মঙ্গলবার ২৫শে জুন, ২০১৯ ইং ১১ই আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

ভারতীয় পাইলটকে হস্তান্তর করেছে পাকিস্তান

আপডেটঃ ২:১৪ পূর্বাহ্ণ | মার্চ ০২, ২০১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : আটক ভারতীয় বিমান বাহিনীর পাইলট অভিনন্দন বর্তমানকে ভারতের কাছে হস্তান্তর করেছে পাকিস্তান। এর মধ্য দিয়ে প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান তাঁর প্রতিশ্রুতি রক্ষা করলেন।শুক্রবার স্থানীয় সময় রাত সোয়া নয়টার দিকে পাকিস্তানের ওয়াগা সীমান্ত দিয়ে ভারতীয় হাই কমিশনের কর্মকর্তাদের কাছে হস্তান্তর করা হয় অভিনন্দনকে।এর আগে পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর একটি গাড়িবহরে করে ওয়াগা সীমান্তে নিয়ে আসা হয় অভিনন্দনকে। সেখানে ডাক্তারি পরীক্ষার পর ভারতের হাতে তুলে দেওয়া হয় তাকে।

এর আগে অভিনন্দনকে স্বাগত জানাতে সীমান্তে ভিড় করে বিপুল সংখ্যক মানুষ। ছেলেকে আনতে ওয়াগা সীমান্তে শুক্রবার সকালেই পৌঁছেন অভিনন্দনের বাবা অবসরপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এয়ার মার্শাল এস বর্তমান এবং মা শোভা বর্তমান। ভারতীয় বিমান এবং সেনা বাহিনীর শীর্ষকর্মকর্তারাও  সীমান্তে পৌঁছেন। অভিনন্দনের দেশে ফেরাকে ঘিরে সতর্কতা জারি করা হয় সেখানে।

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী শুক্রবার অভিনন্দনের প্রশংসা করে বলেছেন, ‘প্রত্যেক ভারতীয়র গর্ব করা উচিত যে বাহাদুর উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন তামিলনাড়ুর ছেলে।

তিনি বলেন, গত কয়েকদিনের ঘটনাবলী আমাদের জাতিকে একে অপরের আরো কাছে এনেছে। দেশ যেভাবে আমাদের সশস্ত্র বাহিনীকে সমর্থন করেছে তা অসাধারণ এবং এজন্য আমি প্রতিটি ভারতীয় নাগরিককে কুর্নিশ করছি।’

বুধবার পাক অধিকৃত কাশ্মীরের আকাশে ভারতীয় যুদ্ধবিমান নিয়ে অনুপ্রবেশ করেছিলেন উইং কমান্ডার অভিনন্দন। পাকিস্তানে সেনাবাহিনীর গুলিতে ভূপাতিত হয় ভারতীয় যুদ্ধবিমান মিগ-২১।

ওই যুদ্ধবিমানের ভেতর থেকে পাইলট অভিনন্দনকে বের করে আনেন উত্তেজিত কাশ্মীরিরা। পরে তাকে উদ্ধার করে নিজেদের জিম্মায় নেয় পাকিস্তান সেনাবাহিনী। এরপর অভিনন্দনের একটি ভিডিও প্রকাশ করে পাকিস্তানের সশস্ত্র বাহিনীর ‘ইন্টার সার্ভিসেস পাবলিক রিলেশন্স’ (আইএসপিআর)।

এ ভিডিও প্রকাশের পর ভারত সরকার তাদের একজন আহত বৈমানিক পাকিস্তানের হাতে আটক হয়েছে উল্লেখ করে এক বিবৃতিতে তাকে দ্রুত এবং নিরাপদে ফিরিয়ে দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছিল।

এর পরিপ্রেক্ষিতে পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রণালয় প্রথমে জানায়, অভিনন্দনকে ফিরিয়ে দিলে যদি সংঘাত এড়ানো যায় তাহলে তারা তাকে ফেরত দেবে।পরে বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের পার্লামেন্টে আয়োজিত যৌথ অধিবেশনে আটক ভারতীয় পাইলটকে শুক্রবার মুক্তি দেয়ার ঘোষণা দেন প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

চলমান উত্তেজনা প্রশমনে এবং শান্তির ইঙ্গিত হিসেবে ভারতীয় পাইলটকে মুক্তির ঘোষণাকে দুর্বলতা হিসেবে যেন না ভাবা হয়; সেব্যাপারেও সতর্ক করে দেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী।

এদিকে অভিনন্দনকে ফিরিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্তে রাতারাতি ‘হিরো’ হয়ে ওঠেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। স্যোশাল মিডিয়ায় অনেকেই তার প্রসংশা করছেন। ইমরান খানকে ‘প্রকৃত রাষ্ট্রনায়ক’ হিসেবেও বর্ণনা করেছেন অনেকে। অন্যদিকে, নানা প্রশ্ন আর সমালোচনায় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর অবস্থা এখন অনেকটা ভিলেনের মতো।

প্রসঙ্গত. দুই সপ্তাহ আগে ভারত শাসিত কাশ্মীরের পুলওয়ামায় আত্মঘাতী হামলায় সে দেশের সেন্ট্রাল রিজার্ভ পুলিশ ফোর্সের (সিআরপিএফ) ৪৬ সদস্য নিহত হয়।ভারত দাবি করেছে, ওই হামলার দায় স্বীকার করেছে পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গি গোষ্ঠী জইশ-ই-মোহাম্মদ। এরপর থেকেই ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়।