| |

Ad

সর্বশেষঃ

রাজধানীর তুরাগে ব্যবসায়ীর বাড়িতে দুর্ধর্ষ ডাকাতি সংঘটিত নগদ সাড়ে ৬ লাখ টাকা ও ৭০ ভরি স্বর্ণলংকার লুটপাট ।। আহত-৪

আপডেটঃ ২:৩৩ অপরাহ্ণ | মার্চ ২১, ২০১৮

এস,এম,মনির হোসেন জীবন : রাজধানীর তুরাগের নলভোগ গ্রামে এক ব্যবসায়ীর বাড়িতে দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ৮ থেকে ১০জনের সংঘবদ্ধ ডাকাত দল ওই বাড়িতে ঢুকে পরিবারের সকলকে অস্ত্রের মুখে জিম্বি করে তা-পা বেঁধে আলমারী ভেঙ্গে নগদ সাড়ে ৬ লাখ টাকা, ৬০ থেকে ৭০ ভরি স্বর্ণালংকার,একটি আইফোন ও ৫টি মোবাইল সেট সহ প্রায় ৩৭ লাখ টাকার মালামাল লুটপাট করে নিয়ে গেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।এসময় ডাকাতদের হামলা ওই বাড়ির মালিকের ছেলে ব্যবসায়ী মো: সম্রাট (৩০)ও তার পুত্র হূদয় (৮)সহ ৩ থেকে ৪জন আহত হয়েছে। এদিকে ডাকাতির ঘটনার খবর পেয়ে তুরাগ থানা অফিসার (ওসি) মো: নুরুল মোত্তাকিন সহ পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
সোমবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে তুরাগ থানার নলভোগ গ্রামে ব্যবসায়ী হাজী মো: জয়নাল আবেদীনের বাড়িতে দুর্ধর্ষ এ ডাকাতির ঘটনা ঘটে।
তুরাগ থানা অফিসার (ওসি) মো: নুরুল মোত্তাকিন আজ মঙ্গলবার রাতে ডাকাতির ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
বাড়ির মালিক হাজী জয়নাল আবেদীন ও এলাকাবাসিরা জানান, সোমবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে তুরাগ থানার নলভোগ গ্রামে ব্যবসায়ী হাজী মো: জয়নাল আবেদীনের দ্বিতীয় তলা বাড়িতে ৮ থেকে ১০জনের সংঘবদ্ধ একদল ডাকাত ঢুকে। ডাকাতদ্বয় ওই বাড়ির দ্বিতীয় তলার গ্রিল কেটে ফ্লাট বাসায় প্রবেশ করে। পরে মুখোশধারী সশ্রস্ত্র ডাকাত দলের সদস্যরা ইটাবালু ব্যবসায়ী মো: সম্রাটের ঘরে প্রবেশ করে। এরপর অস্ত্রের মুখে তার দুই পুত্র ও স্ত্রীকে জিম্বিী করে কাপড় দিয়ে তাদের হাত-পা বেঁধে ফেলে ঘরের আলমারী থেকে নগদ টাকা,স্বর্ণালকার,আইফোন নিয়ে যায়। এসময় পরিবারের সদস্যরা ভয়ে হৈ-চৈ করার চেষ্টা করলে ডাকাতরা ব্যবসায়ী সম্রাট,তার স্ত্রী সুমা আক্তার,পুত্র হূদয়,আপনকে কিলঘুষি ও থাপ্পড় মেরে আহত করে। পরিবারের সকলকে অস্ত্রের ভয়ও দেখায় তারা। অস্ত্রের ভয়ও দেখায় পরে ডাকাতরা ওই বাড়ির নিচতলার হাজী জয়নালের ফ্লাটে ঢুকে অস্ত্রের মুখে বাড়ির মালিক জয়নাল আবেদীন তার স্ত্রী মনোয়ারা বেগম সহ তার পরিবারের অন্যান্য সদস্যদেরকে অস্ত্রের মুখে জিম্বি করে সবাইকে এক রুমে নিয়ে গিয়ে কাপড় দিয়ে হাত,পা ও মুখ বেঁধে ফেলে আটকে রাখে। এরপর ডাকা্তদ্বয় ঘরের আলমারী ভেঙ্গে ও সব কিছু নছনছ করে ওই বাড়ি থেকে মোট সাড়ে ৬ লাখ টাকা ও প্রায় ৬০ থেকে ৭০ ভরি স্বর্ণালংকার লুটপাট করে নিয়ে পালিয়ে যায়।প্রায় ঘন্টা ব্যাপী ডাকাতরা ওই বাড়িতে ভাংচুর ও তান্ডবলীলা চালায়। যাবার বেলায় ডাকাতরা চেচামেচি ও হৈ-টচ করলে গুলি করে সবাইকে হত্যা করবে বলে প্রাণনাশের হুমকী দেয়। ডাকাতদের বয়স ২০ থেকে ৩৫ বছর। তাদেরপরনে ছিল লুঙ্গী ও প্যান্ট। ডাকাত দলের সদস্যরা সকলে মুখোশ পরা ছিল।ডাকাতরা চলে গেলে আশপাশের লোকজন জয়নাল তার পুত্র সম্রাট ও অন্যান্যদের চিৎকার শুনে ওই বাড়িতে গিলে তাদেরকে উদ্বার করেন।
তুরাগ থানা অফিসার (ওসি) মো: নুরুল মোত্তাকিন আজ মঙ্গলবার রাতে ডাকাতির ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন। ওসি জানান, ঘটনা শুনে ওই বাড়িতে পুলিশ পাঠিয়েছি। পুলিশ ডাকাতির ঘটনাটি বেশ গুরুত্ব দিয়ে দেখছে।লুণ্ঠিত মালামাল এখনও পর্যন্ত উদ্বার কিংবা কাউকে আটক করা হয়নি। পুলিশী অভিযান অব্যাহত আছে। এখনও পর্যন্ত থানায় মামলা হয়নি। তবে, মামলার প্রস্তুতি চলছে।