রবিবার ২১শে জুলাই, ২০১৯ ইং ৬ই শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

নিয়োগ পেলেন ক্রিকেট ইতিহাসের প্রথম মহিলা ম্যাচ রেফারি

আপডেটঃ ৯:২১ অপরাহ্ণ | মে ১৪, ২০১৯

নিয়োগ পেলেন ক্রিকেট ইতিহাসের প্রথম মহিলা ম্যাচ রেফারি

ক্রীড়া ডেস্ক : বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি আজ মঙ্গলবার প্রথম মহিলা ম্যাচ রেফারি হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে ভারতের জিএস লাক্সমিকে। তিনি ২০০৮-০৯ মৌসুমে প্রথম ঘরোয়া নারী ক্রিকেট ম্যাচ পরিচালনা করেন। এরপর তিনি নারীদের তিনটি ওয়ানডে ও তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচেও দায়িত্ব পালন করেছেন।

নিয়োগ পাওয়ার পর অনুভূতি প্রকাশ করে লাক্সমি বলেছেন, ‘আইসিসির প্যানেল ম্যাচ রেফারি হিসেবে নিয়োগ পাওয়াটা আমার জন্য বিরাট সম্মানের। এটা নতুন দিগন্তের দ্বার উন্মোচন করেছে। ভারতে একজন ক্রিকেটার হিসেবে আমার যেমন লম্বা ক্যারিয়ার ছিল, তেমনি ম্যাচ রেফারি হিসেবেও। আশা করছি খেলোয়াড় ও ম্যাচ রেফারি হিসেবে আমার যে অভিজ্ঞতা রয়েছে সেটা আমি আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ভালোভাবেই কাজে লাগাতে পারব।’

‘আমি আইসিসিকে ধন্যবাদ দিতে চাই। ভারতের ক্রিকেট নিয়ন্ত্রণ বোর্ডকে ধন্যবাদ দিতে চাই। ক্রিকেট অঙ্গনে আমার যারা সিনিয়র আছেন তাদের ধন্যবাদ দিতে চাই। ধন্যবাদ দিতে চাই আমার পরিবার ও সহকর্মীদের। যারা বছরের পর বছর ধরে নানাভাবে আমাকে সাহায্য ও সহায়তা করেছে। আমি আমার সামর্থের সবটুকু দিয়ে তাদের যে প্রত্যাশা সেটা পূরণ করার চেষ্টা করব।’ যোগ করেন লাক্সমি।

লাক্সমির পাশাপাশি আইসিসির ডেভেলপমেন্ট প্যানেল আম্পায়ার হিসেবে পোলোসাকের সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার ইলোইস শেরিদান। এর ফলে আইসিসিতে নারী প্যানেলে সদস্য সংখ্যা হল ৮ জন। এই তালিকায় আছেন লরেন আজেনবাগ, কিম কটন, শিভানি মিশ্রা, সুয়ে রেডফার্ন, ম্যারি ওয়ালডর্ন ও জ্যাকুলিন উইলিয়ামস।

২০১৮-১৯ বিগ ব্যাশে শেরিদান রিজার্ভ আম্পায়ার হিসেবে দুটি ম্যাচে দায়িত্ব পালন করেছেন। আর নারীদের বিগ ব্যাশে চারটি ম্যাচে আম্পায়ার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। ২০১৮ সালে তিনি প্রথম কোনো অস্ট্রেলিয়ান নারী হিসেবে পুরুষদের প্রথম গ্রেড প্রিমিয়ার ক্রিকেটের ফাইনালে আম্পায়ার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলেন।