| |

Ad

৩২ বছর পর ঢাকায় আবারও বসেছে এশিয়ার হকির শ্রেষ্ঠত্বের লড়াই।

আপডেটঃ ৪:২০ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ১১, ২০১৭

ক্রীড়া প্রতিবেদক:নীল টার্ফে ফ্লাডলাইটের আলোতে ঝলমলে মাওলানা ভাসনী হকি স্টেডিয়াম।

রঙিন গ্যালারি এবং ইলেক্ট্রনিক স্কোরবোর্ড যেন স্টেডিয়ামে নিয়ে এসেছে পূর্ণতা। স্টেডিয়ামের ভেতরটা যেমন পরিপাটি ঠিক তেমন স্টেডিয়ামের বাইরেও। চিরচেনা হকি স্টেডিয়াম রূপ পেয়েছে আন্তর্জাতিক ভেন্যুতে! নতুন সাজে হকি স্টেডিয়াম সাজানোর উপলক্ষ্য এনে দিয়েছে এশিয়া কাপ হকি।

৩২ বছর পর ঢাকায় আবারও বসেছে এশিয়ার হকির শ্রেষ্ঠত্বের লড়াই। ১৯৮৫ সালে ঢাকায় বসা সবশেষ আসরে শিরোপা ঘরে তুলে পাকিস্তান। সেই পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে আজ যাত্রা শুরু করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। কৃত্রিম আলোয় বিকেল সাড়ে পাঁচটায় মাঠে নামবে জিমি-আশরাফুলা। অবশ্য বিকেল ৩টা ৩০ মিনিটেই মাঠে নামছে ভারত ও জাপান। এর আগে দুপুর ২টা ৩০ মিনিটে টুর্নামেন্টের উদ্বোধন ঘোষণা করবেন পরিকল্পনা মন্ত্রী আ হ ম মুস্তাফা কামাল।
 

নিজস্ব ভেন্যু মওলানা ভাসানী স্টেডিয়ামে এশিয়া কাপ আয়োজনের জন্য ব্যাপক প্রস্তুতি সেরেছে হকি ফেডারেশন। নীল টার্ফ বসেছে বহু আগেই। নতুন করে সংযোজন করা হয়েছে ফ্লাডলাইট ও ইলেক্ট্রনিক স্কোরবোর্ড। এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ের জন্য স্টেডিয়ামের আশে-পাশেও সংস্কার কাজ চালিয়েছে ফোডারেশন। পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করা হয়েছে স্টেডিয়ামের আশে-পাশের রাস্তা। পাশাপাশি স্টেডিয়ামের ড্রেনেজ ব্যবস্থাও উন্নত করেছে। সব মিলিয়ে ব্যয় ১৯ কোটি টাকা।

আটটি দেশ দুই গ্রুপে বিভক্ত হয়ে এশিয়া কাপে লড়বে। ‘এ’ গ্রুপে বাংলাদেশের সঙ্গী ভারত, পাকিস্তান, জাপান। ‘বি’ গ্রুপে খেলবে দক্ষিণ কোরিয়া, মালয়েশিয়া, চীন ও ওমান।
 

এশিয়া কাপ হকিতে বাংলাদেশের পারফরম্যান্স তলানিতে। সেরা চারে কোনোবারই থাকতে পারেনি। এবার কি ভাগ্য পাল্টাবে? নিজেদের দেশে প্রথমবারের মতো ফ্লাডলাইটে খেলবেন জিমিরা। হকির ওয়ার্ল্ড র‌্যাঙ্কিংয়ে পাকিস্তানের  তুলনায় অনেকটা পিছিয়ে বাংলাদেশ। পাকিস্তানের র‌্যাঙ্কিং যেখানে ১৪ সেখানে বাংলাদেশের অবস্থান ৩৪তম স্থানে। র‌্যাঙ্কিং স্পষ্ট করছে দুই দলের পার্থক্য। এছাড়া এশিয়া কাপ হকির পরিসংখ্যান বলছে পাকিস্তানের বিপক্ষে বাংলাদেশের কোনো জয় নেই। ৬ ম্যাচের ৬টিতেই হার। পাশাপাশি বড় মঞ্চে বাংলাদেশের সাফল্য খুব কম। সেখানে পাকিস্তান বিশ্বকাপ জিতেছে, এশিয়া কাপও টানা তিনবার জিতেছে। রেকর্ড, পরিসংখ্যানে পাকিস্তান এগিয়ে থাকলেও বাংলাদেশকে মোটেও খাটো করে দেখছেন না পাকিস্তান অধিনায়ক মোহাম্মদ ইরফান। বরং সমীহই করছেন। নতুন আলোয় হকিতে নতুন আলো ছড়াতে পারেন কিনা সেটাই দেখার।
 

এশিয়া কাপ হকির প্রথম তিন আসরের শিরোপা ঘরে তোলে পাকিস্তান। পরবর্তীতে দাপট দেখায় কোরিয়া। তারা ১৯৯৩, ১৯৯৯, ২০০৯ এবং ২০১৩ সালে এশিয়ার হকির মুকুট জেতে। ভারত ২০০৩ এবং ২০০৭ সালে চ্যাম্পিয়ন হয়।

এবারের এশিয়া কাপ হকিতে মোট ২৪টি ম্যাচ হবে।২২ অক্টোবর দশম এশিয়া কাপের পর্দা নামবে।