| |

Ad

কুষ্টিয়ার ছেউড়িয়ায় লালন আখড়াবাড়ীতে লালন স্বরনোৎসব’র উদ্বোধন হয়েছে

অক্টোবর ১৭, ২০১৭

 হাসিবুর রহমান রুবেল :  কুষ্টিয়া : বাউলসম্রাট ফকির লালন শাহের ১২৭ তম তিরোধান দিবস উপলক্ষ্যে কুষ্টিয়ার ছেউড়িয়ায় লালন আখড়াবাড়ীতে লালন স্বরনোৎসব’র উদ্বোধন হয়েছে। ‘‘কে তোমার আর যাবে সাথে’ শ্লোগানে রাত সাড়ে আটটায় আখবাড়ীর মূল মে এই উৎসবের উদ্বোধন করেছেন আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ এমপি। কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক, লালন একাডেমির সভাপতি মো: জহির রায়হানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান আলোচক হিসেবে লালনের জীবন ও কর্ম নিয়ে আলোচনা করেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ড. সরোয়ার মুর্শেদ, লালন মাজারের খাদেম মোহাম্মদ আলী। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার এস এম মেহেদী হাসান, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সদর উদ্দিন খান, সাংবাদিক ইউনিয়ন কুষ্টিয়ার সভাপতি রাশেদুল ইসলাম বিপ্লব প্রমুখ। উল্লেখ্য,...

তুমি বরং দূরে চলে যাও

অক্টোবর ১৬, ২০১৭

তুমি বরং দূরে চলে যাও    ফয়সাল হাবিব সানি : যতোটুকু কাছে অাসলে ছোঁয়া যায় তোমাকে, স্পর্শ করা যায় তোমার হাত, তারপর শরীর- অামি বরং ততোটুকুই দূরে থাকব। তুমি কিন্তু কাছে অাসতে চেয়ো না; কাছে অাসলেই তোমায় হারিয়ে ফেলব অামার ভেতর। কাছে অাসলেই `তুমি' হয়ে যাবে `অামি'- অামি এতোটা `অামি' নিয়ে কিভাবে থাকব বলো? তুমি বরং অারও দূরে চলে যাও, যেখান থেকে দেখা যায় না তোমায়; যতোটা দূরে গেলে তোমাকে খুঁজতে শিখব অামি, যতোটা দূরে গেলে তোমাকে খুঁজতে খুঁজতে পৌঁছে যাব নীল সমুদ্রের কাছে তুমি বরং ততোদূরেই চলে যাও... তোমাকে খুঁজতে যেয়ে অামি সমুদ্র দেখতে চাই, হিমালয় দেখতে চাই, নীলনদ দেখতে চাই- তোমাকে খুঁজতে যেয়ে যেন অামি পৃথিবীকেই পড়ে পাই- পৃথিবীকেই বুকে ধরে কারও জন্য অন্তত তো অাবার জন্মাতে পারি! তবুও তো কারও জন্য...   পাগলি কোথাকার! এসব শুনে রাগ করলে বুঝি? অাচ্ছা, জেনে রেখো তবে- যতোটুকু দূরে...

বাউল শিরোমণি ফকির লালন শাহ

অক্টোবর ১৬, ২০১৭

॥ আব্দুর রাজ্জাক বাচ্চু ॥ বাউল গানের বিপুল জনপ্রিয়তার মূলে যাঁর অবদান সর্বশ্রেষ্ঠ ও সর্বাধিক, তিনি হলেন বাংলার বাউলের শিরোমনি- ভাবজগতের গানের রাজা, বাউল সাধনার সিদ্ধ পুরুষ ফকির লালন শাহ। প্রায় দু’শ বছর ধরে তাঁর গান আমাদের আধ্যাত্ম-ক্ষুধা এবং রস-তৃষ্ণা মিটিয়ে আসছে। বাড়ীর কাছে আরশী নগর, সেথাই এক ঘর পড়শী বসত করে, আমি একদিনও না চিনিলাম তারে।। লালনের এ গান গুলো কার না ভাল লাগে। দেখেছি যখন লালনের গানের সুর কোথাও থেকে ভেসে আসলে আশেপাশের লোকজন নিবিষ্ট মনে সেই সুর ও কথা গুলিকে শুনতে। আগে লালনের গানের সুর ও কথা বিভিন্ন বাউলের একতারা কিংবা দোতারাতে, কন্ঠে গ্রাম বাংলার মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকলেও তা এখন ধীরে ধীরে আমাদের বাংলাদেশের নগর সভ্যতায় বেশ পাকা পোক্ত স্থান করে নিয়েছে। অপ সংস্কৃতির জোয়ারে বাংলার লোক সংস্কৃতিকে গ্রাস করার উপক্রম হলেও লালনগীতি আজো উজ্জল হয়ে আছে...

হালুয়াঘাটে গ্রাম আদালত সেবা বিষয়ক র‍্যালি ও আলোচনা

অক্টোবর ১৬, ২০১৭

ওমর ফারুক সুমন, হালুয়াঘাটঃ ১৫ অক্টোবর রবিবার বিকেলে চেয়ারম্যান কামরুল হাসানের নেতৃত্বে উপজেলার জুগলী ইউনিয়নে গ্রাম আদালতের সেবা সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধিমূলক র‍্যালি ও আলোচনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। র্র‍্যালিটি জুগলী ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয় থেকে আরম্ভ হয়ে ছাতুগাঁও বাজার প্রদক্ষিন করে পুনরায় পরিষদ সন্মুখে এসে মিলিত হয়। র‍্যালি পরবর্তী আলোচনা সভায় চেয়ারম্যান কামরুল হাসান জনতার উদ্দেশ্যেবলেন, বিচারের জন্যে আপনাদের আর থানা কোর্টে দৌড়াতে হবেনা। গ্রাম আদালতেই তা নিস্পত্তি করা হবে। তিনি বলেন, গ্রাম আদালতের জন্যে আলাদা অফিস সহকারী নিয়োগ করা হয়েছে। আদালতকে সু’সজ্জিত করা হয়েছে। যে কোন ধরনের সেবার জন্যে গ্রাম আদালত উন্মুক্ত থাকবে বলে তিনি জানান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, ইউপি সদস্যবৃন্দ, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ সহ জুগলী ইউনিয়নের স্থানীয় জনতার একাংশ।...

ব্যাংককের কিছু স্মৃতি :“মন ঘনিয়ে আসে” অসমাপ্ত কথা-

অক্টোবর ১১, ২০১৭

শেখ আব্দুস সালাম : আজ সকালে ঘুম থেকে ওঠে দেখলাম আকাশ অন্ধকার। দুদিন ধরে আবহাওয়া অফিস বার্তা দিচ্ছে অক্টোবরে দুটো বড়ো ধরনের ঝড় দেশের ওপর আঘাত হানতে পারে। আকাশের এমন অবস্থা দেখে মনও অন্ধকারে ঘনিয়ে আসছে। এরই মধ্যে নানা কথা মনে পড়ে গেলো । ১। পূজোর ছুটিতে ব্যাংককে গিয়েছিলাম। মাত্র ক’দিন হলো দেশে ফিরেছি। চিকিৎসা ও বেড়ানো দুটোই উদ্দেশ্য ছিলো। ব্যাংককের চিকিৎসায় স্বাস্থ্যের ক্রমাবনতি হচ্ছে। এর বেশি আর কী-ই বা লেখার আছে? তারপরও কিছু ঘটনা, কিছু স্মৃতি মনে উঁকি দিয়ে ব্যাংককের কিছু স্মৃতি মনে পড়ে যাচ্ছে। আগের দিন ডাক্তার কিছু পরিক্ষা-নিরীক্ষার পরামর্শ দিলেন। পরের দিন খালি পেটে ব্লাড টেস্টের জন্য Bumrngrad International Hospital এ গেলাম। পরিক্ষাগারে রক্ত দেয়া হলো। পরের দিন বিকাল ৩.২০ মিনিটে টেস্টের রিপোর্টসহ ডাক্তারের সাথে পূন:সাক্ষাৎকারের সময় ধার্য করা ছিলো। ঐ দিনের সকাল থেকে দুপুর...

মা-মেয়েকে নির্যাতন: ১৩ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র

অক্টোবর ১১, ২০১৭

বগুড়া প্রতিনিধি :বগুড়ায় এক ছাত্রীকে ধর্ষণ ও পরে তাকেসহ মাকে নির্যাতন করে মাথা ন্যাড়া করার ঘটনার দুটি মামলায় ১৩ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করেছে পুলিশ।   মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে অভিযোগপত্র দাখিলের বিষয়টি রাইজিংবিডিকে নিশ্চিত করেছেন জেলার মিডিয়া সেলের দায়িত্বে থাকা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী।   তিনি জানান, মা-মেয়েকে নির্যাতনের ঘটনায় ১৩ জনের সম্পৃক্ততার প্রমাণ পাওয়া গেছে বলে তদন্ত কর্মকর্তা উল্লেখ করেছেন।   যাদের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করা হয়েছে, তারা হলেন- বহিষ্কৃত বগুড়া শহর শ্রমিক লীগ নেতা তুফান সরকার, তার স্ত্রী আশা খাতুন, স্ত্রীর বড় বোন বগুড়া পৌরসভার কাউন্সিলর মার্জিয়া হাসান রুমকি, শাশুড়ি রুমি খাতুন, তুফান বাহিনীর সদস্য আতিক, মুন্না, আলী আজম দিপু, রূপম, শিমুল,...

প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণের শাস্তি ৫০ হাজার টাকা!

অক্টোবর ০৬, ২০১৭

নিউজ,নোয়াখালী: নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার চর ফকিরা ইউনিয়নের গুচ্ছগ্রামে বাকপ্রতিবন্ধী এক কিশোরীকে (১৭) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। সোমবার সকালের এ ঘটনায় অভিযুক্ত যুবক জুয়েলকে হাতেনাতে আটকও করা হলেও পরে ছেড়ে দিয়ে ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে।   অভিযোগ উঠেছে, স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও সদস্য ৫০ হাজার টাকা জরিমানার সিদ্ধান্ত দিয়ে আটক ইসমাইলকে ছেড়ে দিয়েছেন।   পরে ঘটনার শিকার ওই কিশোরীর মা বাদী হয়ে মঙ্গলবার রাতে কোম্পানীগঞ্জ থানায় অভিযুক্ত ইসমাইল হোসেন ওরফে জুয়েলসহ তিন জনকে আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দয়ের করেন।   মামলার বাদী অভিযোগ করেন, চরফকিরা ইউনিয়নের একরামুল হকের ছেলে ইসমাইল হোসেন ওরফে জুয়েল (১৮) দীর্ঘদিন থেকে তার বাকপ্রতিবন্ধি কিশোরী মেয়েকে (১৭) বিভিন্নভাবে...

৭৭ বছরের বৃদ্ধা আমেনা ও তার পরিবারের জীবন চলে লতিপাতার উপর !

অক্টোবর ০৬, ২০১৭

কোহিনুর ইসলাম:কুষ্টিয়া: বাবা ও বাবা আমি কোন দিক দিয়ে যাবো” “বাবা, ও বাবা আমি তো আর চোখে দেখতে পায়না” একটা বৃদ্ধ কন্ঠে বলা কথা। কুষ্টিয়া সদর উপজেলার জিয়ারখী ইউনিয়নের শিবপুর গ্রামের মৃত সেকেন আলীর স্ত্রী আমেনা (৭৭)। তার একমাত্র সন্তান উসমান আলী (৫৫)। চার কন্যা সন্তানের মধ্যে তিন কন্যাকে বিয়ে দিয়েছেন। বর্তমানে তার বয়স্কা অসুস্থ মা অসুস্থ স্ত্রী ও এক কন্যা সন্তান কে নিয়ে সরকারী জিকে ক্যানালের পাড়ে বসবাস করে আসছে। নিজে অসুস্থতার কারনে কাজ করতে পারেন না। তাই রাস্তার পাশে জন্মানো কচুর লতি ও কচুর শাক, সহ গ্রাম গঞ্জে শাকপাতাড়ি বিক্রয় করে দিনে ৫০-১০০ টাকা আয় হয়। তা দিয়ে বৃদ্ধ মা স্ত্রী ও সন্তান কে নিয়ে কোন রকম চাউল সিদ্ধ করে খেয়ে বেচেঁ আছে এই পরিবারটি। ঝড় বৃষ্টির মধ্যেই থাকতে হয় একটি কুড়ে ঘরে, আর এমনি কুড়ে ঘর যার কোন দরজা নেই, চারিদিক দিয়ে পাঠকাঠি দিয়ে ঘেরা, উপরেও পাঠকাঠি...

রাজশাহীতে ড্রেন থেকে নবজাতকের লাশ

অক্টোবর ০১, ২০১৭

নাজিম হাসান,রাজশাহী প্রতিনিধি: রাজশাহী মহানগরীতে ড্রেনের ভেতর থেকে সদ্য ভূমিষ্ঠ এক কন্যা শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল শনিবার দুপুর ১২টার দিকে নগরীর শিরোইল কলোনী এলাকার একটি ড্রেন থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। নগরীর বোয়ালিয়া থানার শিরোইল পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবদুল করিম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, শিরোইলে রেলের ওয়ার্কশপের মাঠের পাশের একটি ড্রেনের ভেতর মরদেহটি পড়ে ছিল। বেলা ১১টার দিকে স্থানীয়রা সেটি দেখতে পেয়ে পুলিশে খবর দেন। পরে সুরতহাল প্রতিবেদন প্রস্তুতের পর মরদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজের মর্গে পাঠানো হয়। এসআই আবদুল করিম বলেন, মরদেহ দেখে মনে হয়েছে শুক্রবার দিবাগত রাতেই শিশুটির জন্ম হয়েছিল। শিশুটির বাবা-মায়ের সন্ধান চলছে। না পাওয়া গেলে ময়নাতদন্তের পর মরদেহটি অজ্ঞাত হিসেবে দাফন করা হবে। বোয়ালিয়া...

রাজশাহীতে দুই মাথার গরু দেখতে মানুষের ভিড়

সেপ্টেম্বর ২৯, ২০১৭

নাজিম হাসান,রাজশাহী প্রতিনিধি: রাজশাহী মহানগরীর শেখপাড়া এলাকায় তার নাম রাজা এটা কোন মানুষের নাম নয়,একটি গরুর নাম। সে আর অন্য কোন গরুর মতো স্বাভাবিক না। অস্বাভাবিক গরুর দর্শন ফি নেয়া হচ্ছে ১০ টাকা। অস্বাভাবিক গরুটি নাম রাখা হয়েছে রাজা। রাজার রয়েছে দুইটি মাথা,তিনটি চোখ ও চারটি শিং। রাজার বয়স এখন তিন বছর ১০ মাস। এ ধরনের বিচিত্র আকৃতির কারণে গরুটিকে ঘিরে রয়েছে মানুষের কৌতূহল। রাজাকে প্রতিদিন একনজর দেখতে উৎসুক এলাকার মানুষের ভিড় জমাছেন। তবে গরু দেখার জন্য প্রত্যেক দর্শনার্থীকে ফি দিতে হয় ১০ করে। অস্বাভাবিত গর্বর মালিক মঈন উদ্দিন জানান, তার বাসায় গরু পালন করা হয়। একটি গরু থেকে জন্মগ্রহণ করে অস্বাভাবিক গরু রাজা। রাজা জন্মের পরে বাড়ির মানুষ অবাক হয়ে গিয়েছিলো। প্রথমে মনে হয়েছিলো বাঁচানো যাবে না। অনেক যতœ করা হয়। আদর করে নাম রাখা হয় রাজা। মঈন উদ্দিন বলেন, রাজা...