মঙ্গলবার ২২শে জুলাই, ২০১৯ ইং ৮ই শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

আনুষ্ঠানিক ভাবে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারনা শুরু নির্বাচিত হলে মাদকের বিরুদ্বে লড়াই করা হবে আমার প্রথম কাজ ————– ডিএনসিসি’র ৫৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী মো: নাসির উদ্দিন

আপডেটঃ ৭:১৭ পূর্বাহ্ণ | ফেব্রুয়ারি ১২, ২০১৯

এস, এম, মনির হোসেন জীবন ॥ সাদিয়া আফরিন শ্রাবন ॥ আসন্ন ঢাকা উত্তর সিটি করর্পোরেশন (ডিএনসিসি) ৫৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী ও তুরাগ থানা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহসভাপতি বীরমুক্তিযোদ্ধা এবং সাবেক ইউপি মেম্বার মো: নাসির উদ্দিন। সোমবার থেকে আনুষ্ঠানিক ভাবে তিনি তার নির্বাচনী প্রচার প্রচারনা শুরু করেছেন।তিনি বলেন- আমি যদি আপনাদের ভোটে কাউন্সিলর নির্বাচিত হই এবং আপনারা যদি আমাকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেন- তাহলে আমার ওয়ার্ডে কোন মাদক ব্যবসায়ী ও ডিলার থাকবেনা। আমি নির্বাচিত হলে মাদকের বিরুদ্বে লড়াই করা হবে আমার প্রথম কাজ। মাদককে আমি জিরো টলারেন্সে নিয়ে আসবো। মাদক ব্যবসায়ী যে ই হোকনা কেন কাউকে এব্যাপারে ছাড় দেওয়া হবেনা বলে তিনি হুশিয়ারী দেন।  সোমবার থেকে আমি মাদকের বিরুদ্ধে জেহাদ ঘোষনা করলাম।

নির্বাচনী প্রচারনার অংশ হিসেবে আজ সোমবার বিকেলে ডিএনসিসি তুরাগ থানার ৫৩ নম্বর ওয়াস্থ চন্ডাল ভোগ গ্রামে প্রথম নির্বাচনী প্রচার প্রচারনা, গনসংযোগ ও আলোচনায় সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য তিনি এসব কথা বলেন। পরে আলোচনা সভা শেষে তিনি চন্ডাল ভোগ গ্রামে ব্যাপক গনসংযোগ করেন।

আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ঢাকা উত্তর সিটি করর্পোরেশন (ডিএনসিসি) নির্বাচনকে সামনে রেখে (ডিএনসিসি) ৫৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর প্রার্থী মো: নাসির উদ্দিন (ঘুড়ি) প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন। গনসংযোগকালে তিনি ভোটারদের উদ্দেশ্যে বলেন- আগামী ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ঢাকা উত্তর সিটি করর্পোরেশন (ডিএনসিসি) মেয়র ও কাউন্সিলর নির্বাচন দেশে অনুষ্ঠিত হবে। আমি আপনাদেও সকলের মনোনীত প্রার্থী। আমার মার্কা হলো ঘুড়ি। আপনারা আমাকে ঘুড়ি প্রতীকে বিপুল ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করবেন। এটা আপনাদের সকলের কাছে আমার ভোট চাওয়া। আমি আপনাদের পাশে আছি,ছিলাম এবং ভবিষ্যতে ও থাকবো।

তিনি ভোটার ও দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, আশা করি এবারের নির্বাচন জাতীয় নির্বাচনের মতো অবাধ, সুষ্ঠ ও নিরপ্রেক্ষ ভাবে অনুষ্ঠিত হবে। ভোটের মালিক হলেন-আপনারা। আপনারা নির্ভয়ে ভোট কেন্দ্রে গিয়ে নিজের পছন্দের প্রার্থীকে মূল্যবান ভোট দিয়ে নির্বাচিত করবেন। তাই আমি ঘুড়ি মার্কায় আপনাদের সকলের কাছে ভোট প্রার্থনা করছি।গনসংযোগ কালে তিনি বলেন- আমি যদি কাউন্সিলর নির্বাচনে জয়ী হতে পারি তাহলে ঢাকা উত্তর সিটি করর্পোরেশন (ডিএনসিসি) এর ৫৩ নম্বর ওয়ার্ডকে একটি আধুনিক ও মডেল নগরী হিসেবে গড়ে তুলবো।
তিনি বলেন- যেখানে নাগরিক সমস্যা রয়েছে- যেমন রাস্তাঘাট, ড্রেনেজ ব্যবস্থা, মসজিদ, মাদ্রাসা, কবরস্থান, স্কুল কলেজ, সামাজিক সংগঠন সহ সে সকল সমস্যা রয়েছে সে গুলোকে চিহিÍত করে আপনাদেরকে সাথে নিয়ে দ্রুত সমাধান করবো।

৫৩ নম্বর ওয়ার্ড (সাবেক) হরিরামপুর ইউনিয়ন ৫ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি আলহাজ মো: হাবিবুর রহমানের সভাপতিত্বে গনসংযোগ ও আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন- তুরাগ থানা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ মো: নাজিম উদ্দিন, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মো: জামাল উদ্দিন, অর্থ বিষয়ক সম্পাদক মো: নূও হোসেন, সাবেক ইউপি মেম্বার মো: আজিজ, মো: আব্দুল আজিজ, সাবেক ৫ নম্বর ওয়ার্ডের ইউপি মেম্বার মো: রবিউল ইসলাম, মো: কফিল উদ্দিন,(মেম্বার) মো: আমান উদ্দিন,(মেম্বার), ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগের সহ সম্পাদক মো: আবুল কালাম রিপন, তুরাগ থানা স্বেচছাসেবকলীগের সভাপতি মো: সাদেক হোসেন, সহসভাপতি মো: রফিকুল ইসলাম, যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক মো: ইসমাইল হোসেন সিরাজী, তুরাগ থানা যুবলীগের যুগ্ন আহবায়ক মো: নাছির উদ্দিন নাছিম, সাবেক ৫ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি মো: মুনসুর আহমেদ, আওয়ামীলীগ নেতা মো: সিরাজুল ইসলাম ওমর, উত্তরা-তুরাগ ট্রাক ও কাভার্ডভ্যান মালিক সমিতির সভাপতি হাজী মো: আবুল হাসেম (মাতাব্বর),বাংলাদেশ ট্রাক ও কাভার্ডভ্যান ড্রাইভার্স ইউনিয়ন,তুরাগ ও উত্তরা শাখার সভাপতি মো: মোস্তফা (মাতাব্বর,) স্থানীয় যুবলীগ নেতা মো: ছফুর উদ্দিন, মো: নবীন হোসেন, মো: ইয়ানুছ মিয়া, আওয়ামীলীগ নেতা মো: আবুল কাশেম সহ আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচছাসেবকলীগ, মহিলালীগ সহ সহযোগী অংগ সংগঠনের নেতাকর্মী ও ব্যবসায়ীরা উপস্থিত ছিলেন।