয়া সবচেয়ে অগ্রণী ভূমিকা রেখেছে। ব্যক্তিগত সম্পদ বৃদ্ধির হারও এ অঞ্চলে বেশি, যার পরিমাণ ৩১ শতাংশ।

অবশ্য এশিয়া অঞ্চলে ব্যক্তিগত সম্পদ বৃদ্ধিতে এগিয়ে রয়েছে চীন। ২০১৩ সালে চীনে সম্পদ বাড়ার হার ৪৯ শতাংশ। দেশটিতে সঞ্চয়ে উচ্চ প্রবৃদ্ধির কারণে এটি সম্ভব হয়েছে।

২০১৮ সালে চীন ব্যক্তিগত সম্পদের দিক থেকে পশ্চিম ইউরোপকে ছাড়িয়ে যাবে বলে ইঙ্গিত দিয়েছে বিসিজি। বর্তমানে পশ্চিম ইউরোপ সম্পদের দিক থেকে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম অঞ্চল। এক্ষেত্রে শীর্ষে রয়েছে উত্তর আমেরিকা।

ব্যক্তিগত সম্পদে প্রবৃদ্ধির ফলে গত এক বছরে চীনে মিলিয়নারের সংখ্যা ১৫ লাখ থেকে বেড়ে ২৪ লাখ হয়েছে। আর ২০১৩ সালে বিশ্বে মিলিয়নারের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে এক কোটি ৬৩ লাখে।