মঙ্গলবার ১৫ই অক্টোবর, ২০১৯ ইং ৩০শে আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

Ad

সর্বশেষঃ

ঢাকা এলিভেটেড এক্রপ্রেসওয়ে প্রকল্পের তিন ধানের সার্বিক উন্নয়ন নির্মাণ কাজ ২০২২ সালের মার্চে সম্পন্ন করা হবে —————ওবায়দুল কাদের

আপডেটঃ ৫:৪৯ অপরাহ্ণ | জুন ১৮, ২০১৯

এস,এম,মনির হোসেন জীবন ॥ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ঢাকা এলিভেটেড এক্রপ্রেসওয়ে প্রকল্পের তিন ধানের সার্বিক উন্নয়ন নির্মাণ কাজ ২০২২ সালের মার্চে সম্পন্ন করা হবে।
ওবায়দুল কাদের বলেন, ঢাকা এলিভেটেড এক্রপ্রেসওয়ে পাবলিক-প্রাইভেট পার্টনারশীপ (পিপিপি) প্রকল্পের উন্নয়ন কাজ বাস্তবায়িত হচেছ। পাশাপাশি এ প্রকল্পের সার্বিক উন্নয়ন কাজ বেশ জোরেসোরে চলছে।
তিনি বলেন এছাড়া মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশের আরও একটি প্রকল্পের উন্নয়ন কাজ হবে। এটি ঢাকাবাসির জানা নেই। ২০৩০ সাল হলো আমাদের টার্গেট। চায়না এক্রিজব্যাংক সেটি অর্থায়ন করছে। সেটি বাস্তবায়ক করছে ইথাল থাই নামে একটি প্রতিষ্ঠান।
তিনি আজ মঙ্গলবার দুপুর দেড়টায় রাজধানীর বিমানবন্দর থানার কাওলা রেলগেইট সংলগ্ন ঢাকা এলিভেটেড এক্রপ্রেসওয়ে (পিপিপি) প্রকল্পের উন্নয়ন কাজের অগ্রগতি পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সাথে এক প্রেসব্রিফিংয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেও এসব কথা বলেন।
প্রেসব্রিফিং অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে এসময় উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মামুন অর রশীদ, জেনারেল সাঈদ সিদ্দিকী, মেজর জীশান, ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের বনও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক বীরমুক্তিযোদ্বা এস,এম তোফাজ্জল হোসেন, ঢাকা এলিভেটেড এক্রপ্রেসওয়ে (পিপিপি) প্রকল্পের পিডি সহ অন্যান্য উধ্বর্তন কর্মকর্তারা সাথে ছিলেন।
পদ্মাসেতুর মতো মেট্রোরেল প্রকল্পের কাজ এগিয়ে চলেছে উল্লেখ করে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, পদ্মাসেতুর মতো মেট্রোরেল প্রকল্পের সার্বিক উন্নয়ন কাজ আগের চেয়ে অনেকটা পুরোদমে এগিয়ে চলেছে।
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, পাবলিক-প্রাইভেট পার্টনারশীপ পিপিপি প্রকল্পের মট্রোরেলের কাজ এখন পদ্মা সেতুর মতো দৃশ্যমান স্থায়ী হয়েছে।
সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ঢাকা এলিভেটেড এক্রপ্রেসওয়ে (পিপিপি) প্রকল্পের কাজ ৩ (তিন) ধাপে ভাগ করা হয়েছে। প্রথম ধাপ ঢাকা শাহজালাল বিমানবন্দর থেকে শুরু করে বনানী পর্যন্ত। যার দৈর্ঘ্য রয়েছে ১৯.৭৩ বর্গ কিলোমিটার) প্রায় ২০ কিলোমিটার। দ্বিতীয় ধাপ হলো বনানী থেকে মগবাজার পর্যন্ত। আর তৃতীয় ধাপ হলো মগবাজার থেকে শুরু করে কুতুবখালী পর্যন্ত।
সাংবাদিকদের অপর এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ২০২০ সালের জানুয়ারী মাসে প্রথম ধাপের বিমানবন্দর থেকে বনানী পর্যন্ত ঢাকা এলিভেটেড এক্রপ্রেসওয়ে (পিপিপি) প্রকল্পের কাজ শেষ করা হবে। এছাড়া প্রকল্পের ৩ ধাপের সার্বিক উন্নয়ন কাজ ২০২২ সালের মার্চ মাসে শেখ হবে।
সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, ২০২০ সালের নভেম্বর মাসে এই প্রকল্পের প্রথম ধাপের কাজ শেষ করার কথা থাকলেও সেটি করা হবে জানুয়ারি মাসে। কেননা, এটি পিপিপি প্রজেক্টের কাজ। কেননা, এক্ষেত্রে যা সত্যি আমি তাই বলেছি।
প্রথম ধাপের কাজ শেষ হবার পর সেটি যানচলাচলের উপযুগী করা হবে কি না ? সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, প্রকল্পের উন্নয়ন কাজ শেষ না হওয়া পর্যন্ত সেটি জনগনের জন্য উন্মোক্ত করা হবেনা। তবে, প্রকল্পের দ্বিতয়ি ধাপের কাজ শেষ হলে যানচলাচল করবে। তবে, আগামী এক বছরের মধ্যে দ্বিতীয় ধাপের উন্নয়ন কাজ শেষ করার কথা রয়েছে।
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিকদেরকে বলেন, প্রকল্পের মূল ভৌত কাজের মধ্যে রয়েছে ১৩৩৩ টি পাইল, ৩০২টি পাইল ক্যাপ, ৬৩টি ক্রস-বিম, ১৮৭টি কলাম (সম্পন্ন), ১২৮টি (আংশিক), ১৮৬টি আই গার্ডার নির্মাণ সম্পন্ন করা হয়েছে। এছাড়া ১৪টি স্পান আই গার্ডার স্থাপন করা সম্পন্ন হয়েছে বলে জানান সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।
পিপিপি প্রকল্প সুত্রে জানা যায়, ঢাকা এলিভেটেড এক্রপ্রেসওয়ে পাবলিক-প্রাইভেট পার্টনারশীপ (পিপিপি) প্রকল্পের জন্য ২০১৩ সালের ১৫ ডিসেম্বর এবিষয়ে চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। প্রকল্পের কাজ ৩ ধাপের সম্পন্ন করা হবে। তার মধ্যে ৩১টি র‌্যাম্প। যার দৈর্গ্য ২৭ কিলোমিটার। সর্বমোট দৈর্ঘ্য হলো ৪৬.৭৩ কিলোমিটার।
সুত্রে আরও জানা যায়, নির্মাণ প্রকল্প ব্যয় ধরা হয়েছে ৮৯৪০.১৮ কোটি টাকা। সার্পোট টু ঢাকা এলিভেটেড প্রকল্প ব্যয় ৪৮৬৯.০০ কোটি টাকা। ারধনরষরঃু মধঢ় ভঁহফরহম ( ঠএঋ) ২৪১৩.৮৪ কোটি টাকা। কনসেশন পিরিয়ড ২৫ বছর (৩.৫ বছর নির্মাণ কালসহ)। প্রকল্পের মূল নির্মাণ কাজ ২ অক্টোম্বও ২০১৮ তারিখ থেকে আনুষ্টানিক ভাবে শুরু হয়। প্রকল্পের প্রথম ধাপ ২০১৯ নভেম্বর ও দ্বিতয়ি ধাপ ২০২০ ডিসেম্বর এবং তৃতয়ি ধাপ ২০২২ সালের মার্চ মাসে সম্পন্ন করা হবে।