| |

Ad

সর্বশেষঃ

নড়াইলে অপহরণের ঘটনায় থানায় মামলা

আপডেটঃ ১:২৯ অপরাহ্ণ | অক্টোবর ১৮, ২০১৭

নড়াইল প্রতিনিধি : নড়াইলে ৪র্থ শ্রেণীর এক ছাত্রকে অপহরণের দায়ে থানায় মামলা হয়েছে। ভুক্তভোগী শিশুটির নাম মোঃ সাজিম মোল্যা (১০)। সে নড়াইল সদর উপজেলাধীন চাঁচড়া গ্রামের হিরন মোল্যার ছেলে এবং তুলারামপুর ব্র্যাক শিশু নিকেতনের ৪র্থ শ্রেণীর ছাত্র। মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, সোমবার (১৬ অক্টোবর) স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে আনুমানিক ১টার দিকে তুলারামপুর নিবাসী মাস্টার আঃ রউফ মোল্যার বাড়ির দক্ষিণ পাশের ইটের সলিং এর সামনে থেকে তাকে অপহরণ করে একদল দুর্বৃত্ত। অপহরণের শিকার শিশুটির পিতা মোঃ হিরন মোল্যা আরো জনান, প্রায় ৫ বছর পূর্বে তার স্ত্রী তার ছেলে মোঃ সাজিম মোল্যকে ফেলে রেখে তাকে তালাক দিয়ে চলে যায়। তারপর থেকে তার ছেলে পিতার (হিরন) কাছে থাকত। ঘটনার সময় পূর্ব থেকে ওঁৎ থাকা কয়েক জন লোক (রাজিব শেখ, পিং মোঃ আবুল কালাম শেখ, মোঃ আবুল কালাম শেখ, পিং মৃত আঃ খালেক শেখ, মোছাঃ ভানু বেগম, পিং- আলেক সরদার, সাং- টোনা, বিনা খানম, স্বামী রহমান মোল্যা, সাং- চান্দের চর, নড়াগাতী নড়াইল) একটি সাদা মাইক্রোবাস যোগে আসিয়া সাজিম নামক ছেলেটির পথ রোধ করিয়া দাড়ায় এবং তাকে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোর পূর্বক ধরে মাইক্রোবাসে করে নিয়ে যায়। এসময় ঘটনা স্থলের কোলাহল শুনে পথচারীরা দ্রুত এগিয়ে এসে তাদের মাইক্রোবাসে করে পালিয়ে যেতে দেখে। সাজিম মোল্যার বাবা ও তার পরিবার আশংকা করছে যে, সাজিম মোল্যাকে তারা ধরে লইয়া কোথাও গুম করে রেখেছে। তারা সাজিম মোল্যাকে বিদেশে পাচার করতে পারে বা দিয়েছে। এ ঘটনায় নড়াইল সদর থানা এ বিষয়ে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। নড়াইল সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেলোয়ার হোসেন খান বলেন, মামলাটি আমলে নেওয়া হয়েছে। সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে আমরা অভিযুক্তদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনার চেষ্টা করছি। এ ঘটনায় তুলারামপুর এলাকায় ছেলেধরাদের আশংকায় ভীত সন্ত্রস্ত হয়েছেন ছেলেমেয়েদের অভিভাবকগণ।