| |

Ad

খালেদার জিয়া মুক্তির দাবিতে রাজশাহীতে বিএনপির মানববন্ধন

আপডেটঃ ১২:৩৪ পূর্বাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১৮

নাজিম হাসান,রাজশাহী প্রতিনিধি: জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের সাজার প্রতিবাদে রাজশাহীতে মানববন্ধন করেছে বিএনপির। গতকাল সোমবার বেলা ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত মহানগরীর মালোপাড়া দলীয় কার্যালয়ের সামনে এ মানববন্ধন করে নগর বিএনপির নেতাকর্মীরা। এ সময় পুলিশ রাস্তার দুই পাশ থেকে মানববন্ধন ঘিরে রাখে। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন রাজশাহী সিটি মেয়র ও নগর বিএনপির সভাপতি মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল,বিএনপির রাজশাহী বিভাগীয় সহ-সংগঠনিক সম্পাদক শাহীন শওকত, নগরের সাধারণ সম্পাদক শফিকুল হক মিলন। মানববন্ধনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি সাবেক এমপি অধ্যাপক আব্দুল গফুর, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ মোহম্মদ মওসিন, মহানগর যুবদলের সভাপতি আবুল কালাম আজাদ সুইট, জেলার সভাপতি মোজাদ্দেদ জামানী সুমন, নগর যুবদলের সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুর রহমান রিটন, জেলার সাধারণ সম্পাদক শফিকুল আলম সমাপ্ত, ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক কৃষিবীদ ওয়ালিউজ্জামান পরাগ, কেন্দ্রীয় সদস্য ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ সম্পাদক কামরুল হাসান, রাজশাহী জেলা ছাত্রদল সভাপতি রেজাউল করিম টুটুল, মহানগর ছাত্রদল সভাপতি আসাদুজ্জামান জনি, সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম রবি, জেলা ছাত্রদল সহ-সভাপতি শফিউল ইসলাম সজিব, যুগ্ম-সম্পাদক আরফিন কনক, সাংগঠনিক সম্পাদক ফয়সাল সরকার ডিকো প্রমূখ। মানববন্ধনে নগর বিএনপির সভাপতি ও সিটি মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুল বলেন, খালেদা জিয়ার সাজার রায়ে গোটা জাতি আজ বিস্মিত। বাংলাদেশের সমস্ত মানুষ দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার পক্ষে ঐক্যব্ধ। আমরা শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির মাধ্যমে খালেদা জিয়াকে মুক্ত করে ছাড়বো। এদিকে, দুর্নীতির মামলায় খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানের সাজার প্রতিবাদে রাজশাহীতে মানববন্ধন করেছে জেলা বিএনপির নেতাকর্মীরা। সোমবার দুপুর ১টার থেকে দেড়টা পর্যন্ত নগরের ভেড়িপাড়া এলাকায় পিটিআই এর সামনে এ মানববন্ধনের আয়োজন করে তারা। মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সভাপতি তোফাজ্জল হোসেন তপু, জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রায়হানুল হক রায়হান, সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম মোস্তফা মামুন। এ সময় মহানগর বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মামুনুর রশিদ মামুনসহ জেলার নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।