রবিবার ২১শে জুলাই, ২০১৯ ইং ৬ই শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

এসপি হারুন বললেন -আমি খারাপ মানুষের আতঙ্ক

আপডেটঃ ১:১৫ পূর্বাহ্ণ | ডিসেম্বর ০৫, ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক : নারায়ণগঞ্জনারায়ণগঞ্জে পুলিশ সুপার হিসেবে দায়িত্ব বুঝে নিয়ে আলোচিত এসপি মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ বলেছেন, আমি খারাপ মানুষের জন্য আতঙ্ক। আমি যতদিন থাকব ততদিন কোনো মাদক ব্যবসায়ী, মাস্তানকে ছাড় দেব না।

তিনি বলেন, আমি কোনো নেতাকে মারধর করিনি। যারা আমার বিরুদ্ধে দুর্নাম ছড়ায় তারা মিথ্যা বলে। যারা আকাম করে আমি তাদের আতঙ্ক। কোনো অপরাধীকে আমি ছাড় দেই না।

মঙ্গলবার বিকেল ৩টার দিকে স্থানীয় সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এসব কথা বলেন এসপি হারুন অর রশীদ।

তিনি বলেন, আমরা নির্বাচন কমিশনের অধীনে। আগামী ২৪ দিন আমরা সবাই সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন যাতে হয় সেজন্য রাত-দিন কাজ করব। আমরা নারায়ণগঞ্জে সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ একটি নির্বাচন উপহার দেব। কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা নারায়ণগঞ্জের কোনো ভোটকেন্দ্রে হতে দেব না।

সাংবাদিকদের সহযোগিতা কামনা করে এসপি হারুন অর রশীদ আরও বলেন, আমি মনে করি সাংবাদিকরা হচ্ছেন আমাদের সবচেয়ে কাছের বন্ধু। আপনারা সবসময় আমাদের সহযোগিতা করবেন বলে আশা করছি।

তিনি আরও বলেন, মাদকের বিরুদ্ধে আমাদের অভিযান সবসময় অব্যাহত থাকবে। মাদক ব্যবসা করে এবং আড়ালে সমাজে নেতৃত্ব দেবে এমন মানুষকে আমি কোনো রকম ছাড় দেব না। মাদক ব্যবসার সঙ্গে যদি কোনো পুলিশ কর্মকর্তাও জড়িত থাকে তাহলে তাকে ছাড় দেয়া হবে না।

নারায়ণগঞ্জ একটি চ্যালেঞ্জিং জেলা উল্লেখ করে পুলিশ সুপার বলেন, আমি জানি নারায়ণগঞ্জ একটি চ্যালেঞ্জিং জেলা। তবে নারায়ণগঞ্জের ঐতিহ্যের কারণে আমি এখানে বদলি হয়ে আসতে পেরে নিজেকে গর্বিত মনে করছি। চাকরির সুবাদে না হলেও আমি এর আগেও বিভিন্ন আত্মীয়ের বাসায় বেড়াতে এসেছি। নারায়ণগঞ্জ আমার প্রিয় এলাকা।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন সাংবাদিক আবদুল আলীম, দিলিপ কুমার মণ্ডল, রাজু আহমেদ, তাপস সাহা, মেহেদী হাসান সজিব, শরীফ সুমন, আলামিন প্রধান, সনদ সাহা সানী, শহিদুল্লাহ রাসেল, টিটু, মামুন মিয়া প্রমুখ।

মতবিনিময়কালে উপস্থিত ছিলেন- জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মো. মনিরুল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মো. আব্দুল্লাহ আল মামুন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিবি) মো. নূরে আলম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) মো. ফারুক হোসেন ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (‘ক’ অঞ্চল) মেহেদী ইমরান সিদ্দিকী প্রমুখ।