শুক্রবার ৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২০ ইং ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

আহত সেই শিশুটির দাবিদার মিলেছে

আপডেটঃ ৫:১২ অপরাহ্ণ | জুলাই ১৩, ২০১৪

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে ট্রাকচাপায় আহত সেই শিশুটির (২) দাবিদার মিলেছে।

ভাঙা পা নিয়ে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন শিশুটিকে উদ্ধারে বগুড়ার পথে রয়েছেন দাবিদার বাবা-নানাসহ পরিবারের  সদস্যরা।

বিকেল ৪টার দিকে বগুড়ার উদ্দেশে রওয়া দিয়েছেন তারা। পরিচয় নিশ্চিত হওয়ার পর শিশুটিকে হস্তান্তর করা হবে বলে জানা গেছে।

গোবিন্দগঞ্জ হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসদ পারভেজ দাবিদারদের উদ্ধৃতি দিয়ে জানান, মেয়েটির নাম মুর্শিদা খাতুন শিখা। বাড়ি গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার তালুক কানুপুর ইউনিয়নের বেড়ামালঞ্চা গ্রামে। শিশুটির বাবা গোলাম মোস্তফা এবং দুর্ঘটনার নিহত মায়ের নাম মুন্নি বেগম।

তিনি আরো জানান, তারা প্রকৃত অভিভাবক কিনা যাচাই-বাছাই করেই শিশুটিকে হস্তান্তর করা হবে।

এদিকে, তালুক কানুপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান (ইউপি) মহসিন আলী বিষয়টি নিশ্চিত করে বাংলানিউজকে জানান, শিশুটিকে উদ্ধারের জন্য অভিভাবকদের সঙ্গে ইউপি সদস্য জাফিরুল ইসলাম জাফুকে পাঠানো হয়েছে।

তিনি আরো জানান, ঘটনার দিন স্বামীর সঙ্গে ঝগড়া করে অভিনামে শিশুটিকে নিয়ে বাবার বাড়ি চাঁপাই নবাবগঞ্জের উদ্দেশ্যে রওনা হয় মুন্নি। বাবার বাড়ি অনেক দূরে হওয়ায় তাদের আর কোন খোঁজ করা হয়নি বা দ‍ুর্ঘটনা কবলিতরা যে তাদেরই লোক বিষয়টি জানা যায়নি।

ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) সদস্য জাফিরুল ইসলাম জানান, তিনি পথে রয়েছেন। এখনো বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে পৌছেননি। তার সঙ্গে শিশুটির বাবা গোলাম মোস্তফা ও নানা বিউটি বেগম রয়েছেন।

বগুড়ার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) খোরশেদ আলম বলেন, আদালতের মাধ্যমে শিশুর পরিচয় নিশ্চিত না হওয়া পর্যন্ত কারো কাছে হস্তান্তর করা হবেনা। বিষয়টি ইতোমধ্যে হাসপাতাল কতৃপক্ষকে জানিয়েছেন তিনি।

গত ৫ জুলাই (শনিবার) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ঢাকা-রংপুর মহাসড়কে উপজেলার ফুলবাড়ি ইউনিয়নের কাটাখালি ব্রিজ সংলগ্ন এলাকায় দুর্ঘটনার শিকার হন অজ্ঞাত ওই নারী ও শিশুটি।

মেয়েকে কোলে নিয়ে সড়কের পাশ দিয়ে হেটে যাওয়ার সময় একটি ট্রাক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে তাদের চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই মা নিহত হন। গুরুতর আহত হয় শিশু মেয়েটি।

দুদিন ধরে ওই নারীর লাশ (৩০) মর্গে পড়ে থাকার পর ৬ জুলাই (রোববার) বিকেলে সেচ্ছাসেবী সংগঠন আঞ্জুমান মফিদুল ইসলামে হস্তান্তর করা হয়।