শুক্রবার ১৯শে এপ্রিল, ২০১৯ ইং ৬ই বৈশাখ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Ad

উত্তরায় স্পেশাল ব্র্যাঞ্জের স্কুল অব ইন্টেলিজেন্স এর শুভ উদ্বোধনী অনুষ্টানে দক্ষতা বৃদ্বির ক্ষেত্রে প্রশিক্ষনের কোন বিকল্প নেই ——–আইজিপি

আপডেটঃ ১১:২৮ অপরাহ্ণ | নভেম্বর ০৫, ২০১৮

এস,এম,মনির হোসেন জীবন ॥ ইন্সপেক্টর জেনারেল অব পুলিশ (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বিপিএম (বার) বলেছেন, দক্ষতা বৃদ্বির ক্ষেত্রে প্রশিক্ষনের কোন বিকল্প নেই। নিয়মিত প্রশিক্ষনের মাধ্যমে দক্ষতা অর্জন করা সম্ভব। আগামীতে আমরা প্রশিক্ষনের মাধ্যমে দক্ষ জনশক্তি গড়ে তুলবো।

তিনি বলেন,বাংলাদেশ সরকারের এসবি হলো একটি গোয়েন্দা সংস্থা। এটি দীর্ঘ দিনের পুরানো গোয়েন্দা সংস্থা। এসবি ও এনএসআই দুইটি গোয়েন্দা সংস্থা একসাথে মিলেমিশে কাজ করেন।

আজ সোমবার বিকেলে রাজধানীর উত্তরা ১১ নং সেক্টরে বাংলাদেশ পুলিশের স্পেশাল ব্রাে র স্কুল অব ইন্টেলিজেন্স এর নবর্নিমিত ১৪ তলা ভবনে আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম এর উদ্বোধনী প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।
স্কুল অব ইন্টেলিজেন্স এর শুভ উদ্ধোধনী অনুষ্টানে আইজিপি ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী, এসবি’র এডিশনাল আইজি মীর শহীদুল ইসলাম, স্কুল অব ইন্টেলিজেন্স এর কর্মকর্তা আব্দুর সালাম বক্তব্য রাখেন। এসময় পুলিশের বিভিন্ন স্তুরের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে আইজিপি ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বলেন, পুলিশের দক্ষতা ও কর্মক্ষমতা বৃদ্বির জন্য সময়ের সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ সর্বোকৃষ্ট প্রশিক্ষণ প্রদানের জন্যই বাংলাদেশ পুলিশের বিভিন্ন প্রশিক্ষণ প্রতিষ্ঠানের সৃষ্টি।
তিনি বলেন, গোয়েন্দা তথ্য নির্ভর জনবান্ধব পুলিশি ব্যবস্থা গড়ে তোলার নিমিত্ত প্রো-একটিভ ও ইন্টেলিজেন্স লিড পুলিশিং এ দক্ষ ও পেশাদার পুলিশ সদস্য তৈরীর জন্য বাংলাদেশ পুলিশের একমাত্র বিশেষায়িত প্রশিক্ষণ প্রতিষ্টান হলো ’’ স্কুল অব ইন্টেলিজেন্স’’।

পুলিশ প্রধান তার বক্তৃতায় বলেন,স্কুল অব ইন্টেলিজেন্স এর প্রতিষ্ঠালগ্নে ১৯৯২ সালে ৮টি কোর্সে ২৪৮জনকে প্রশিক্ষন প্রদান করা হয়। ২০১৭ সালে ২৫টি কোর্সে ৮০ টি ব্যাচে মোট ২৪১১জনকে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে।
তিনি বলেন, ঢাকার উত্তরার ১৪ তলা পূণাঙ্গ ভবন তৈরী হলে অদূর ভবিষ্যতে আরো ব্যাপক হারে প্রশিক্ষণ প্রদানপূর্বক দক্ষ ও পেশাদার পুলিশ সদস্য তৈরীর নিমিত্ত বাংলঅদেশ পুলিশের আভ্যন্তরীণ চাহিদা পুরণ করে ও আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে উন্নত প্রশিক্ষণ প্রদানে অবদান রাখতে সক্ষম হবে।

আইজিপি বলেন, রাজধানীর উত্তরা ১১ নম্বর সেক্টর ১০/এ বাড়ি নম্বর-২ নিজস্ব ২২.৪৪ কাঠা জমির উপর বেইজমেন্টসহ ১৪ তলা ভিত বিশিষ্ট স্থায়ী ভাবে পূর্ণাঙ্গ স্কুল ভবন তৈরীর কার্যক্রমে ১৭ কোটি ৭৬ লাখ ৬৪ হাজার টাকা ব্যয়ে ইতিমধ্যে ৫তলা নির্মাণ কাজ শেষ হয়েছে। উক্ত কাজের জন্য ২২ কোটি টাকা বরাদ্ব করা হয়েছিল। দ্বিতীয় পর্যায়ের নির্মাণ কাজের কার্যাদেশ দেয়া হয়েছে এবং নির্মাণ কার্যক্রম শুরুর অপেক্ষায় আছে।

জাবেদ পাটোয়ারী তার বক্তৃতায় বলেন, স্কুলটি দেশের ৩টি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর,২১টি স্থলবন্দর, ৩টি সমুদ্রবন্দর ও ২টি রেলওয়ে ইমিগ্রেশন চেকপোষ্ট এ কর্মরত পুলিশ কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ইমিগ্রেশন, পাসপোর্ট বিষয়ক এবং বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীর জন্য ক্লাসিফাইড ইন্টেলিজেন্স বিষয়ক প্রশিক্ষণ প্রদানের একমাত্র প্রশিক্ষণ কেন্দ্র।

তিনি আরো বলেন, অর্থনৈতিক ও প্রযুক্তিগত গোয়েন্দাবৃক্তি অভ্যন্তরীণ, আঞ্জলিক এবং আন্তর্জাতিক সন্ত্রাস, অর্থনৈতিক নিরাপত্তা নানাবিধ প্রেক্ষাপটে পুলিশ সদস্যদের প্রশিক্ষিত করার লক্ষ্যে নিয়মিত প্রশিক্ষণ হালনাগাদ করে পাঠদান করা হয়।
আইজিপি বলেন, বেসিক কোর্সের পাশাপশি মাঠ পর্যায়ে ইন্টেলিজেন্স লিড পুলিশিং বাস্তবায়নে জেলার এসপি,বিেডশনাল এসপি ও ডিআইও গনের জন্য কম্পিহেনসিভ কোর্স চালু করা হয়েছে। যার ফলে এসবি-ডিএসবি’র মধ্যকার অভ্যন্তরীণ কার্যক্রম সহজতর হওয়ার পাশাপশি গোয়েন্দা কার্যক্রম তথা প্রো-একটিভ ইন্টারভেনশন, জঙ্গীবাদ দমন, অপরাধ উদঘাটন ও প্রতিরোধে বাংলাদেশ পুলিশের সামর্থ এবং সাফল্য এখন দেশে ও আন্তঝৃাতিক অঙ্গনে দৃশ্যমান।

তিনি আরো বলেন, বাংলাদেশ পুলিশ হেডকোয়ার্টার্সের নিদের্শ অনুযায়ী সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয়ে জাতীয় শুদ্বাচার কৌশল নামক বিষয়টি বিভিন্ন ফোর্সের প্রশিক্ষণ অর্ন্তভুক্ত করে পুলিশ সদস্যদের পাঠদান প্রক্রিয়া চলমান আছে।
আইজিপি বলেন, বাংলাদেশ পুলিশের বিভিন্ন ইউনিটে কর্মরত কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের দক্ষতা ও সক্ষমতা বৃদ্বি,মননশলীনতার উন্নয়ন,নেতৃত্বের গুণাবলীর বিকাশ ও প্রয়োগ এবং পেশাদারিত্ব বজায় রেখে দায়িত্ব পালনের নিমিত্ত স্কুল অব ইন্টেলিজেন্স গুনগত মানসম্পদ এবং সমযোপযোগী প্রশিক্ষণ প্রদান করে আসছে।

তিনি বলেন, এছাড়া ধুমপান ও তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহার, মানবপাচার প্রতিরোধ, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা, অগ্নিনির্বাপক ব্যবস্থা, আন্ত:বাহিনীর সদস্যদের মধ্যে সুসম্পর্ক্য রক্ষা ইত্যাদি বিষয়ে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হচেছ।
এর আগে,স্কুল অব ইন্টেলিজেন্স এর শুভ উদ্ধোধন করেন অনুষ্টানের প্রধান অতিথি আইজিপি ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বিপিএম (বার), এসময় এসবি’র এডিশনাল আইজি মীর শহীদুল ইসলাম, স্কুল অব ইন্টেলিজেন্স এর কর্মকর্তা আব্দুর সালামসহ পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ সাথে ছিলেন। পরে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।