শুক্রবার ১৯শে এপ্রিল, ২০১৯ ইং ৬ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Ad

শাহজালাল বিমানবন্দরে ৩ যাত্রীর কাছ থেকে ১৫ পিস সোনার বার উদ্বার

আপডেটঃ ১২:২৩ পূর্বাহ্ণ | নভেম্বর ০৫, ২০১৮

এস,এম,মনির হোসেন জীবন ॥ ঢাকা হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ২ কেজি ৪৬ গ্রাম ওজনের মোট ১৫ পিস সোনার বার সহ ৩ যাত্রীকে আটক করেছে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা। আটককৃত ৩ যাত্রী হলেন-আফরাতুল আজিম, মোহাম্মদ রিয়াজুল হক ও জাফর উল্লাহ। আটককৃত ৩ যাত্রীকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে রাতে বিমানবন্দর থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। আজ রোববার দুপুরে ধৃত ৩ ব্যক্তিকে আদালতে পাঠায় পুলিশ। শনিবার এ ঘটনা ঘটে।

শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) ড. শহীদুল ইসলাম আজ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের কর্মকর্তারা আজ জানান, শনিবার বিকেলে এমিরেটস এয়ারলাইন্সের (ইকে-৫৮৬ ) নম্বর ফ্লাইটটি দুবাই থেকে ঢাকায় এসে অবতরণ করে। তখন গোপন সংবাদের মাধ্যমে শুল্ক গোয়েন্দা দল জানতে পারে এমিরেটস এয়ারলাইন্সের (ইকে-৫৮৬) নম্বরের ফ্লাইটযোগে সোনার একটি চোরাচালান দেশে আসছে। এমন তথ্যের ভিত্তিতে শুল্ক গোয়েন্দা দল বিমানবন্দরের গ্রিন চ্যানেল সহ বিভিন্ন স্থানে অবস্থান নেয়। তিন যাত্রী গ্রিন চ্যানেল অতিক্রম করার পর শুল্ক গোয়েন্দা দল তাদের আটক করে। আটকের পর তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তখন তারা স্বর্ণ বহনের বিষয়টি অস্বীকার করেন। পরবর্তীতে ২ যাত্রীর রেক্টামের ভিতর লুকানো ১৫টি স্বর্ণবার ও ২০২ গ্রাম স্বর্ণালঙ্কার এবং অপর জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে অপর যাত্রী জাফর উল্লাহ পালানোর চেষ্টা করেন। এরপর তার দেহ তল্লাশি করে ঘোষণা বহির্ভূত ১০৪ গ্রাম স্বর্ণালঙ্কার উদ্ধার করা হয়। যার ওজন ২ কেজি ৪৬ গ্রাম। উদ্ধার হওয়া স্বর্ণের মূল্য প্রায় এক কোটি ৮ লাখ টাকা।

শুল্ক গোয়েন্দারা আরো জানান, উদ্ধারকৃত স্বর্ণ ঢাকা কাস্টমস হাউসের গুদামে জমা দেয়া হয়েছে। আটক তিন ব্যক্তিকে বিমানবন্দর থানায় সোপর্দ সোপর্দ করা হয়েছে। এঘটনায় সোনা চোরাচালান আইনে সংশ্লিষ্ট থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।
বিমানবন্দর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: নূরে আযম মিয়া আজ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছেন। ওসি জানান, ৩জনকে থানায় সোপর্দ করা হয়েছে। এঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। আজ রোববার দুপুরে ধৃত ৩ আসামীকে আদালতে পাঠানো হয়েছে।