| |

Ad

সমাজে গণতন্ত্রের চর্চা বাড়াতে হবে : রাষ্ট্রপতি

আপডেটঃ ৪:১২ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ১১, ২০১৭

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি :সমাজে গণতন্ত্রের চর্চা বাড়াতে পরামর্শ দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

রাষ্ট্রপতি বলেছেন, ‘‘অর্থ-পেশিশক্তি ও ক্ষমতা যেন নির্বাচন ও গণতন্ত্রকে প্রভাবিত  করতে না পারে, সেজন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ ও সজাগ থাকতে হবে। গণতন্ত্র ও উন্নয়ন একে অপরের পরিপূরক। গণতন্ত্র উন্নয়নকে বেগবান করে। তাই সমাজের প্রতিটি স্তরে গণতন্ত্রের চর্চা বাড়াতে হবে।’’

কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী পাইলট মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭৫ বৎসর পূর্তি উদযাপন অনুষ্ঠানে মঙ্গলবার বিকেলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ সব কথা বলেন।

রাষ্ট্রপতি বলেন, ‘‘আর্থ-সামাজিক উন্নয়নের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ এখন বিশ্বব্যাপী রোল মডেল। তবে আমাদের মনে রাখতে হবে উন্নয়নের জন্য প্রয়োজন গণতন্ত্রের বিকাশ ও রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা। আমাদের দায়িত্ব হবে গণতান্ত্রিক রীতি-নীতি চর্চার মাধ্যমে গণতান্ত্রিক অগ্রযাত্রাকে আরো বেগবান ও অর্থবহ করা। দেশ ও জাতির বৃহত্তর কল্যাণে আমাদের সম্মিলিত কাজ করে যেতে হবে।’’

তিনি বলেন, ‘‘২০২১ সালে আমরা স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উৎসব পালন করব। ওই সময়ে আমরা দেশকে মধ্য আয়ের দেশে পরিণত করতে সার্বিক পরিকল্পনা গ্রহণ করেছি। দেশকে সেই লক্ষ্যে এগিয়ে নিতে সবাইকে নিজ নিজ অবস্থান থেকে কঠোর পরিশ্রম করতে হবে।’’

কিশোরগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য ও বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি অ্যাডভোকেট সোহরাব উদ্দিনের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তৃতা করেন কিশোরগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য রেজওয়ান আহমেদ তৌফিক, কিশোরগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট জিল্লুর রহমান, সাবেক সচিব শফিক আলম মেহেদী, কটিয়াদী উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুল ওয়াহাব আইন উদ্দিন, কটিয়াদী পৌরসভার মেয়র শওকত ওসমান শুক্কুর আলী। আলোচনা সভার আগে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ কটিয়াদীর ১০টি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করেন।

আলোচনা সভার আগে রাষ্ট্রপতিকে উদ্দেশ করে রচিত স্কুলের ছাত্রছাত্রীদের জারি গান ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান দর্শকদের আনন্দ দেয়।

এর আগে দুপুর ১টায় রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ সড়ক পথে কিশোরগঞ্জ শহরের নিজ বাসভবন থেকে কটিয়াদী আসেন। পরে কটিয়াদী কলেজ মাঠে রাষ্ট্রপতিকে গার্ড অব অনার শেষে দুপুর ২টা ৪৫ মিনিটে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের নাম ফলক উন্মোচন করেন।

কটিয়াদী থেকে রাষ্ট্রপতি বিকেল ৫টা ৪৫ মিনিটে সড়ক পথে কিশোরগঞ্জ সার্কিট হাউজের উদ্দেশে যাত্রা করেন। সন্ধ্যা ৭টায় বিভিন্ন পেশাজীবী সংগঠন, বিভিন্ন মিডিয়ার সাংবাদিক, আইনজীবী সমিতির সদস্য ও ঊর্ধ্বতন সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন।

জেলা সদরের খরমপট্টি এলাকায় রাষ্ট্রপতি নিজ বাসভবনে রাত্রিযাপন শেষে বুধবার বিকেল ৫টায় হেলিকপ্টারযোগে ঢাকায় ফিরে যাবেন।